বুধবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮ ০৭:০২:১৫ পিএম

খালেদা জিয়ার দুই ছেলেই চোর: ড. আব্দুর রাজ্জাক এমপি

রাজনীতি | রবিবার, ৩১ ডিসেম্বর ২০১৭ | ১০:৪৯:৫৯ পিএম

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য, অর্থ মন্ত্রণালয় সংক্রান্ত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি ও সাবেক খাদ্যমন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাক এমপি বলেছেন, বিএনপি নেত্রী খালেদা জিয়ার মুখে বড় গলায় কথা বলা মানায় না। কারণ তার দুই ছেলে চোর এবং তিনি নিজেও ট্যাক্স ফাঁকির কারণে অভিযুক্ত হয়ে জরিমানা দিয়েছেন।

রবিবার (৩১ ডিসেম্বর) বিকেলে ময়মনসিংহ রেলওয়ে কৃষ্ণচুড়া চত্বরে বঙ্গবন্ধু পরিষদের আয়োজিত বিজয় পতাকা মিছিল পুর্ব সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

খালেদা জিয়ার দুই ছেলে তারেক ও কোকো সম্পর্কে তিনি বলেন, আমেরিকার গোয়েন্দা সংস্থা এফবিআইয়ের তদন্তে ধরা পড়েছে কোকো সিঙ্গাপুরে ৩৩ কোটি টাকা রেখেছেন। সেই টাকা সিঙ্গাপুর সরকার বাংলাদেশকে ফেরত দিয়েছে। এছাড়া তারেক সৌদি আরব, আমেরিকা সিঙ্গাপুরে টাকা টাকা রেখেছে। তার সাত বছর জেল হয়েছে। তিনি বাংলাদেশে এলে আইন শৃংখলা বাহিনী তাকে গ্রেফতার করবে। তার দুই ছেলেই চোর (টাকা চোর) তারই খালেদা জিয়া গলায় বড় বড় কথা মানায় না।

তিনি বলেন, বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া ২০০৭ সালের তত্ত্ববাধায়ক আমলে ট্যাক্স ফাঁকির কারণে জরিমানা দিয়েছেন। তার অর্থমন্ত্রী প্রয়াত সাইফুর রহমান নিজেও ট্যাক্স ফাঁকির জন্য জরিমানা দিয়েছেন।

গণফোরাম সভাপতি ডঃ কামাল হোসেনের সম্প্রতি ১৫৪ এমপি অবৈধ এ ধরণের এক বক্তব্যের জের ধরে ড. আব্দুর রাজ্জাক বলেন, প্রতিদ্বন্ধিতা না হলে বিনা প্রতিদ্বন্ধিতায় নির্বাচিত হওয়ার নজির আমেরিকা, ইংল্যান্ড ও বিলাতসহ বিশ্বের অনেক দেশেই হয়ে আসছে। তিনি নিজেও জীবনে মাত্র একবার বিনা ভোটে নির্বাচিত হয়ে এমপি হয়েছিলেন। গণফোরামের সভাপতি পদেও তো তিনি বিনা নির্বাচনে রয়েছেন।

তিনি বলেন, শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দিয়ে শেখ হাসিনা মানবতার মা হিসাবে সারা বিশ্বে বাংলাদেশকে অনেক উচুস্থানে নিয়ে গেছে। নিজউ উইক এর মত ম্যাগাজিন শেখ হাসিনার প্রশংসা করেছে।

আওয়ামী লীগের সর্বস্তরের নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে বলেন, যারা রাজাকার, আলবদর ও পাকিস্তানের দালালদের গাড়ীতে পতাকা তুলে দিয়েছে সেই সকল ষড়যন্ত্রকারীরা আবারো ষড়যন্ত্র শুরু করেছে। কথিত সুশীল সমাজের নেতৃত্ব স্থানীয়রা লালকুঠি নীলকুঠির ষড়যন্ত্র করছে। ষড়যন্ত্রের মাধ্যমেই তারা মতায় আসতে চায়। সেই সকল ষড়যন্ত্রকারীদের বিরুদ্ধে সজাগ থাকতে হবে। এ জন্য সকল ভেদাভেদ ভুলে ষড়যন্ত্র মোকাবেলা করে আরেকবার শেখ হাসিনার সরকার প্রতিষ্ঠা করতে হবে।

বঙ্গবন্ধু পরিষদের সভাপতি এবং জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট মোয়াজ্জেম হোসেন বাবুলের সভাপতিত্বে সমাবেশে কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সাংস্কৃতিক সম্পাদক অসিম কুমার উকিল, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট জহিরুল হক, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ইউসুফ খান পাঠান, ময়মনসিংহ পৌর মেয়র ইকরামূল হক টিটুস প্রমুখ বক্তব্য দেন। পরে বিশাল পতাকা মিছিল বের হয়ে সারা শহর প্রদক্ষিন করে টাউনহল মোড়ে গিয়ে শেষ হয়।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন