শুক্রবার, ২৭ এপ্রিল ২০১৮ ০৬:৪০:০৭ এএম

কঠোর অবস্থানে তজুমদ্দিন প্রশাসন: রায়কে কেন্দ্র করে বিএনপির তৎপরতা নেই

সাদির হোসেন রাহিম | জেলার খবর | ভোলা | সোমবার, ১২ ফেব্রুয়ারী ২০১৮ | ০৫:৩০:১০ পিএম

বেগম খালেদা জিয়ার রায়কে কেন্দ্র করে ভোলার তজুমদ্দিনে যেকোন প্রকার বিশৃঙ্খলা ও নাশকতা ঠেকাতে সার্বিক নিরাপত্তা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে কঠোর অবস্থানে রয়েছে পুলিশ প্রশাসন। ৮ তারিখ রায়ের দিন থেকে তজুমদ্দিনের বিভিন্ন গুরুত্বপুর্ণ স্থানে পুলিশ প্রশাসন কে তৎপর থাকতে দেখা যায়। বিএনপির কোনো নেতাকর্মী আটক হওয়ার সংবাদ পাওয়া যায়নি।

বিএনপি চেয়ারপার্সনের বিরুদ্ধে এতিমদের জন্য পাঠানো ২ কোটি ১০ লাখ টাকা আত্মসাতের অভিযোগে দায়েরকৃত মামলার রায়ের ৪ দিন পেরিয়ে গেলেও তজুমদ্দিনে বিএনপি নেতাকর্মীদের কোন ধরনের অবরোধ ও কর্মসূচী পালনের তৎপরতা চোখে পরেনি। দলের চেয়ারপার্সন জেলে অথচ তজুমদ্দিনে বিএনপির পক্ষ থেকে কোনো প্রকার কর্মসূচির উদ্যেগ নেয়া হয়নি এ নিয়ে সাধারন কর্মীদের মাঝে চরম ক্ষোভ বিরাজ করছে।

বিএনপির এক কর্মী ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, আমাদের নেতারা দলীয় পদ পদবির জন্য নিজেদের মধ্যে গ্রুপিং সৃষ্টি করে আত্ম কলহ সৃষ্টি করেছেন। তারাতো গ্রপিং করা নিয়ে ব্যস্ত আমাদের প্রিয় নেত্রীর মুক্তির জন্য আন্দোলন কর্মসূচী করার সময় পাবে কখন।

উপজেলা আ'লীগের সাধারন সম্পাদক ফজলুল হক দেওয়ান বলেন, তজুমদ্দিনে বিএনপির দুইটি গ্রুপ একটি মেজর হাফিজের পক্ষে আরেকটি বিপক্ষে এদের নিজেদের মধ্যে প্রায়ই ঝামেলা হয়। এরা নিজেরা নিজেদের ঝামেলা মেটাতে পারেনা। এদের রাজনৈতিক কর্মসূচী পালন করার কোনো যোগ্যতা আছে বলে আমার মনে হয়না। আমাদের তজুমদ্দিন আ'লীগ ও সহযোগী সংগঠন গুলো অত্যান্ত শক্তিশালী যেকোনো সময় বিএনপির অন্যায় ও সন্ত্রাসী কর্মকান্ডের বিরুদ্ধে তাদের শক্ত হাতে মোকাবেলা করতে আমরা সর্বদা প্রস্তুত।

তজুমদ্দিন থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) ফারুক আহমেদ জানান, তজুমদ্দিনে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে। কোথাও কোনো ধরনের নাশকতা সৃষ্টির সংবাদ পাওয়া যায়নি। বিএনপির যেকোনো ধরনের নাশকতা ঠেকাতে আমাদের পুলিশ সর্বদা প্রস্তুত আছে। যদি কোনো ব্যাক্তি বা সুযোগ সন্ধানী মহল আইন শৃঙ্খলার অবনতি ঘটানোর চেষ্টা করে আমরা তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যাবস্থা গ্রহন করবো। আমাদের পক্ষ থেকে তিন স্তর বিশিষ্ট নিরাপত্তা ব্যাবস্থা গ্রহন করা হয়েছে। সন্ত্রাসী কর্মকান্ড ঘটাতে পারে এই মর্মে যাদের কে সন্দেহ হচ্ছে তাদের উপর কঠোর গোয়েন্দা নজড়দারি অব্যাহত রয়েছে।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন