মঙ্গলবার, ১৬ অক্টোবর ২০১৮ ০২:১৮:১২ পিএম

রাজ্জাক–তাইজুলের বিষে নীল শ্রীলঙ্কা

খেলাধুলা | শুক্রবার, ৯ ফেব্রুয়ারী ২০১৮ | ০৪:৫৮:০৮ এএম

আজ থেকে ঠিক চার বছর আগে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সর্বশেষ টেস্ট খেলেছিলেন আব্দুর রাজ্জাক। জাতীয় দলের সাদা পোশাকে এতদিন পর ফেরাকে তিনি কী দারুণভাবেই না রাঙালেন! মিরপুর টেস্টের প্রথম দিনেই শ্রীলঙ্কাকে ২২২ রানে অল আউট করে দেওয়ার নেপথ্যে যে রাজ্জাকের এক ইনিংসে ক্যারিয়ার সেরা বোলিং!

শেরেবাংলা স্টেডিয়ামের উইকেটে স্পিন ধরবে এ কথা জানাই ছিল। কিন্তু বল প্রথম সেশন থেকেই যে সাপের মতো ফণা পাকিয়ে ছোবল দিয়ে উঠবে, তা জানত কে! অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ বোধহয় জানতেন। টস হেরে ফিল্ডিংয়ে নেমে দুই প্রান্ত থেকে দুই স্পিনারকে দিয়ে বোলিং শুরু করান তিনি। এক প্রান্তে মিরাজ অন্যপ্রান্তে রাজ্জাক। টেস্ট ক্রিকেটের ১৪০ বছরের ইতিহাসে এ নিয়ে দ্বিতীয়বারের মতো কোনো ইনিংসের প্রথম দুই ওভার করলেন দুই স্পিনার। প্রথম এ নজির দেখা গিয়েছে ১৯৬৪ কানপুরে ভারত–ইংল্যান্ড টেস্টে।
সে যাই হোক, শ্রীলঙ্কার ইনিংসে ষষ্ঠ ওভারে প্রথম বলে দিমুথ করুনারত্নেকে (৩) তুলে নিয়ে রঙিন প্রত্যাবর্তনের শুরু করেন রাজ্জাক। এরপর নিজের দ্বিতীয় স্পেলে পৌঁছে গিয়েছিলেন হ্যাটট্রিকের খুব কাছে!
করুনারত্নেকে (৩) স্টাম্পিংয়ের ফাঁদে ফেলেন রাজ্জাক। এরপর ২৮তম ওভারে দ্বিতীয় স্পেলে ফিরেই প্রথম বলে মিড অফে দানুষ্কা গুনাতিলকাকে পরিণত করেন মুশফিককের ক্যাচে। তাঁর পরের বলটি ছিল যে কোনো বাঁহাতি স্পিনারের স্বপ্নের ডেলিভারি। মাঝ স্টাম্প বরাবর নিখুঁত লেংথের ডেলিভারিটি খানিকটা বাঁক খেয়ে সাপের ছোবল মারার মতো আঘাত হেনেছে স্টাম্পে। লঙ্কান অধিনায়ক দিনেশ চান্ডিমাল সোজা ব্যাটে খেলেও নিজেকে রক্ষা করতে পারেননি।
রাজ্জাক হ্যাটট্রিকের সম্ভাবনা জাগানোর আগে ধনঞ্জয়া ডি সিলভাকে (১৯) ফেরান তাইজুল ইসলাম। ৪ উইকেটে ১০৫ রান নিয়ে মধ্যাহৃ বিরতিতে যায় শ্রীলঙ্কা। দ্বিতীয় সেশনের শুরুতেও এ দুই স্পিনারের ছোবল থেকে রক্ষা পায়নি লঙ্কানরা। একপ্রান্ত আগলে রাখা কুশল মেন্ডিসকে (৬৮) দ্বিতীয় সেশনের দ্বিতীয় বলেই ফেরান রাজ্জাক। এবারও তাঁর ডেলিভারি নিখুঁত লেংথ থেকে বাঁক নিয়ে আঘাত হেনেছে স্টাম্পে।
পরের ওভারে নিরোশান ডিকভেলাকেও (১) ফিরিয়ে শ্রীলঙ্কার দুই শ-র নিচে গুটিয়ে যাওয়ার শঙ্কা বাড়িয়ে তোলেন তাইজুল। শ্রীলঙ্কার স্কোর তখন ৬ উইকেটে ১১০। এখান থেকে সপ্তম উইকেটে পেরেরা–রোশন সিলভার ৫২ রানের জুটিতে কিছুটা ঘুরে দাঁড়ায় শ্রীলঙ্কা। পরের উইকেটে আকিলা ধনঞ্জয়ার সঙ্গে ৪৩ রানের জুটি গড়ে দলকে দুই শ–র ওপাশে নিয়ে যান রোশন সিলভা (৫৬)। ৬৩ রানে ৪ উইকেট নেন রাজ্জাক। চার বছর পর টেস্টে ফিরেই এ সংস্করণে এক ইনিংসে নিজের সেরা বোলিং ফিগার তুলে নিলেন তিনি। তাইজুলের শিকারও ৪ উইকেট। ২ উইকেট মোস্তাফিজুর রহমানের।

শ্রীলঙ্কা প্রথম ইনিংস













মেন্ডিস ব রাজ্জাক


৬৮


৯৮


১০




করুনারত্নে স্টা লিটন ব রাজ্জাক





১২







ধনঞ্জয়া ক সাব্বির ব তাইজুল


১৯


৩০







গুনাতিলকা ক মুশফিক ব রাজ্জাক


১৩


২৬







চান্ডিমাল ব রাজ্জাক













রোশন ক লিটন ব তাইজুল


৫৬


১২৪







ডিকভেলা ব তাইজুল













পেরেরা ক মুমিনুল ব তাইজুল


৩১


৫৫







আকিলা ক মুশফিক ব মোস্তাফিজ


২০


২৬







হেরাথ ক মুশফিক ব মোস্তাফিজ













লাকমল অপরাজিত





১৪







অতিরিক্ত (লেগ বাই ৫)










মোট (৬৫.৩ ওভারে, অল আউট)


২২২







উইকেট পতন: ১-১৪ (করুনারত্নে, ৫.১ ওভার), ২-৬১ (ধনঞ্জয়া, ১৬.৩), ৩-৯৬ (গুনাতিলকা, ২৭.১), ৪-৯৬ (চান্ডিমাল, ২৭.২), ৫-১০৯ (মেন্ডিস, ৩১.২), ৬-১১০ (ডিকভেলা, ৩২.১), ৭-১৬২ (পেরেরা, ৪৮.৩), ৮-২০৫ (আকিলা, ৫৭.১), ৯-২০৭ (হেরাথ, ৫৯.১), ১০-২২২ (সিলভা, ৬৫.৩)।

বোলিং: মিরাজ ১৩-০-৫৪-০, রাজ্জাক ১৬-২-৬৩-৪, তাইজুল ২৫.৩-২-৮৩-৪, মোস্তাফিজ ১১-৪-১৭-২ ।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন