বুধবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮ ০৫:৩০:২৭ এএম

খালেদা বেকসুর খালাস পাবেন

রাজনীতি | রবিবার, ২৮ জানুয়ারী ২০১৮ | ০৫:০৯:৪০ পিএম

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন আশা প্রকাশ করে বলেছেন, মামলায় যদি ন্যায়ভিত্তিক, সুবিচার, সাক্ষ্য-প্রমাণের ভিত্তিতে রায় দেওয়া হয়, তাহলে তিনি (খালেদা জিয়া) বেকসুর খালাস পাবেন।

তিনি বলেন, আর যদি অন্যায়ভাবে সাজা দিয়ে জেলে দেওয়া হয়, তাহলে শুরু হবে সরকার পতনের আন্দোলন। সেই আন্দোলনের মাধ্যমে সরকারের পতন নিশ্চিত করে নির্বাচনকালীন সরকার প্রতিষ্ঠা করে খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে জনগণের সরকার গঠন করা হবে। শুধু তাই নয়, মিথ্যা ও বানোয়াট মামলায় খালেদা জিয়াকে জেলে পাঠানো হলে আমরা দলের সিনিয়র নেতারা স্বেচ্ছায় জেলে যেতে প্রস্তুত।

রোববার (২৮ জানুয়ারি) দুপুরে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির স্বাধীনতা হলে এক প্রতিবাদ সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ সব কথা বলেন।

বিএনপি ও খালেদা জিয়াকে আগামী একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন থেকে বাইরে রাখার ষড়যন্ত্র হচ্ছে বলেও মন্তব্য করেন খন্দকার মোশাররফ হোসেন।

তিনি বলেন, মিথ্যা, বানোয়াট, ভিত্তিহীন মামলার মাধ্যমে বিএনপিকে বিভক্তি করা দূরের কথা, দুর্বল করাও করা যাবে না। বিএনপি অত্যন্ত শক্তিশালী ও ঐক্যবদ্ধ। চুল পরিমাণ ফাঁক নেই যেখানে সরকারের ষড়যন্ত্রের রেখা পৌঁছাতে পারে।

জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল কাদির ভূঁইয়া জুয়েল ও সাংগঠনিক সম্পাদক ইয়াসিন আলীর মুক্তির দাবিতে এ প্রতিবাদ সভার আয়োজন করে স্বেচ্ছাসেবক দল ঢাকা মহানগর উত্তর।

বিএনপির এই নেতা বলেন, খালেদা জিয়াকে নির্বাচনের বাইরে রেখে আবার একটি প্রহসনের নির্বাচন করতে মরিয়া হয়ে উঠেছে সরকার। ফলে, খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে মামলা অস্বাভাবিক গতিতে পরিচালনা হয়েছে। তড়িঘড়ি রায়ের দিন ঘোষণা হয়েছে, যা কখনো আইনি কর্মকাণ্ড হতে পারে না। আমরা মনে করি, এটা রাজনৈতিক উদ্দেশ্য প্রণোদিত কর্মকাণ্ড।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন