সোমবার, ২২ জানুয়ারী ২০১৮ ০৪:৩১:২৪ পিএম

শুক্রবার বাড়ি যাচ্ছে মুক্তামনি

জাতীয় | বৃহস্পতিবার, ২১ ডিসেম্বর ২০১৭ | ০৬:৪৯:১৩ পিএম

বিরল ‘হেমানজিওমা’ রোগে আক্রান্ত শিশু মুক্তামনি শুক্রবার কয়েক সপ্তাহের জন্য বাড়ি যাচ্ছে। এজন্য তাকে আপাতত বাড়ি যাওয়ার ছাড়পত্র দেওয়া হয়েছে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতাল থেকে।

বৃহস্পতিবার (২১ ডিসেম্বর) বিকেলে ঢাকা কলেজ হাসপাতালের বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইউনিটের সমন্বয়ক ডা. সামন্ত লাল সেন সাংবাদিকদের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এদিকে, মুক্তামনির বাবা ইব্রাহীম হোসেন জানিয়েছেন, শুক্রবার যে কোনো সময় তারা বাড়ি যাওয়ার উদ্দেশে রওয়ানা হবেন।

ডা. সামন্ত লাল সেন জানিয়েছেন, মেডিকেল বোর্ডের সিদ্ধান্ত অনুয়ায়ী মুক্তামনিকে ছাড়পত্র দেওয়া হয়েছে। শুক্রবার সে তার পরিবারের সঙ্গে বাড়ি যাবে। তবে তার চিকিৎসা এখনো শেষ হয়নি।

তিনি বলেন, মুক্তামনিকে ফলোআপে রাখা হয়েছে। কয়েক সপ্তাহ পর তাকে ফের হাসপাতালে আসতে হবে। মুক্তামনি বাড়ি যাওয়ার জন্য অস্থির হয়েছে বলে আপাতত ছাড়পত্র দেওয়া হয়েছে।

সাতক্ষীরার সদর উপজেলার কামারবায়সা গ্রামের মুদি দোকানি ইব্রাহীম হোসেনের মেয়ে মুক্তা। জন্মের পরে দেড় বছর পর্যন্ত ভালোই ছিল সে। এরপর মুক্তার ডানহাতে ছোট ছোট মার্বেলের মতো গোটা দেখা দেয়। তারপর ক্রমশ তা বাড়তে থাকে। আক্রান্ত হাতটি তার দেহের সব অঙ্গের চেয়েও ভারী হয়ে ওঠে। যন্ত্রণায় মুক্তামনি সব সময় অস্থির হয়ে থাকতো।

টাকার অভাবে ছয় মাস চিকিৎসাবিহীন অবস্থায় মুক্তামনিকে বাড়িতে রেখে কেবল ড্রেসিং করা হয়। চলতি বছরের ১১ জুলাই তাকে ঢামেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

এরপর এ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটের প্রধান প্রফেসর আবুল ‍কালাম আজাদের নেতৃত্বে আট সদস্যের টিম মুক্তামনির চিকিৎসা শুরু করেন।

খবর পেয়ে মুক্তামনির চিকিৎসার দায়িত্ব নেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন