শনিবার, ১৮ আগস্ট ২০১৮ ১২:০৩:৫৫ পিএম

নির্বাচনের আনুষ্ঠানিক প্রচার শুরু শেখ হাসিনার, জেলের পথে খালেদা জিয়া

রাজনীতি | মঙ্গলবার, ৩০ জানুয়ারী ২০১৮ | ০৭:১৩:৫১ পিএম

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আনুষ্ঠানিক নির্বাচনী প্রচারণায় নামলেও তার প্রধান প্রতিপক্ষ বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার সময় কাটচ্ছে আদালতের বারান্দায়। ভোটের লড়াই শুরু হওয়ার আগে খালেদা জিয়ার মামলা নিয়ে ব্যস্ত থাকার ঘটনাকে স্বাভাবিকভাবে দেখছেন না রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা। তাদের মতে, নির্বাচনের পূর্বে খালেদা জিয়াকে মামলা-মোকদমায় ব্যস্ত রাখা হয়ত সরকারের কৌশল হবে। তাদের উদ্দেশ্য বিএনপিকে অপ্রস্তুত রেখে নির্বাচনে যাওয়া। আপাতত দৃষ্টিতে সরকারের সেই চিন্তার ইতিবাচক প্রতিফলন ঘটছে। এখন দেখার পালা বিএনপি সেই অবস্থা কিভাবে কাটিয়ে উঠে নির্বাচনী প্রস্তুতি নেয়।

এদিকে নির্বাচনী আনুষ্ঠানিক প্রচারে নেমেছেন আওয়ামী লীগ সভানেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ভোটের ময়দানে প্রাক নির্বাচনী প্রচারণায় আজ সিলেটে জনসভা করছেন। সিলেটে তিন আউলিয়ার মাজার জিয়ারতের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী তার নির্বাচনী প্রচারণার কাজ শুরু করেছেন। এরপর তিনি সিলেট আলিয়া মাদ্রাসা মাঠে বিশাল জনসভায় ভাষণ দেন। পর্যায়ক্রমে তিনি বরিশালসহ দেশের সব বিভাগীয় শহরে জনসভা করবেন। আওয়ামী লীগের একাধিক সূত্র একথা নিশ্চিত করেছেন।

অন্যদিকে বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার সময় কাটচ্ছে আদালতের বারান্দায়। নিয়মিত তাকে আদালতে হাজিরা দিতে হচ্ছে। জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় হাজিরা দিতে আজো বেগম খালেদা জিয়া ঢাকার বকশী বাজারে স্থাপিত বিশেষ জজ আদালতে উপস্থিত হয়েছেন। আগামী ৮ ফেব্রুয়ারি জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলার রায় ঘোষণা হওয়ার কথা রয়েছে। আর এই মামলার রায় নিয়ে বিএনপি রয়েছে টেনশনে। রায়ে কি হবে? তা নিয়ে সারাদেশেই এখন নানা পর্যালোচনা চলছে।

৮ ফেব্রুয়ারি ডেড লাইন নিয়েও ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ ও বিএনপি মুখোমুখি অবস্থানে। বিএনপি বলছে, অন্যায়ভাবে খালেদা জিয়ার সাজা দেয়া হলে সরকার পতনের আন্দোলন শুরু হবে। আর ক্ষমতাসীন আ্ওয়ামী লীগের ভাষ্য আইন তার নিজস্ব গতিতে চলছে। রায় ঘিরে কোনো ধরনের বিশৃংঙ্খলা তারা সহ্য করবেন না। এই অবস্থার মধ্যে আগামী ৮ ফেব্রুয়ারি কি ঘটবে তা নিয়েও মানুষের উৎকণ্ঠা রয়েছে।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন