বুধবার, ১৭ অক্টোবর ২০১৮ ০৭:১৫:১২ এএম

সমর্থকরা আসেন সাপোর্ট করতে, ভুল ধরতে নয়: মাশরাফি

খেলাধুলা | শুক্রবার, ২৬ জানুয়ারী ২০১৮ | ০৬:২৬:৪৩ পিএম

একে তো ঘরের মাঠ, তারওপর শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে খেলা। তাই তো দর্শকদের আগ্রহের কমতি ছিলো না বৃহস্পতিবারের ম্যাচটি নিয়ে। শের-ই বাংলা এদিনও ছিলো দর্শকে পরিপূর্ণ। তবে প্রত্যাশার কিছুই পূরণ হয়নি।

লঙ্কানদের বিপক্ষে নাস্তানাবুদ হয়ে মাঠ ছেড়েছে মাশরাফিবাহিনী। আর একরাশ হতাশা নিয়ে স্টেডিয়াম ছেড়েছে টাইগার সমর্থকরা।

শনিবারের ফাইনালটাও ওই শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে। প্রথম বরের মতো ত্রিদেশীয় সিরিজে চ্যাম্পিয়ন হবার হাতছানি সাকিব-তামিমদের সামনে। তাই এ ম্যাচের জন্যও রোমাঞ্চ নিয়ে অপেক্ষায় লাখো-কোটি টাইগার সমর্থক। আর ম্যাচ উপভোগ করতে এদিনও যে শের-ই বাংলা কানায় কানায় পূর্ণ থাকবে সেটা আর বলার অপেক্ষা রাখে না।

একদিকে ফাইনাল ম্যাচ অন্যদিকে সমর্থকদের প্রত্যাশার চাপ, কতটা ভারী হতে পারে বাংলাদেশ দলের জন্য? টাইগার দলপতি মাশরাফি বিন মোর্ত্তজা এই চাপকে অবশ্য ক্ষতিকর হিসেবে নিতে নারাজ।

'না, সাপোর্টাররা তো সবসময় আসবেন। গত দুই তিন বছর যদি দেখেন, এরমধ্যেও অনেক বড় বড় দলের বিপক্ষে খেলেছি। তখনও যে প্রত্যাশা ছিলো না, তা কিন্তু নয়। তখনও ছিলো এবং আমরা সেটা নিয়েই ভালো খেলেছি। উনারা সাপোর্ট করেছেন, আমরাও সেটা উপভোগ করেছি এবং ভালো খেলেছি। এটা প্রেসারের কোনো জায়গা নয়।' ক্যাপ্টেন ম্যাশের মতে, দর্শকের কারণ দেখানোটা অজুহাত ছাড়া আর কিছুই নয়।

'যখন আপনি ম্যাচ হারবেন তখন যতোই কারণ দেখান সেটা ওই এক্সকিউজের পর্যায়েই পড়ে। তাই এটা নিয়ে নেতিবাচক চিন্তার কিছু দেখছি না। সাপোর্টাররা আসবেন আমাদের সাপোর্ট করতে এবং সেটা আমাদের জন্য ইতিবাচকই। এমন নয় যে উনারা আমাদের ভুল ধরার জন্য আসছেন। উনারা আমাদের সাপোর্ট করার জন্য আসবেন। আমরা যেনো সেটাকে ইতিবাচকভাবে নিতে পারি এবং মাঠে সেটার সুব্যবহার করতে পারি।'

হোম অ্যাডভানটেজ কাজে লাগিয়ে এবং সামর্থ্যের সেরাটা দিয়ে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার সংকল্পও ব্যক্ত করেন মাশরাফি। শনিবার দুপুর ১২টায় ফাইনালে মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কা।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন