রবিবার, ২৪ জুন ২০১৮ ১০:৫৯:৩১ এএম

মালয়েশিয়ার পুলিশের চিঠিসহ প্রমাণ দিলেন পরিচালক অনন্য মামুন

বিনোদন | বুধবার, ৩১ জানুয়ারী ২০১৮ | ০১:৪৩:৫১ পিএম

সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে মানবপাচারের অভিযোগে গত বছরের ২৪শে ডিসেম্বর মালয়েশিয়ার পুলিশের হাতে গ্রেফতার হন চিত্রপরিচালক অনন্য মামুন। এরপর থেকে অনন্য মামুনকে ঘিরে শুরু হয় নানান কথা। বিশেষ করে তাকে এই ঘৃণিত কাজের কথা ভেবে বাংলাদেশ পরিচালক সমিতিও নিষিদ্ধ করে।

সেসময় মালয়েশিয়ার গণমাধ্যমের বরাত দিয়ে সংবাদ প্রকাশিত হয়, তার বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। কিন্তু ১৩ই জানুয়ারি দেশে ফিরে মামুন দাবি করেন তার বিরুদ্ধে কোনো মামলা হয়নি। অবশেষে গত মঙ্গলবার সন্ধ্যায় মামুন ‘মালয়েশীয় পুলিশের’ একটি চিঠি দেখান।

যেখানে মালয়েশিয়ার পুলিশ বলছে, মামুন ও অন্যদের তারা সন্দেহভাজন হিসেবে ধরেছিল। কিন্তু পরে তদন্তে অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় তাদের নিজ নিজ দেশে ফিরে যেতে অনুমতি দেয়া হয়েছে এবং তাদের বিরুদ্ধে আরো কোনো অ্যাকশন নেয়া হবে না।

চিঠিতে বলা হয়, অনন্য মামুনসহ অন্যদের ‘মানবপাচার ও অভিবাসী চোরাচালান আইন-২০০৭’র ২৬নং ধারা অনুযায়ী গ্রেপ্তার করা হয়েছিল। মালয়েশীয় পুলিশের স্পেশাল বাঞ্চ বুকিট আমান পুলিশ তাদের গ্রেপ্তার করেছিল। চিঠির নিচে কুয়ালামপুরের ডাঙ্গ উয়াঙ্গি পুলিশ স্টেশনের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শাহরুদ্দিন বিন আবদুল্লাহর স্বাক্ষর রয়েছে। মামুন মানবজমিনকে বলেন, ষড়যন্ত্রের শিকার আমি। সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান করতে গিয়ে তাদের চাঁদা না দেয়ায় তারা মিথ্যা অভিযোগে আমাদের ফাঁসাতে চেয়েছিল। মালয়েশিয়ার পুলিশ সম্প্রতি আমাকে এ চিঠি দিয়েছে। না হলে তারা সাধারণত এ ধরনের কোনো কাগজ দেয় না কাউকে। এছাড়া এদেশের লাইভ টেকনোলজিসের মতো নামি প্রতিষ্ঠানটির সুনাম নষ্ট করতে ষড়যন্ত্র করা হয়েছে বলেও জানান অনন্য মামুন। এজন্য সামনে একটি সংবাদ সম্মেলন করবেন বলেও জানান এই চিত্র পরিচালক। উল্লেখ্য, গত ২৩শে ডিসেম্বর কুয়ালালামপুরের উইজমা এমসিএ সেন্টারে ‘সিনেমাটিক বাংলাদেশি নাইটস’ শীর্ষক সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান আয়োজন করেন অনন্য মামুন।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন