রবিবার, ২০ মে ২০১৮ ০৬:০০:০৬ পিএম

ফ্যামিলির পছন্দের ছেলেকেই বিয়ে করব

বিনোদন | সোমবার, ২২ জানুয়ারী ২০১৮ | ০২:৪৫:০২ পিএম

শোবিজ জগতের প্রিয়মুখ অভিনেত্রী ও মডেল সুজানা জাফর। নাটক, বিজ্ঞাপন আর মিউজিক ভিডিওতে রয়েছে তার সরব উপস্থিতি।
এই অভিনেত্রীর বিভিন্ন বিষয় নিয়ে থাকছে আলাপন—

কেমন আছেন?

আলহামদুলিল্লাহ, অনেক ভালো আছি।

দেশে এসেছেন কবে?

এইতো পাঁচ দিন হলো এসেছি। এই মাসটা পুরোটাই থাকব, তারপর আবার দুবাই। দুবাই শহরটা আমার অনেক পছন্দের। অনেক গোছানো শহর। এখানে কিন্তু আমাদের অনেক আত্মীয়স্বজন আছেন। তাই প্রায়ই যাওয়া হয়।

শুনলাম দুবাইয়ে ড্রাইভিং শিখছেন?

দুবাইয়ের আল কুয়োজ এলাকায় বিশ্ববিখ্যাত বেলহাসা ড্রাইভিং সেন্টারে গাড়ি চালানোর জন্য কোর্স করছি। আমাদের দেশের থেকেও এখানে ভালোভাবে ড্রাইভিং শেখানো হয়। আমার কাছে দুবাইয়ের স্থায়ী ভিসা রয়েছে। আর আমারও ইন্টারন্যাশনাল ড্রাইভিং লাইসেন্স পাওয়ার অনেকদিনের ইচ্ছে ছিল। সেজন্য আমি এখান থেকে ড্রাইভিং শিখতে পারছি। মজার ব্যাপার হচ্ছে এখানে বাম হাতে গাড়ি চালানো শেখানো হচ্ছে। দুবাইয়ে ড্রাইভিং শেখার আগে বেলহাসা ড্রাইভিং সেন্টারে থিওরি পরীক্ষা দিতে হয়, তারপর হাতেকলমে শেখানো হয় কীভাবে ড্রাইভিং করতে হয়। আমি কিন্তু থিওরি পরীক্ষাতে উত্তীর্ণ হয়েছি। ২৫০টি থিওরি প্রশ্ন ছিল। ড্রাইভিং লাইসেন্স পেতে হলে মোট ৪০টি ক্লাস করতে হবে। আমি ১০টি ক্লাস করেছি। তবে, ফিরে গিয়ে বাকি ক্লাসগুলো শেষ করব।

এখন কি কি কাজ নিয়ে ব্যস্ত?

মিডিয়ার কাজ নিয়ে তেমন ব্যস্ত নেই। কারণ এবার আমি কিছু পার্সোনাল কাজ নিয়ে দেশে এসেছি। আমার ফ্যামিলিকে সময় দিচ্ছি। কাজ করার কথা হয় কিন্তু মনের মতো হয় না। আবার কেউ নক করলে আমার সময়ের সঙ্গে মেলে না। আমার করে যাওয়া সিরিয়াল ‘লাইফ ইন অ্যা মেট্রো’র বাকি কাজ নিয়ে কথা হচ্ছে। ডেট মিলে গেলে করব। কিছুদিন আগে আমি, মৌসুমী হামিদ ও নাজিয়া হক অর্ষা একসঙ্গে জহির করিমের লেখা এবং বিইউ শুভর পরিচালনায় ‘জল নূপুর’ নাটকে অভিনয় করেছিলাম।

আপনি নাকি ভালো রান্না করতে পারেন?

বিশ্বাস করবেন না, আমি রান্নায় বেশি সময় ব্যয় করি! কারণ আমি আমার ফ্যামিলির জন্য সময়টা বেশি দিতে চাই। মিডিয়ার কাজ ছাড়া রান্নার পেছনে আমার বেশি সময় দেওয়া হয়। এমনিতেই রান্না করতে আর খাওয়াতে আমি বেশি ভালোবাসি; তাই দেশের বাইরে গেলে ব্যাগে করে দেশি পিয়াজ, মরিচ, আদাসহ বিভিন্ন মসলা নিয়ে যাই। কারণ দেশি মসলার স্বাদ আলাদা, টেস্টও বেশি।

তাহলে দুবাইয়ে একটা রেস্টুরেন্ট তো দিতেই পারেন...

প্লান আছে। আমি আর আমার কাজিনরা দুবাইতে একটা বিজনেস করার জন্য পরিকল্পনা করছি। তবে সেটা রেস্টুরেন্টও হতে পারে আবার বিউটি পার্লারও হতে পারে।

ছোটবেলায় নাকি বাঁ হাতে লেখালেখি করতেন?

ছোটবেলায় আমি বাঁ হাতে লিখতাম। স্যাররা এটা একদম পছন্দ করতেন না। অনেক বেশি বকা খেয়েছি এজন্য মারও খেয়েছি। তাই একপর্যায়ে শুধু ডান হাতে লেখার চেষ্টা করতাম। আবার স্যার যখন আমাদের পড়িয়ে চলে যেতেন, তখন বাঁ হাতেই লিখতাম আমি। এভাবে ক্লাস নাইন পর্যন্ত কখনো ডান, আবার কখনো বাঁ হাতে লিখেছি।

প্রতিবন্ধী ও এতিমদের নিয়েও তো কাজ করছেন...

অভিনয়ের বাইরে আমার আরেকটি জগৎ প্রতিবন্ধী ও এতিমদের নিয়ে কাজ করা। মানবতার ডাকেই আমি সমাজের দুস্থদের পাশে দাঁড়াই। এতিম শিশুদের সঙ্গে সময় কাটিতে ভালো লাগে আমার। তাদের সঙ্গে আড্ডা দিতে ভালো লাগে। তারা আমাকে খুব ভালোবাসে। আমিও সবসময় মিস করি তাদের।

সামনে সুজানাকে কি ফিল্মে দেখতে পাব?

মুভির অফার আসে আমার সবচেয়ে বেশি। তবে আমার পছন্দ নাটক, বিজ্ঞাপন আর মিউজিক ভিডিওতে কাজ করা। আর সুজানাকে সবাই চিনেছে কিন্তু মডেলিং আর বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে। তাই ভালো বিজ্ঞাপন আর মিউজিক ভিডিও হলে আমি কখনো ছাড়ি না।

তো বিয়ে করছেন কবে?

শিগগিরই করব। তবে হুটহাট করে নয়। ফ্যামিলির পছন্দের ছেলেকেই বিয়ে করব।

সূত্র : বাংলাদেশ প্রতিদিন

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন