বৃহস্পতিবার, ২৬ এপ্রিল ২০১৮ ০৯:০১:৪৪ পিএম

তিনবারের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে এমন আচরণ কেন?

রাজনীতি | শুক্রবার, ৯ ফেব্রুয়ারী ২০১৮ | ০২:৪৫:৫৪ পিএম

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, সরকারের প্রতিহিংসার বহিঃপ্রকাশস্বরূপ বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়াকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে এবং সেখানে তাকে সাধারণ কয়েদীর মতো রাখা হয়েছে। কিন্তু এই প্রতিহিংসার শেষ কবে প্রশ্ন রেখে তিনি বলেন, আওয়ামী লীগের কোনো ষড়যন্ত্র কাজে আসবেনা।
আজ শুক্রবার সকালে নয়াপল্টনে দলটির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ প্রশ্ন রাখেন।

রিজভী বলেন, বেগম খালেদা জিয়াকে জেলখানায় সাধারণ কয়েদীর মতো রাখা হয়েছে বলে সংবাদ সাধ্যমে জানতে পেরেছি। তিনবারের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে এমন আচরণ কেন?
সাংবাদিকদের উদ্দেশ্য করে বিএনপির এই মুখপাত্র বলেন, খালেদা জিয়ার সঙ্গে আমরা কোন যোগাযোগ করতে পারছি না।

তিনি অভিযোগ করে বলেন, দুই বছর ধরেই সরকারের বিভিন্ন নেতৃবৃন্দ বলে আসছিলেন খালেদা জিয়াকে জেলে যেতে হবে। তার মানে গতকালের রায় আগে থেকেই নির্ধারিত করা ছিল। এটা সরকারের আদালতের একটা ফরমায়েসি রায়। খালেদা জিয়ার এ রায়ে আন্তর্জাতিক মহলে নিন্দার ঝড় বইছে।

খালেদা জিয়ার অবর্তমানে তারেক রহমান ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান এবং স্থায়ী কমিটির মাধ্যমে বিএনপি পরিচালিত হবে বলে আবারো মনে করিয়ে দেন তিনি।

চেয়ারপারসনের অবর্তমানে দলে ভাঙ্গনের আশঙ্কা রয়েছে কি না জানতে চাইলে তিনি বলেন, চেয়ারপারসনের নেতৃত্বে বিএনপি অটুট বন্ধনে আবদ্ধ। এ রায়ের ফলে দলে আরো বেশি ঐক্য, ইস্পাতকঠিন ঐক্য বিরাজমান।আওয়ামী লীগের কোনো ষড়যন্ত্রই কাজে আসবে না। খালেদা জিয়ার নেতৃত্বেই বিএনপি এগিয়ে যাবে এবং তাকে বাদ দিয়ে কোন নির্বাচন বাংলাদেশে হবে না বলেও হুশিয়ারি দেন রিজভী।

গতকাল শান্তিপূর্ন মিছিল থেকে ছাত্রদলের সভাপতি রাজীব আহসানকে গ্রেফতার করা হয়েছে অভিযোগ করে তিনি বলেন, গত কয়েকদিনে বিএনপির প্রায় ৩ হাজার ৭০০ নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক ড. এবিএম ওবায়দুল ইসলাম, সহ-দপ্তর সম্পাদক বেলাল আহমেদ, নির্বাহী কমিটির সদস্য অধ্যাপক আমিনুল ইসলাম,জাসাসের সহ-সভাপতি শাহরিয়ার ইসলাম শায়লা প্রমুখ।-নয়াদিগন্ত।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন