বৃহস্পতিবার, ১৩ ডিসেম্বর ২০১৮ ০৭:৫৩:২৫ পিএম

মাঠে থেকেই জনগনকে দেখাতে চাই তারা কিভাবে ভোট ডাকাতি করে

রাজনীতি | রংপুর | রবিবার, ১৭ ডিসেম্বর ২০১৭ | ০৬:০৩:১০ পিএম

রংপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচন পরিচালনা সংক্রান্ত বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির আহবায়ক ও বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান সুলতান মাহমুদ টুকু বলেছেন, আমাদের পোলিং এজেন্টদের হুমকি ধামকি দেয়া হচ্ছে। নৌকা ও লাঙ্গল প্রতীকের প্রার্থীর ক্ষেত্রে আচরণ বিধির কোন বালাই নেই। আমাদের প্রার্থীর প্রতি বৈষম্যমূলক আচরণ করা হচ্ছে। প্রচারণা করতে দেয়া হচ্ছে না। তবুও আমরা মাঠে থাকতে চাই। মাঠে থেকে দেখাতে চাই তারা কিভাবে ভোট ডাকাতি করে। উই ওয়ান্টু টু ফাইট পজেটিভ।

রোববার দুপুরে রংপুর মহানগরীর গ্রান্ড হোটেল মোড়ে বিএনপি কার্যালয়ে নির্বাচন পরিচালনা কমিটির সাংবাদিক সম্মেলনে তিনি এই অভিযোগ করেন। এসময় সেখানে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির উপদেষ্টা সাবেক হুইপ জয়নাল আবেদীন ফারুক, নির্বাচন পরিচালনা কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য সচিব সাংগঠনিক সম্পাদক আসাদুল হাবিব দুলু, কেন্দ্রীয় নির্বাহী সদস্য আমিনুল ইসলাম, আব্দুল খালেক, প্রার্থী কাওছার জামান বাবলা, মহানগর সভাপতি মোজাফফর হোসেন, সেক্রেটারী শহিদুল ইসলাম মিজু, জেলা সভাপতি সাইফুল ইসলাম, সেক্রেটারী রইচ আহম্মেদ, সাবেক এমপি মহিলা সভাপতি শাহিদার রহমান জোসনা, জাসাস নেত্রী রেজেকা সুলতানা ফেন্সি, জেলা স্বেচ্ছাসেবক দল আহবায়ক আব্দুস সালাম, যুবদল জেলা সভাপতি নাজমুল আলম নাজু, সেক্রেটারী সামসুল হক ঝন্টু, যুবদল মহানগর সভাপতি মাহফুজ উন নবী ডন, সেক্রেটারী লিটন পারভেজ, জেলা ছাত্রদল সভাপতি মনিুরজ্জামান হিজবুল, সেক্রেটারী শরীফ নেওয়াজ জোহা, মহানগর ছাত্রদল সভাপতি নুর হাসান সুমন, সেক্রেটারী জাকারিয়া জিম প্রমুখ।

টুকু অভিযোগ করে বলেন, নির্বাচণী আচরণবিধিতে খবু শক্ত করে বলা আছে কোন লাইটিং প্রতীক থাকবে না। কিন্তু এখানে ক্যান্টনমেন্টের সামনে নৌকা প্রতীক লাইটিং দিয়ে শো করা হয়েছে। এভাবে লাঙ্গলেরও করা হয়েছে। তারা রাত ১১ টা ১২ পর্যন্ত পথ সভা সমাবেশ করছে। আমাদেরতে রাত ৮ টার মধ্যেই থামিয়ে দেয়া হচ্ছে। আমরা যেখানে পথসভা করতে চাইছি। নৌকা প্রতীক সেখানে পথসভা করতে চাইছে। পরশুদিন আমার একটি পথ সভা ছিল সিগারেট কোম্পানীতে। কিন্তু আমরা দেখলাম আমাদের জায়গায় নৌকা প্রতীক পথ সভা করছে। আমরা কোন গোলমাল চাই না জন্যই অন্য জায়গায় পথসভা করছি। তারা মঞ্চ বানিয়ে মাইক দিয়ে সভা সমাবেশ করছে। আর আমাদের প্রার্থীর পক্ষে চেয়ারটেবিল বের করা হলেই ম্যাজিষ্ট্রেট হানা দিচ্ছে। জরিমানা করছে। এসব কারনে আমরা শংকিত। ভোটাররাও শংকিত।


টুকু অভিযোগ করে বলেন, আমাদের আমার পোলিং এজেন্টদের তালিকা প্রকাশ করতে পারছি না। পোলিং এজেন্টেদের তালিকা তৈরি হতে না হতেই আওয়ামীলীগের লোকজন তাদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে থ্রেট দিচ্ছে। মানুষ এখন তাদের কাছে ভয় জিম্মি, তারা ভয় পায়। কারণ এই সরকারের আমলে যত খুন হয়েছে, জেল হয়েছে, গুম হয়েছে, তাতে মানুষ আতংকিত। পোলিং এজেন্টরা ভয় পাচ্ছে যদি তাদের গুম করা হয়, যদি তাদের লাশটিও পাওয়া না যায়।

টুকু বলেন, মিডিয়ার মাধ্যমে আমরা প্রশাসন ও নির্বাচন কমিশনের প্রতি আহবান জানাই আপনারা নিরপেক্ষ আচরণ করুন। অন্তত ভোটের দিন একটি সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ পরিবেশ নিশ্চিত করুন। এটলিস্ট এই ইলেকশনটি আপনারা ফেয়ার করুন অতীতে যত নির্বাচন হয়েছে সব ভোট ডাকাতি করে নেয়া হয়েছে। সেটা সবার জানা। আমরা নির্বাচনে থাকতে চাই। মাঠে থাকতে চাই। মাঠে থেকে লড়তে চাই। মাঠ থেকে চলে গেলেতো তারা অন্য কথা বলবে। উই ওয়ান্ট টু ফাইট পজেটিভ।

তিনি বলেন, আমরা সকল বৈরিতা সত্বেও মাঠে থাকতে চাই, মাঠে থেকে আমরা জনগনকে দেখাতে চাই, তারা কিভাবে ভোট ডাকাতি করে।

আগামী ২১ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত হবে এই ভোট। এখানে মেয়র পদে ৭ জন, সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে ৬৫ জন এবং সাধারণ কাউন্সিলর পদে ২১১ জন প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন। ১৯৩ টি ভোট কেন্দ্রের ১ হাজার ১২২ টি বুথে সকাল ৮ টা থেকে বিকেল ৪ টা পর্যন্ত বিরতীহিনভাবে চলবে এই ভোট। এই নির্বাচনে বিএনপির প্রার্থী মহানগর সভাপতি কাওছার জামান বাবলা।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন