মঙ্গলবার, ২২ মে ২০১৮ ১০:৩৪:৩৯ এএম

বউয়ের কাছে যেতে চাইল কয়েদি, উত্তরে যা বলল আদালত‌

আন্তর্জাতিক | শুক্রবার, ২৬ জানুয়ারী ২০১৮ | ০৩:০৬:৪৬ পিএম

স্ত্রীর সন্তান ধারণের জন্য যাবজ্জীবন কারাদণ্ডপ্রাপ্ত এক আসামির দু’‌সপ্তাহের ছুটি মঞ্জুর করেছে মাদ্রাজ হাইকোর্ট। আদালত বলেছে, ওই কয়েদির স্ত্রীর সন্তানের কামনা তাঁর প্রাপ্য অধিকার। তা তাঁকে দিতে বাধ্য প্রশাসন। গত ১৮ বছর ধরে জেলে রয়েছেন ৪০ বছর বয়স্ক ওই কয়েদি।

ভারতীয় গণমাধ্যম আজকাল’র ওই প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, তাঁর ৩২ বছরের স্ত্রী সন্তান ধারণের জন্য স্বামীর ছুটি চেয়ে আবেদন করেছিলেন। কিন্তু তামিলনাড়ু সরকার তাঁকে প্যারোল দেয়নি। এরপরই হাইকোর্টে আবেদন করেন ওই বধূ। রাজ্য সরকারের দাবি নাকচ করে বিচারপতি এস বিমলাদেবী এবং টি কৃষ্ণবল্লী বলেন, প্রয়োজন হলে সাদা পোশাকের পুলিসকর্মী ওই আসামির নিরাপত্তায় সর্বক্ষণ মোতায়েন করুক সরকার।

প্রাথমিক তদন্তে জানা গিয়েছে, ওই কয়েদির সন্তান হওয়া সম্ভব। কিন্তু সেজন্য তাঁর কিছু শারীরিক পরীক্ষা প্রয়োজন। সেজন্য ওই ছুটি কয়েদিকে দিতেই হবে। একইসঙ্গে মাদ্রাজ হাইকোর্ট মনে করিয়ে দিয়েছে, কেন্দ্র অনেক আগেই জেলের ভিতর দাম্পত্য মিলনের প্রস্তাব পাস করেছে। এটা তাদের দেওয়া কোনও সুবিধা নয়, তাদের প্রাপ্য অধিকার। হাইকোর্টের আরও মত, যদি কোনও কয়েদীই সাংসারিক বন্ধনে জড়ায় তাহলে তার মধ্যে থেকে অপরাধ প্রবণতা কমারও সম্ভাবনা থাকে। হাইকোর্টের এই নির্দেশের পর খুশি ওই কয়েদির পরিবার। আপাতত দু’‌সপ্তাহের ছুটি মঞ্জুর হলেও প্রয়োজনে আরও দু’‌সপ্তাহ ছুটি পেতে পারেন ওই কয়েদি।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন