সোমবার, ২৩ জুলাই ২০১৮ ০৫:১৮:০৫ পিএম

আইপিএলর সম্প্রচারের সময় নিয়ে ক্ষুব্ধ আম্বানী, সম্মতি শাহরুখের

বিনোদন | মঙ্গলবার, ১৩ ফেব্রুয়ারী ২০১৮ | ০৩:৫৬:২৯ এএম

আইপিএলের সম্প্রচারের সময় বদলাতে চলেছে। এমনটাই ইঙ্গিত মিলেছে আইপিএল'র গর্ভনিং কাউন্সিলের বৈঠকে। এতেই ঘোর অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন নীতা-মুকেশ পুত্র আকাশ আম্বানী। যদিও এই সিদ্ধান্তকে সমর্থন জানিয়েছে শাহরুখ খান, শিল্পার ফ্র্যাঞ্চাইজি কেকেআর-রাজস্থান রয়্যালসের মতো দল।

সূত্রের খবর, আইপিএল'র নিলামের আগে যে গর্ভনিং কাউন্সিলের বৈঠক হয়েছিল, সেখানেই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় আসন্ন আইপিএলে সম্প্রচারের সময় বদলানো হবে। আইপিএল'র গত দশ সংস্করনে বিকাল ও রাতে যথাক্রমে ৪ টায় এবং ৮ টায় খেলা সম্প্রচারিত হত। নতুন সিদ্ধান্ত অনুযায়ী আধঘণ্টা এগিয়ে আনা হতে পারে সকল ম্যাচ।

অর্থাৎ রাতের ম্যাচ ৮টার পরিবর্তে ৭.৩০ এবং বিকালের ম্যাচ ৪টার বদলে ৩.৩০-এ শুরু করার প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে সম্প্রচারকারী চ্যানেলের পক্ষ থেকে। আইপিএল চেয়ারম্যান রাজীব শুক্ল জানিয়েছিলেন, আইপিএল'র অফিসিয়াল ব্রডকাস্টার স্টার স্পোর্টস লিখিতভাবে সময় পরিবর্তনের আবেদন জানিয়েছিল। সেই আবেদন নিয়ে আলোচনা হয়েছে গর্ভনিং কাউন্সিলের বৈঠকে।

আইপিএলের সম্প্রচারের সময় পরিবর্তনের সম্ভবনা তৈরি হওয়ার পরেই অসন্তোষ জানিয়েছিলেন মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের অন্যতম অংশীদার আকাশ আম্বানী। সর্বভারতীয় এক সংবাদমাধ্যমে আকাশ জানান, ‘‘এই সূচি বদলানো নিয়ে আমাদের আপত্তি রয়েছে। মুম্বাইয়ের জনগণ ৬.৩০-৭.০০টা পর্যন্ত চাকরিতে ব্যস্ত থাকে। সময় পরিবর্তন হলে এদেরকে মাঠমুখী করা সম্ভব হবে না।’’

নীতা ও মুকেশ পুত্র ক্ষুব্ধ হলেও কেকেআর এবং রাজস্থান রয়্যালস এমন সূচি পরিবর্তন মেনে নেওয়ার পক্ষে। কেকেআর-এর সিইও ভেঙ্কি মাইশোর মুম্বইয়ের এক ট্যাবলয়েডে জানিয়েছেন, ‘‘দেখুন ওনারা আধঘণ্টা এগিয়ে আনার প্রস্তাব দিয়েছেন। এতে ভুল কিছু নেই। ম্যাচ তাড়াতাড়ি শেষ করা গেলে দর্শকদেরও রাতে ফিরতে সুবিধে হবে। তবে ম্যাচের সময় পিছোলে আমাদের আপত্তি রয়েছে।’’

সূত্রের খবর, ৮টার সময়ের ম্যাচ এমনিতেই শেষ হয় মাঝরাতে। খেলা শেষের পর সম্প্রচারকারী চ্যানেলে ম্যাচ পরবর্তী অনুষ্ঠানের জন্য পর্যাপ্ত ভিউয়ারশিপ পাওয়া যায় না। এতেই টান পড়ে টিআরপিতে। তাই সময় বদলের ভাবনা। এখন দেখার বিষয়, সম্প্রচারকারী চ্যানেলের আবেদন মেনে আইপিএল'র গর্ভনিং কাউন্সিল সময় সত্যিই পরিবর্তন করে কি না।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন