বৃহস্পতিবার, ১৯ এপ্রিল ২০১৮ ০৭:৫৪:৩৮ পিএম

মালদ্বীপে জরুরি অবস্থা জারি

আন্তর্জাতিক | সোমবার, ৫ ফেব্রুয়ারী ২০১৮ | ১০:৫৩:৩৯ পিএম

মালদ্বীপে সুপ্রিম কোর্টের সঙ্গে মুখোমুখি অবস্থানের জেরে চলমান উত্তেজনার মাঝে জরুরি অবস্থা জারি করেছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট আব্দুল্লা ইয়ামিন। আগামী ১৫ দিনের জন্য এ জরুরি অবস্থা ঘোষণা করা হয়েছে। সোমবার দেশটির জাতীয় দৈনিক সানের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে।

সোমবার রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে জাতির উদ্দেশ্যে দেয়া ভাষণে প্রেসিডেন্টের সহযোগী ও আইনবিষয়ক মন্ত্রী আজিমা সাকুর জরুরি অবস্থা জারির ঘোষণা দিয়ে বলেন, সরকার বিশ্বাস করে না যে, রাজবন্দিদের মুক্তি দিতে সুপ্রিম কোর্টের আদেশ বাস্তবায়ন করতে হবে।

এর আগে আব্দুল্লা ইয়ামিন বলেন, মালদ্বীপের ইতিহাসে পাঁচ বছরের মেয়াদে কোনো প্রেসিডেন্ট এ ধরনের সঙ্কটের মধ্যে পড়েননি।

স্থানীয় সংবাদমাধ্যম বলছে, জরুরি অবস্থা জারি করায় সন্দেহভাজন ও বিরোধীদের গ্রেপ্তারে নিরাপত্তা বাহিনী অতিরিক্ত ক্ষমতা প্রয়োগ করতে পারবে।

ইতোমধ্যে পার্লামেন্টের অধিবেশন স্থগিত করেছেন প্রেসিডেন্ট আব্দুল্লা ইয়ামিন। একই সঙ্গে প্রেসিডেন্টকে অভিশংসনে সুপ্রিম কোর্টের যেকোনো ধরনের পদক্ষেপ ঠেকানোতে সেনাবাহিনীকে নির্দেশ দিয়েছে দেশটির ক্ষমতাসীন সরকার।

সোমবার স্থানীয় সময় সন্ধ্যার দিকে মালদ্বীপের সুপ্রিম কোর্টের সামনে দেশটির সাবেক প্রেসিডেন্ট মামুন আব্দুল গাইয়ুমকে গ্রেফতারের দাবিতে বিক্ষোভ করেছেন সরকার দলীয় সমর্থকরা। ভারী বৃষ্টি উপেক্ষা করে বিক্ষোভ করেন তারা।

পরে ওই এলাকায় মালদ্বীপ পুলিশের স্পেশাল অপারেশন কর্মকর্তাদের মোতায়েন করা হয়।

গত বৃহস্পতিবার মালদ্বীপের সর্বোচ্চ আদালত সাবেক প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ নাশিদসহ বিরোধীদলীয় ৯ জন নেতাকে মুক্তির আদেশ দেন। এই সংসদ সদস্যরা মুক্তি পেলে সংসদে সংখ্যাগরিষ্ঠ হবে বিরোধী দল। আদেশ বাস্তবায়ন না করায় প্রেসিডেন্ট ইয়ামিনের সঙ্গে সুপ্রিম কোর্টের মুখোমুখি সংঘাত দেখা দেয়।

মোহাম্মদ নাশিদের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত সন্ত্রাসবাদের মামলাকে ভিত্তিহীন বলে ঐতিহাসিক রায় দেন সুপ্রিম কোর্ট। রোববার দেশটির অ্যাটর্নি জেনারেল মোহাম্মদ অনিল প্রেসিডেন্টকে ক্ষমতা থেকে বিতাড়িত করতে সুপ্রিম কোর্ট চেষ্টা করছে বলে অভিযোগ করার পর মালদ্বীপে সঙ্কট মারাত্মক আকার ধারণ করে।

তার ওই অভিযোগের পর ওইদিন সকালেসেনাবাহিনীর সদস্যরা রাজধানী মালেতে অবস্থিত পার্লামেন্ট ভবন সিলগালা করার পর দখলে নেয়। দেশের শীর্ষ আদালতের সঙ্গে প্রেসিডেন্টের চলমান উত্তেজনার অবসানের লক্ষ্যে সোমবার মালদ্বীপের বিরোধীদলীয় নেতারা এক চিঠিতে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের কাছে সহায়তা চেয়েছেন।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন