শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০১৮ ০১:৫৪:২৪ পিএম

আট বছরেও বিচার পায়নি ফারুকের পরিবার

মো. নুরুজ্জামান খান | শিক্ষাঙ্গন | রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় | বৃহস্পতিবার, ৮ ফেব্রুয়ারী ২০১৮ | ০৮:৩০:০৭ পিএম

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ও ছাত্রলীগকর্মী ফারুক হোসেন হত্যা মামলার সাক্ষীরা সময়মতো আদালতে হাজির না হওয়ায় আট বছরেও বিচারকার্য শেষ হয়নি।

এ ছাড়াও আসামিদের বেশিরভাগই জামিনে রয়েছেন। বিচার না হওয়ায় সুষ্ঠু বিচার নিয়ে সংশয়ে রয়েছে নিহতের পরিবার। হত্যাকা-ের সঠিক তদন্ত করে প্রশাসনের কাছে দ্রুত বিচারের দাবি তাদের।

মামলার ব্যাপারে রাজশাহী মহানগর আদালতের রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী (পিপি) আব্দুস সালাম বলেন, ‘মামলাটি এখনো বিচারাধীন। মামলার অবস্থা সম্পর্কে বিস্তারিত কিছু জানি না। মামলার সাক্ষীরা সময়মতো আদালতে না আসায় বিচারকার্য শেষ করতে সময় লাগছে।’

এদিকে, শহীদ ফারুক হোসনের অষ্টম মৃত্যুবার্ষিকীতে ক্যাম্পাসে শোকর‌্যালি ও সমাবেশে করেছে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।

বেলা ১২টার দিকে ছাত্রলীগের দলীয় টেন্ট থেকে একটি র‌্যালি নিয়ে শাহ্ধসঢ়; মখদুম হলের সামনে ফারুকের প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে। পরে সেখানে সংক্ষিপ্ত সমাবেশে অনুষ্ঠিত হয়।

সমাবেশে রাবি ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ফয়সাল আহমেদ রুনুর সঞ্চালনায় বক্তব্য দেন সংগঠনের সভাপতি গোলাম কিবরিয়া ও ফারুকের বোন আসমা বেগম।

এ সময় বক্তারা ফারুক হত্যা মামলার অভিযোগপত্রভুক্ত পলাতক আসামিদের দ্রুত গ্রেফতার ও বিচারের আওতায় আনার দাবি জানায়।

উল্লেখ্য, হল দখলকে কেন্দ্র করে ২০১০ সালের ৮ ফেব্রুয়ারি গভীর রাতে
ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের ওপর হামলা চালায় শিবির ক্যাডাররা।

এতে ছাত্রলীগকর্মী ফারুক হোসেন নিহত হন। পরদিন বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের তৎকালীন সাধারণ সম্পাদক মাজেদুল ইসলাম অপু বাদী হয়ে নগরীর মতিহার থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলায় তিনি অসংখ্য অজ্ঞাতসহ শিবিরের ৩৫ নেতাকর্মীর নাম উল্লেখ করেন।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন