শনিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী ২০১৮ ১২:১৬:১৯ এএম

ডিভিশন পেলে যেসব সুবিধা পাবেন খালেদা জিয়া

আইন আদালত | রবিবার, ১১ ফেব্রুয়ারী ২০১৮ | ০২:০৪:০৯ পিএম

ছবি : ফাইল ফটো

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতির মামলায় পাঁচ বছরের সাজাপ্রাপ্ত বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে জেলকোড অনুযায়ী কারাগারে ডিভিশন দেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন ঢাকার ৫নং বিশেষ জজ আদালত। ঢাকার ৫নং বিশেষ জজ আদালতের বিচারক ড. মো: আখতারুজ্জামান জিয়া এ আদেশ দেন।

রবিবার (১১ ফেব্রুয়ারি) সকালে খালেদা জিয়ার আইনজীবী ব্যারিস্টার জাকির হোসেন ভুঁইয়া ও অ্যাডভোকেট আমিনুল ইসলামের এক আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে বেলা সোয়া ১১টার দিকে এ আদেশ দেন আদালত।

আদালত কারাগারে বন্দী বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে জেলকোড অনুযায়ী ডিভিশন দিতে নির্দেশ দেওয়ায় এ বিষয়ে শেষ পর্যন্ত অনিশ্চয়তা দূর হয়েছে তার।

আদালতের নির্দেশ পেয়ে কারা অধিদফতর জানিয়েছে, আদালতের নির্দেশ পাওয়ায় বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে সাবেক প্রধানমন্ত্রী, সাবেক রাষ্ট্রপতির স্ত্রী ও জাতীয় সংসদে প্রতিনিধিত্বকারী রাজনৈতিক দলের প্রধান হিসেবে ডিভিশন দেয়া হবে।

কারা সূত্র আরো জানিয়েছে, জেলকোডের অধ্যায় ২৭, রুল ৯১০(১) অনুযায়ী বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া ডিভিশন-১ বন্দীর মর্যাদা পাবেন। এক্ষেত্রে তিনি পছন্দের খাবার, বিছানা, দৈনিক পত্রিকা, চেয়ার-টেবিল, ড্রেসিং টেবিল, পছন্দের চিকিৎসকের কাছে চিকিৎসার সুবিধা পাবেন।

এটা ছাড়াও খালেদা জিয়া প্রথম শ্রেণির একজন বন্দী হিসেবে ১৫ দিনের পরিবর্তে ৭ দিনে একবার চিঠি লেখার সুযোগ পাবেন।

বিএনপি চেয়ারপারসন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়া একজন ডিভিশনপ্রাপ্ত বন্দী হিসেবে সকালে ৮৭ গ্রাম আটার রুটি ও ৮৭ গ্রাম ডাল-সবজি পান। দুপুর ও রাতে ৪৯৫ গ্রাম সরু চালের ভাত, ২১৮ গ্রাম মাছ-মাংস এবং সারা দিনে প্রায় ১৪৫ গ্রাম ডাল পাবেন। এছাড়াও তেল, লবণ, মরিচসহ সব মিলিয়ে তিন বেলা খাবার বাবদ একজন ডিভিশনপ্রাপ্ত বন্দীর জন্য সরকারি ভাবে বরাদ্দ হয় ১১৫ টাকা।

উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবার (৮ ফেব্রুয়ারি) জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন ও সাবেক তিনবারের প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড দেন আদালত। এ রায়ের পরপরই খালেদা জিয়াকে নাজিমউদ্দিন রোডের পুরাতন কেন্দ্রীয় জেলখানায় নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে কারাগারের ভেতরে প্রধান ফটকসংলগ্ন জেল সুপারের কক্ষে রাখা হয়েছে তাকে। এখানে খালেদা জিয়ার ব্যবহারের জন্য একটি পুরনো ফ্রিজ দেয়া হয়েছে। পাশের রুমে গ্যাসের চুলায় রান্নার ব্যবস্থা করা হয়েছে জানা গেছে।বিডি২৪লাইভ।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন