সোমবার, ১০ ডিসেম্বর ২০১৮ ০১:৪৫:২০ এএম

ছয় নারী ধর্ষণের কথা স্বীকার করলেন ছাত্রলীগ নেতা আরিফ

জেলার খবর | শরীয়তপুর | বুধবার, ২৭ ডিসেম্বর ২০১৭ | ০৭:৫৯:০১ পিএম

প্রতারণা ও ভয়ভীতির মাধ্যমে একাধিক নারীকে ধর্ষণ এবং ধর্ষণের ছবি ও ভিডিও ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেয়ার অভিযোগ স্বীকার করেছেন শরীয়তপুরের আলোচিত সেই ছাত্রলীগ নেতা আরিফ হাওলাদার। দোষ স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দিত দিয়েছেন তিনি।

বুধবার (২৭ ডিসেম্বর) বিকেলে অতিরিক্ত চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট শেখ মোহাম্মদ মুজাহিদুল ইসলামের আদালতে স্বীকোরক্তিমূলক জবানবন্দি দেন আরিফ।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ভেদরগঞ্জ থানার উপপরিদর্শক সজল পাল বলেন, ‘ধর্ষণ মামলার আসামি আরিফ হাওলাদারকে বুধবার আদালতে হাজির করা হয়। ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিতে রাজি হয় আরিফ। অতিরিক্ত চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট শেখ মোহাম্মদ মুজাহিদুল ইসলাম বেলা ৩টায় নিজ কক্ষে আরিফের জবানবন্দি নেয়া শুরু করেন। বিকেল ৫টায় জবানবন্দি গ্রহণ শেষ হয়। এ সময় আরিফ মামলার বাদী গৃহবধূকে ফাঁদে ফেলে ধর্ষণের কথাও স্বীকার করে।’

ভেদরগঞ্জ উপজেলার নারায়ণপুর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের বহিষ্কৃত সাধারণ সম্পাদক আরিফ হাওলাদারকে মঙ্গলবার (২৬ ডিসেম্বর) বিকেলে গোসাইরহাট থেকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। তার বিরুদ্ধে ফাঁদে ফেলে ছয় নারীকে ধর্ষণ এবং ধর্ষণের ভিডিও ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেয়ার অভিযোগ রয়েছে।

এদের মধ্যে ভুক্তভোগী এক গৃহবধূ গত ১১ নভেম্বর ছাত্রলীগ নেতা আরিফের বিরুদ্ধে ভেদরগঞ্জ থানায় ধর্ষণ মামলা করেন।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন