বুধবার, ১৯ ডিসেম্বর ২০১৮ ০৫:৫২:৪০ পিএম

আবারো অর্থের কাছে হেরে যাবে তরুণের স্বপ্ন?

বিনোদন | শনিবার, ১৩ জানুয়ারী ২০১৮ | ০৯:০৫:০৩ পিএম

তরুণ নির্মাতা রুবেল আনুশের স্বপ্ন এমন বাস্তবতার চিত্র চলচ্চিত্রের পর্দায় ফুটিয়ে তুলবেন। দর্শক দেখে বাহবা দিবেন। বাংলাদেশের সিনেমাও একদিন পৃথিবী শাসন করবে। ভাবনা অনুযায়ী ২০১৪ সালের আগস্ট মাসে ‘নিষিদ্ধ প্রেমের গল্প’ নামে একটি চলচ্চিত্র নির্মাণ শুরু করেন নির্মাতা রুবেল। কিন্তু মাঝ পথে এসে স্বপ্নের এ চলচ্চিত্র নির্মাণে বাঁধা হয়ে দাঁড়ায় অসাধু লোকের অনৈতিক লালসা ও অর্থ।

সিনেমাটি নির্মাণের শুরুতে রুবেল আনুশ একজন প্রযোজকের শরনাপন্ন হন। প্রযোজক সিনেমাটির প্রযোজনার সম্মতি দিলে শুটিং শুরু করেন তিনি। কিছুদিন যেতেই প্রযোজক অনৈতিক কার্যক্রমের প্রস্তাব দিলে রুবেল আনুশ আপত্তি জানায়। এতে প্রযোজক সিনেমাটি থেকে সরে দাঁড়ান। এরপর স্বপ্নের সিনেমাটি নিজেই প্রযোজনা শুরু করেন রুবেল। এক পর্যায়ে পৈতৃক সম্পত্তি বিক্রি করে শুটিং শুরু করেন এই নির্মাতা। কিন্তু তাতেও শেষ রক্ষা হয়নি।

এরই মধ্যে বাবা-মায়ের সঙ্গে রুবেল আনুশের সম্পর্ক নষ্ট হয়ে যায়। পরে সুদে টাকা ধার নিয়ে সিনেমাটির বাকি অংশের কাজ শেষ করেন বলে জানান রুবেল। তিনি আরো জানান, সিনেমাটি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি দিতে এখন ৫-৭ লাখ টাকা প্রয়োজন। এই টাকা যোগান দেয়ার সামর্থ্য তার নেই। এদিকে ঋণে জর্জরিত তিনি। একজন প্রযোজক সহায়তার হাত বাড়িয়ে দিলেই তার স্বপ্ন বাস্তবে রূপ নিবে। ফিরিয়ে দিতে পারবেন পাওনাদারদের অর্থও।

এ প্রসঙ্গে রুবেল আনুশ বলেন, ‘সিনেমাটি নিয়ে আমি খুবই সমস্যায় আছি। অনেক কষ্ট করে সিনেমাটির কাজ শেষ করেছি। বাবা-মা থেকে শুরু করে অনেকের সঙ্গে আমার সর্ম্পক নষ্ট হয়ে গেছে। কোথাও গিয়ে কথা বলার জায়গা পাচ্ছি না। সিনেমাটি প্রযোজনার জন্য কারো সঙ্গে কথা বললে অনেকেই কিছু অনৈতিক প্রস্তাব দেন। তাদের এসব চাহিদা আমার পক্ষে পূরণ করা সম্ভব না। কিছু টাকা হলেই সিনেমাটি মুক্তি দিতে পারব।’

এরই মধ্যে সিনেমাটির ‘জোছনারা ঘরে আসে’ শিরোনামে একটি গান ইউটিউবে প্রকাশিত হয়েছে। সিনেমাটির নাম পাল্টে রাখা হয়েছে ‘প্রেম কাহন’। সিনেমাটির বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত চিত্রনায়িকা সিমলা, ঘেটপুত্র খ্যাত মামুন, আবুল হায়াত, পুলক, বাপ্পী, লাবণী, সাদিয়া, আলিফ, মুসা, টুটুল চৌধুরী, আফরিন প্রমুখ। সম্প্রতি এ সিনেমার আইটেম গানে যোগ দেন বিপাশা কবির।

এর আগে তরুণ নির্মাতা রাসেল আহমেদ নির্মাণ করেছিলেন ‘নৃ’ নামে চলচ্চিত্র। ঋণ করে অনেক কষ্টে সিনেমাটির কাজ শেষ করেছিলেন তিনি। কিন্তু ভাগ্যের নির্মম পরিহাস সিনেমাটি মুক্তি দেওয়ার আগেই না ফেরার দেশে চলে যান স্বপ্নবাজ এ তরুণ নির্মাতা।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন