বুধবার, ১৯ ডিসেম্বর ২০১৮ ০১:১৪:৫০ এএম

কাঁদলেন রোহিতের স্ত্রী?

খেলাধুলা | বুধবার, ১৩ ডিসেম্বর ২০১৭ | ০৫:৩৪:০০ পিএম

কাঁদিয়ে ছাড়লেন রোহিত শর্মা। হ্যাঁ, এই কথা শ্রীলঙ্কার বোলারদের ক্ষেত্রে তো খাটেই। কিন্তু মাঠে খেলা দেখতে এসে রোহিত শর্মার স্ত্রী ঋতিকা সচদেব কেঁদে ভাসাবেন, একথা কে জানত? তবে ভয় পাবেন না, অন্য কিছুর জন্য নয়, রোহিতের সাফল্য দেখেই চোখের জল ধরে রাখতে পারেননি স্ত্রী। আজকের দিনেই ২০১৫ সালে বিয়ে হয়েছিল রোহিত-ঋতিকার। বিবাহবার্ষিকীর দিন এমন উপহার তার চোখে তো জল আনবেই।

মোহালিতে এদিন খেলা দেখতে মাঠে এসেছিলেন ঋতিকা। গ্যালারি থেকে আগাগোড়াই স্বামীকে উৎসাহ দিয়েছিলেন তিনি। বারবার হাততালি দিয়ে লাফিয়ে উঠছিলেন। কিন্তু উৎকণ্ঠা চরমে ওঠে শেষ ওভারে। যখন জীবনের তৃতীয় ডবল সেঞ্চুরির গোড়ায় দাঁড়িয়ে ছিলেন বিরাট।

টিভিতে বারবার দেখা যাচ্ছিল, আঙুল কামড়ে শেষ কয়েকটা বল দেখছেন তিনি। ‘ফিঙ্গার ক্রসড’ রয়েছে তাঁর। ভয়ও রয়েছে, কী হয় কী হয় ভাব। শেষ ওভারের শুরুতেই একটি লম্বা ছয় হাঁকান রোহিত শর্মা। ১৯১ থেকে তাঁর রান পৌঁয়ে যায় ১৯৭-এ। হাতে তখনও কয়েকটি বল আছে। এর পরের বলেই সেঞ্চুরি করে ফেলতে পারতেন রোহিত। কিন্তু বাউন্ডারির দেখা পাওয়া যায়নি। বড় কিছুটা ঝুঁকি নিয়ে দৌড়ে দু’রান নেন তিনি। দ্বিতীয় রানটি নেওয়ার সময়ে ক্রিজে ঢোকার মুহূর্তে ঝাঁপ দিয়েছিলেন বিরাট। আর সেই সেই দৃশ্য দেখতে গিয়ে চোখ ঢেকে ফেলেন ঋতিকা। এরপরেই আশে সেই খুশির সময়। দ্বিশতরান পূর্ণ করেন রোহিত।

এবারে উঠে দাঁড়িয়ে হাততালি দেন ঋতিকা, চেঁচিয়ে ওঠেন। কিন্তু চোখের কোনায় ভরে আসে জল। ছলছলে চোখে ঋতিকার গাল ভরে ওঠে খুশির অশ্রুতে। হাত দিয়ে চোখের জল মোছেন তিনি। স্বামী, বন্ধুর গর্বে বড় খুশি হয়েছেন যে তিনি।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন