শনিবার, ২০ অক্টোবর ২০১৮ ০৫:৫৬:৩০ এএম

ধূপকাঠির ধোঁয়া কতটা ক্ষতিকর?

লাইফস্টাইল | শনিবার, ১৭ ফেব্রুয়ারী ২০১৮ | ০৫:০৩:২২ পিএম

যে কোনো ধর্মীয় উপাচারেই বেশি দেখা যায় ধূপকাঠির ব্যবহার। আমাদের দেশে হাজার হাজার বছর ধরে চলে আসছে এই রীতি। তবে ধূপের ধোঁয়া আমাদের শরীরের জন্য একদমই ভালো নয়। দীর্ঘ সময় ধরে এই ধূপের ধোঁয়া আমাদের শরীরে প্রবেশ করতে থাকে তাহলে দেখা দিতে পারে বিভিন্ন রকমের শারীরিক সমস্যা। টাইমস অব ইন্ডিয়ার এক প্রতিবেদনে এসব তথ্য উঠে এসেছে।

এক গবেষণায় দেখা গেছে ধূপের ধোঁয়ায় কার্বন মনোঅক্সাইডের মাত্রা বাড়তে শুরু করে। আর এর কারণে বিভিন্ন রকম নিউরোলজিক্যাল সমস্যায় আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা বেড়ে যায়। কারণ নার্ভের ওপর মারাত্মকভাবে খারাপ প্রভাব ফেলে কার্বন মনোঅক্সাইড। ধূপ জালালে সারা ঘর ভরে যায় সুন্দর গন্ধে। তবে ধূপের ধোঁয়া ঘরের ভেতরের বায়ুকে বিষাক্ত করে দেয়। আর ফুসফুসের মাধ্যমে শরীরে প্রবেশ করে এই বিষাক্ত বায়ু।

দিনের পর দিন ধূপে উপস্থিত কার্বন মনোঅক্সাইড, সালফার ডিওঅক্সাইড এবং ক্ষতিকারক মনাইট্রোজেন শরীরে প্রবেশ করলে অ্যাজমা এবং সিওপিডি-এর প্রকোপ বৃদ্ধি পায়।

বেঞ্জন, কার্বোনায়েল এবং পলি অ্যারোমেটিক হাইড্রোকার্বোনের মতো কার্সিনোজেনিক উপাদান রয়েছে ধূপকাঠির ধোঁয়াতে। আর এগুলো দীর্ঘদিন ধরে শরীরে প্রবেশ করা মাত্র ক্যান্সার রোগে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা বৃদ্ধি পায়।

ধূপের ধোঁয়ার কারণে কিডনির কর্মক্ষমতাও কমতে শুরু করে। ভুলেও ধূপের ব্যবহার করা উচিত নয় অ্যাস্থেমা রোগীদের। কারন ধূপের ধোঁয়ায় অ্যাস্থেমা রোগীদের শরীরে প্রদাহ বেড়ে যায়। তাই শ্বাসকষ্ট ও নানাবিধ শারীরিক সমস্যা হওয়ার আশঙ্কা বৃদ্ধি পায়। তাই ধূপের ধোঁয়া এড়িয়ে চলুন।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন