শুক্রবার, ১৯ অক্টোবর ২০১৮ ০৪:৫৯:১০ এএম

মেডিক্যাল রিপোর্ট আমার পক্ষে, পাল্টা তোপ কালরার

খেলাধুলা | শনিবার, ১০ ফেব্রুয়ারী ২০১৮ | ১২:২৬:২০ পিএম

বয়স কমিয়ে অনূর্ধ্ব ১৯ বিশ্বকাপ খেলেছেন। এই বিস্ফোরক অভিযোগ উড়িয়ে পাল্টা তোপ দাগলেন অনূর্ধ্ব ১৯ বিশ্বকাপের সেনসেশন মনজ্যোত কালরা। বিশ্বকাপ জয়ের পর বাড়ি ফিরে ডিএনএ-কে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তিনি জানিয়েছেন, "আমার বিরুদ্ধে এর আগেও বয়স নিয়ে অভিযোগ করা হয়েছে। তবে মেডিক্যাল রিপোর্ট অনুযায়ী আমার বিরুদ্ধে করা সব অভিযোগই বিফলে গিয়েছে। আমি আগে কখনও এমন অভিজ্ঞতার সম্মুখীন হইনি। আমার কাছে এটা দুঃখজনক। তবে আমার পরিবার সবসময় আমার সঙ্গে থেকেছে। এমকী আমার খেলাতেও এর প্রভাব পড়েনি।"

মনজ্যোতের বিরুদ্ধে বয়স ভাঁড়ানোর অভিযোগ এই প্রথম নয়। এর আগেও একাধিকবার দিল্লির এই ক্রিকেটারের বিরুদ্ধে বয়স ভাঁড়ানোর অভিযোগ উঠেছে। ভারতের প্রাক্তন অধিনায়ক বিষেন সিং বেদি এবং কীর্তি আজাদের মত প্রাক্তন ভারতীয় ক্রিকেটাররা এর আগে একাধিকবার মনজ্যোতের বিরুদ্ধে বয়স ভাঁড়ানোর অভিযোগ আনেন। এমনকী বিসিসিআইয়ের কাছে লিখিত অভিযোগও জমা করেন। যদিও, সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করে বিসিসিআই। উল্টে ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ড বিতর্কে জল ঢেলে জানায়, বয়স সংক্রান্ত বিষয় যাচাই করেই মনজ্যোত কালরাকে অনূর্ধ্ব ১৯ বিশ্বকাপ খেলার ছাড়পত্র দেওয়া হয়েছে।

প্রসঙ্গত অনূর্ধ্ব ১৯ বিশ্বকাপ জয়ের পর এক সপ্তাহের মধ্যেই বিরাট প্রশ্নের সম্মুখীন হতে হয় কোচ রাহুল দ্রাবিড় এবং ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ড-কে। অনূর্ধ্ব ১৯ তারকা মনজ্যোত কালরা না কি বয়স কমিয়ে বিশ্বকাপ খেলেছেন, এই বিস্ফোরক অভিযোগেই শোরগোল পড়ে যায় গোটা ক্রিকেট বিশ্বে। প্রশ্ন ওঠে, দ্রাবিড় কি জানতেন না কালরা ১৯ উর্ধ্ব। আর কোচ যদি নাই বা জানেন, বিসিসিআই তাহলে কী করছিল?

ফাইনালে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে শতরান করা কালরার বয়স ১৯ নয়, তিনি ২০ উর্ধ্ব, এমনই অভিযোগ। এই বিষয়ে বিসিসিআইয়ের কাছে রিপোর্ট তলব করেছে বলেও সূত্রের খবর। অভিযোগ সত্যি হলে ভারতের কাছ থেকে অনূর্ধ্ব ১৯ বিশ্বকাপ ছিনিয়ে নেওয়া হতে পারে বলেও আশঙ্কা! যদিও, এসব নিয়ে একেবারেই ভাবতে নারাজ সদ্য বিশ্বকাপ জয়ী মনজ্যোত। আগামী দিনে ভারতীয় দলে খেলাই এখন তাঁর একমাত্র লক্ষ্য বলে জানিয়েছেন কালরা।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন