মঙ্গলবার, ২২ মে ২০১৮ ০৬:২৩:১৫ এএম

রাবি কলেজের অধ্যক্ষকে মারধর; শিক্ষার্থী হাজতে

মো. নুরুজ্জামান খান | শিক্ষাঙ্গন | বুধবার, ৭ ফেব্রুয়ারী ২০১৮ | ১২:২৪:৩২ পিএম

বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা থেকে বাদ পড়ে যাওয়ায় রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় (রাবি) স্কুল অ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক মো. শফিউল ইসলামকে মারধর করেছে স্কুলের দশম শ্রেণীর এক শিক্ষার্থী। সোমবার রাতে অধ্যক্ষের কার্যালয়ে গিয়ে তাকে অতর্কিত মারধর করা হয় বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

অভিযুক্ত শিক্ষার্থী এহসানুল আলম জয় রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের দর্শন বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক মো. জাহাঙ্গীর আলমের ছেলে। এর আগেও তার বিরুদ্ধে শিক্ষকদের হুমকি দেয়ার অভিযোগ রয়েছে। তবে তার বাবা এবং রাবির প্রক্টর জানিয়েছেন, এহসানুল মানসিক সমস্যায় রয়েছেন। ফলে প্রায়ই অস্বাভাবিক আচরণ করেন।

ভুক্তভোগী অধ্যক্ষ মো. শফিউল ইসলাম অভিযোগ করেন, সোমবার রাতে তিনি নিজ কার্যালয়ে বসে স্কুলের বিভিন্ন দাপ্তরিক কাজ করছিলেন। এসময় এহসানুল সেখানে গিয়ে এলোমেলো কথা বলতে শুরু করে। একপর্যায়ে সে অধ্যক্ষের ঘাড়ে ও চোখে আঘাত করে। পরে তাকে স্কুলের একটি কক্ষে আবদ্ধ করে রাখা হয়। এসময় তারা বেশ কয়েকজন সহপাঠী তাকে উদ্ধার করতে আসে এবং হুমকিÑধামকি দিতে থাকে। বিশ্ববিদ্যালয় প্রক্টরকে বিষয়টি জানালে একজন সহকারী প্রক্টর ঘটনাস্থলে এসে তাকে পুলিশে সোপর্দ করে।

রাবি প্রক্টর অধ্যাপক ড. লুৎফর রহমান বলেন, ‘ওই ছেলেকে পুলিশে সোপর্দ করা হয়েছে। পুলিশ তার বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।’

নগরীর মতিহার থানার ওসি মেহেদী হাসান বলেন, ‘অধ্যক্ষকে মারধরের ঘটনায় ওই ছাত্রের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। পরে তাকে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।’

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন