শুক্রবার, ১৪ ডিসেম্বর ২০১৮ ০৪:২৫:৩৬ এএম

বায়োস্কোপে ‘মাহমুত ও মারিয়া’

বিনোদন | বুধবার, ২০ ডিসেম্বর ২০১৭ | ০৪:০৬:১২ পিএম

কোনটি মানুষের কাছে বড়? ধর্ম নাকি ভালোবাসা? নাকি প্রেমই ধর্ম? কখনো কি ভালোবাসা পেরেছে ধর্মের বাইরে গিয়ে নতুন এক সাম্রাজ্য তৈরি করতে?

বিশাল সাম্রাজ্জ্যের অধিকারী সম্রাট জিয়াদ খান। সবই আছে তার, শুধু নেই বংশে কোনো আলো। সন্তানের তাড়নায় রানী কুমার বানু আশ্রয় নেন কালো জাদুর আর তার ফলে ঘর আলো করে আসে মাহমুত। অন্যদিকে প্রায় একই সময় খ্রিস্টান পাদ্রীর ঘরে জন্ম নেয় মারিয়াম। একইসময়ে বেড়ে উঠা, হঠাৎ পরিচয়, অতঃপর পরিণয়।

সম্রাট অনেক উদ্বিগ্ন ছিলেন তার ছেলে সাম্রাজ্য চালাতে পারবে কিনা। কিন্তু মাহমুতের কাছে ক্ষমতার চেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় ছিল মারিয়ামের প্রতি তার ভালোবাসা। মারিয়াম একজন খ্রিস্টান সন্ন্যাসীর মেয়ে হওয়ায় রাজপরিবার অনেক চিন্তায় পড়ে যায়। অন্যদিকে মারিয়ামের পিতা মাহমুতের ধর্মীয় পার্থক্যের কারণে মারিয়ামকে দূরে রাখতে চেষ্টা করেন। মাহমুতের পরিবার মারিয়ামকে সরিয়ে ফেলে মাহমুতকে সম্রাট হিসাবে অভিষেক করানোর কাজ চালিয়ে যায়। এরপর মাহমুত সিদ্ধান্ত নেয় সে নিজেই মারিয়ামকে খুঁজে বের করবে। বাড়ি থেকে বের হয়ে সে খুঁজতে থাকে তার ভালোবাসার মারিয়ামকে; বন জঙ্গল, মরুভূমি পেরিয়ে এক রাজ্য থেকে অন্য রাজ্যে।

মাহমুত কি খুঁজে পাবে তার ভালোবাসার মারিয়ামকে? পরিণতি পাবে কি তাদের নিষ্পাপ ভালোবাসা?

এই প্রশ্নগুলোর উত্তর যাদের এখনো জানা নেই, তাদের জন্য এক অজানা ভালোবাসার কথা বলতে, এসে গেছে ‘মাহমুত এবং মারিয়াম’!

আটটি এপিসোডে সাজানো জমজমাট এই সিরিজটি উপভোগ করতে পারবেন গ্রামীণফোনের Bioscope অ্যাপে অথবা www.bioscopelive.com ওয়েবসাইট থেকে।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন