মঙ্গলবার, ১১ ডিসেম্বর ২০১৮ ০১:৪৩:২৭ এএম

টি-টোয়েন্টি? আমরা কেয়ার করি না: ভারতীয় কোচ

খেলাধুলা | মঙ্গলবার, ২৬ ডিসেম্বর ২০১৭ | ০৫:১৮:৫৪ পিএম

শ্রীলঙ্কাকে টি-টোয়েন্টি সিরিজে ধবলধোলাই করে নিজেদের ক্রিকেট ইতিহাসে সবচেয়ে সফল বছর তুলে নিয়েছে ভারত। তবে উৎসবের এ উপলক্ষকে প্রশ্নের মুখে ঠেলে দিয়েছেন স্বয়ং দলটির হেড কোচ রবি শাস্ত্রী। ক্রিকেটের সংক্ষিপ্ততম এ সংস্করণ নিয়ে ভারতীয় দলের ভাবনা-চিন্তা সমন্ধে শাস্ত্রীর মন্তব্য, ‘টি-টোয়েন্টি? আমরা কেয়ার করি না।’

ক্রিকেটের তিন ফরম্যাট মিলিয়ে এ বছর ৫৩ ম্যাচের মধ্যে ৩৭ জয় পেয়েছে ভারত। ২০০৩ সালে অস্ট্রেলিয়ার গড়া এক বছরে সর্বোচ্চ ৩৮ ম্যাচ জয়ের রেকর্ড ছুঁতে না পারলেও শাস্ত্রীর দল এ তালিকায় দ্বিতীয়। সেখানে এ বছর তাঁদের টি-টোয়েন্টিতে পারফরম্যান্সের অবদান মোটেও কম নয়। ২০১৭ সালে এ সংস্করণে ১৩ ম্যাচে ৯ জয় পেয়েছে ভারত। কিন্তু বাণিজ্যিকভাবে ক্রিকেটের সবচেয়ে লাভজনক এ সংস্করণ শাস্ত্রীর কাছে তরুণ প্রতিভাবান খেলোয়াড়দের পরীক্ষাস্থল ছাড়া আর কিছুই নয়!

শ্রীলঙ্কাকে তৃতীয় ম্যাচে হারানোর পর শাস্ত্রী বলেন, ‘টি-টোয়েন্টি? আমরা কেয়ার করি না। হার কিংবা জয়ে কোনো কিছু যায়-আসে না। তবে তরুণদের এখানে সুযোগ দিলে ২০১৯ সালে (বিশ্বকাপ) কারা থাকতে পারবে, সেটা বোঝা যাবে।’

ভারতীয় ক্রিকেটের সমর্থকেরা কিন্তু শাস্ত্রীর এ মন্তব্যকে মোটেও ভালোভাবে নিতে পারেনি। বিশেষ করে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ঝড় বয়ে গেছে। টুইটারে এক ভক্তের ক্ষোভ, ‘সে এ কথা কীভাবে বলতে পারে...টি-টোয়েন্টি কেয়ার করি না! এ ফরম্যাটে আমরা পাকিস্তানের পরই র‍্যাঙ্কিংয়ে দ্বিতীয় দল, আর সে বলছে কেয়ার করি না! তা, যদি কেয়ার না-ই করো, তাহলে হেড কোচের পদ ছেড়ে দিয়ে বয়সভিত্তিক দলের দায়িত্ব নাও। ভারতের জন্য সব সংস্করণই গুরুত্বপূর্ণ।’

আরেক ভক্তের দাবি, ‘টি-টোয়েন্টি কেয়ার করেন না? এই লোকটাকে (শাস্ত্রী) যত দ্রুত সম্ভব বের করে দাও।’ তবে শাস্ত্রীর পক্ষেও অবস্থান নিয়েছেন কিছু কিছু ভক্ত। একজনের টুইট, ‘সত্যি বলতে খুবই শক্তিশালী মন্তব্য, যা এল কোচের কাছ থেকে। টেস্ট এবং ওয়ানডেতে মনোযোগ দেওয়ার কথা বলেছেন। শুনে ভালো লাগল।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন