শুক্রবার, ২২ জুন ২০১৮ ০৯:২২:০০ এএম

কর্মক্ষেত্রে সমস্যায় পুরুষসঙ্গী ? কীভাবে পাশে থাকবেন

লাইফস্টাইল | শুক্রবার, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৭ | ০২:০৪:২৬ পিএম

অফিসে কোনও বিষয় নিয়ে ঝামেলা চলছে। শত কাজ করেও আপনার পুরুষসঙ্গী বসকে খুশি করতে পারছেন না। সবার বেতন বৃদ্ধি হয়ে গেলেও তাঁর আর হচ্ছে না। মন দিয়ে কাজ করছেন কিন্তু, তাতেও কোনও লাভ হচ্ছে না। বাড়িতে আসার পর সারাক্ষণই তাঁর মেজাজ খিটকে থাকছে। আপনি কোনও কথা বললেও ঝাঁঝের সঙ্গে উত্তর দিচ্ছেন। আপনাদের সুখী দাম্পত্যের মধ্যে যদি কখনও এরকম কোনও সময় আসে তাহলে কী করবেন ? সম্পর্ক টিকিয়ে রেখে কেমনভাবে এই পরিস্থিতির সামাল দেবেন ?

জোর করে আপনার কথা শুনতে বাধ্য করবেন না

উপযাজক হয়ে আপনিই প্রথমে কোনও উপদেশ দেবেন না তাঁকে। অফিসে খারাপ সময় গেলে কোনও মানুষেরই মাথার ঠিক থাকে না। তাই বাড়িতে এসে কাছের মানুষের উপর রাগ দেখাতে থাকেন তাঁরা। আসলে কী বলুন তো কাছের মানুষ ছাড়া বাইরের কারও উপর তো আর রাগ দেখানো যায় না। সে যাই হোক না কেন নিজের থেকে আগ বাড়িয়ে সঙ্গীকে কোনও উপদেশ দিতে যাবেন না। এতে তিনি রেগে যেতে পারেন। বরং দরকার মতো সাহায্যের কথা তাঁকে বলতে পারেন। এর ফলে দেখবেন একটা সময় পর তিনি নিজেই আপনার কাছে সাহায্য চাইতে আসছেন।

সমালোচনা করবেন না

এই কঠিন সময় নিয়ে সঙ্গীকে দোষারোপ করবেন না। অথবা তাঁর সমালোচনাও করবেন না। এটা খুব খারাপ বিষয়। এই সময়গুলিতে তাঁর মাথার কোনও ঠিক থাকে না। তাই কাছের মানুষ হয়ে যদি আপনিও তাঁর সমালোচনা করেন তাহলে তিনি সেটা সহ্য করতে পারবেন না। বরং সমস্যা কোথায় হচ্ছে সেটা জিজ্ঞাসা করুন। যদি সঙ্গীর কোনও ভুল থাকে তাহলে ধীরে ধীরে সেটা তাঁকে বোঝান। খোলাখুলি কথা বলুন।

আপনি মাথা গরম করবেন না

অফিসের সব রাগই বেশিরভাগ মানুষ বাড়িতে নিয়ে চলে আসেন। তারপর পরিবারের সদস্যদের উপর সেই রাগের বদলা নেন। এ সময় যদি বুঝতে পারেন আপনার সঙ্গী খুব একটা ভালো সময়ের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছেন না, তাহলে পালটা তাঁর উপর রাগ দেখাবেন না। তিনি আপনার উপর চিৎকার করলেও আপনি মাথা গরম করবেন না। যতটা পারবেন মাথা ঠান্ডা রাখার চেষ্টা করবেন। সঙ্গীর রাগ কমানোর চেষ্টা করুন।

সঙ্গীর মন অন্যদিকে ঘোরানোর চেষ্টা করুন

সমস্যা হলেও, তা নিয়ে বার বার কথা বলবেন না। সেটা ঠিক না। বার বার একই সমস্যা নিয়ে কথা বলার ফলে অবচেতনে সেটা মাথায় চলেই আসে। এই ফলে সঙ্গীর শরীরে অনেকরকম সমস্যা দেখা দিতে পারে। তাই সঙ্গীকে অন্য মনস্ক করার চেষ্টা করুন। পারলে কোথাও ঘুরে আসতে পারেন। একসঙ্গে যতটা পারেন সময় কাটান। তেমন হলে সঙ্গীর পছন্দের রান্নাও করতে পারেন। তাঁকে যতটা পারবেন আনন্দ দিন। আপনার তরফে যেটুকু করা সম্ভব করুন। আসলে সঙ্গী যদি ভালো না থাকে তাহলে আপনিও ভালো থাকতে পারবেন না।

খুব ভালোবাসুন

ভালোবাসা হচ্ছে যে কোনও সমস্যার সমাধান। তাই যত কঠিন সময় আসুক না কেন, সঙ্গী আপনার উপর যত রাগই দেখান না কেন কোনও বিষয়কে গুরুত্ব দেবেন না। মন দিয়ে তাঁকে ভালোবেসে যান। এই সময় আপনি যতটা পারবেন সঙ্গীর সঙ্গে সময় কাটান। দেখবেন আপনার ভালোবাসা থেকে তিনি মনে অনেকটা জোর পাবেন। কঠিন সময়ের সঙ্গে লড়াই করার সাহস পাবেন। নিজের সবটুকু দিয়ে ভালোবাসুন। দেখবেন একটা সময়ের পর মেঘ সরে ঠিক রোদ উঠবে।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন