রবিবার, ২২ জুলাই ২০১৮ ০৭:০২:১৬ এএম

মেয়রের হুমকি: ঠাকুরগাঁওয়ে সাংবাদিকদের ‘কলম বিরতি’ চলছে

এস. এম. মনিরুজ্জামান মিলন | জেলার খবর | ঠাকুরগাঁও | মঙ্গলবার, ৬ ফেব্রুয়ারী ২০১৮ | ০১:৪০:৪১ পিএম

ঠাকুরগাঁও জেলার রাণীশংকৈল উপজেলাস্থ রাণীশংকৈল পৌরসভার মেয়র আলমগীর সরকার দৈনিক প্রতিদিনের সংবাদের রাণীশংকৈল উপজেলা প্রতিনিধি সাংবাদিক খুরশিদ আলম শাওনকে সংবাদ প্রকাশের জেরে 'কেটে ফেলার' হুমকি দেওয়ায় স্থানীয় সাংবাদিকরা ‘কলম বিরতি’ কর্মসূচি পালনের ঘোষণা দেওয়ার পর আজ তাদের এই কর্মসূচি চলছে।

গতকাল সোমবার বিকেলে রাণীশংকৈল প্রেসক্লাব হলরুমে জরুরী সভা শেষে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন রাণীশংকৈল প্রেসক্লাবের সভাপতি মোবারক আলী।

সভাপতি মোবারক আলী জানান, জাইকার রাস্তা সংস্কারে অনিয়ম ও দুর্নীতির সংবাদ প্রকাশ করায় গত বৃহস্পতিবার বিকেলে রাণীশংকৈল পৌরসভার মেয়র আলমগীর সরকার মুঠোফোনে সাংবাদিক খুরশিদ আলম শাওনকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে। শুধু তাই নয়, মেয়র আলমগীর সাংবাদিক শাওনকে কেটে ফেলার হুমকি দিয়েছেন।

এরই প্রেক্ষিতে সর্বসম্মতিক্রমে মঙ্গলবার (৬ ফেব্রুয়ারি) রাণীশংকৈল উপজেলার সাংবাদিকরা কমল বিরতী পালনের ঘোষণা দেন। এরপরও যদি পৌর মেয়রের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা না নেওয়া হলে পরবর্তী জেলা ও উপজেলার সাংবাদিকদের নিয়ে কঠোর কর্মসুচি দেওয়া হবে বলে হুঁশিয়ারী উচ্চারণ করেন সাংবাদিক নেতারা।

গত বৃহস্পতিবার রাতে দৈনিক প্রতিদিনের সংবাদের রাণীশংকৈল উপজেলা প্রতিনিধি খুরশিদ আলম শাওন নিজের নিরাপত্তা চেয়ে রাণীশংকৈল থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেছেন।

এর আগে শুক্রবার (২ ফেব্রুয়ারি) রাণীশংকৈল পৌরসভা চত্বরে কয়েকজন কাউন্সিলরের সামনে মেয়র আলমগীর সরকার সাংবাদিকদের নেশাখোর বলে মন্তব্য করেন। এছাড়া জাইকার কাজে অনিয়ম ও দুর্নীতির বিষয়টি ধামাচাপা দিতে গত রবিবার (৪ ফেব্রুয়ারি) রাণীশংকৈল উপজেলা পরিষদ চত্বরে মেয়র আলমগীর বলেছিলেন, তিনি এক দিনে ২১ হাজার সাংবাদিক তৈরি করতে পারেন।

উল্লেখ্য, গত ২৮ জানুয়ারি প্রতিদিনের সংবাদ পত্রিকায় ‘বদলি ঠিকাদার ও নিম্নমানের ইট দিয়ে চলছে রানীশংকৈলে জাইকার কাজ’ শিরোনামে একটি সংবাদ প্রকাশ হয়।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন