মঙ্গলবার, ২২ মে ২০১৮ ০৪:৩০:৩৩ এএম

শেষ পর্যন্ত তাহলে এই সিদ্ধান্ত মাশরাফির!

খেলাধুলা | রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০১৮ | ০১:৫৭:৩১ পিএম

গত কয়েকটি সিরিজে ভালো করতে পারেননি পেসাররা। পেছনের ভুল-ত্রুটি শুধরে নতুন উদ্যমে শুরুর প্রত্যাশায় মিরপুরে তাসকিনদের বিশেষ ক্লাস নিচ্ছেন কোর্টনি ওয়ালশ-বিসিবি
সপ্তাহখানেক আগে নিজের ব্যবসায়িক কার্যালয়ে বেশ জোর দিয়েই টি২০-তে মাশরাফি মুর্তজাকে ফেরানোর কথা বলেছিলেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন। দুঃখের বিষয় হলো, গতকাল টিম ম্যানেজমেন্টের বৈঠকে সে সম্ভাবনা যেন শেষ হয়ে গেল। নির্বাচকদের সঙ্গে বৈঠক শেষে টিম ম্যানেজমেন্টের অন্যতম প্রভাবশালী সদস্য খালেদ মাহমুদ সুজন জানিয়েছেন, অবসর ভেঙে ফিরে আসাটা মাশরাফির সম্পূর্ণ নিজস্ব ব্যাপার। কিছুক্ষণ পর আবার তিনি নিজেই বলেছেন, তার মনে হচ্ছে, মাশরাফি হয়তো আর ফিরে আসতে চাইবে না। গত সিরিজে টিম ডিরেক্টরের দায়িত্ব পালন করা সুজনের কথাতেই পরিস্কার, মাশরাফিকে টি২০-তে ফেরানোর চেষ্টা সম্ভবত ভেস্তে গেছে। তবে আগামী সিরিজেও বাংলাদেশ দলের দায়িত্বে তিনিই থাকছেন বলে ইঙ্গিত পাওয়া গেছে। যদিও গত ১২ ফেব্রুয়ারি খালেদ মাহমুদ বেশ ক্ষোভের সঙ্গেই বলেছিলেন, জাতীয় দলের পরিবেশ নোংরা হয়ে গেছে। এখানে আর থাকতে চান না। তবে গতকাল তিনি বলেছেন, জাতীয় দলের দায়িত্ব দেওয়া হলে তিনি 'না' করবেন না।

বৈঠক শেষে মাশরাফির ফেরার অগ্রগতির ব্যাপারে জানতে চাওয়া হয়েছিল খালেদ মাহমুদের সামনে। সেখানেই তিনি স্পষ্ট জানিয়ে দেন টি২০-তে প্রত্যাবর্তনের বিষয়টা সম্পূর্ণ মাশরাফির ওপর নির্ভর করছে, 'এটা সম্পূর্ণ মাশরাফির ওপর নির্ভর করে। সে এখনও যে কোনো ফরম্যাটে খেলার সামর্থ্য রাখে। যেহেতু সে অবসর ঘোষণা করেছে তাই ব্যাপারটা সম্পূর্ণ তার ওপর। যদি সে খেলতে চায় তাহলে বোর্ডকে জানাতে হবে, তখন নির্বাচনের বিষয়টা আমরা চিন্তা করব। সে খুবই গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড়, বিশেষ করে নতুন বলে। আর পাওয়ার প্লেতে আমাদের বোলিংটা ভালো হচ্ছে না। সে যদি ফিরে আসে তাহলে বাংলাদেশের জন্য ভালোই হবে। তবে এটা সম্পূর্ণ তার ব্যক্তিগত ব্যাপার।' পরক্ষণেই কৌশলে মাশরাফির ফেরার সম্ভাবনা অনেকটাই বাতিল করে দেন তিনি, 'আমি তাকে চিন্তা করতে বলেছিলাম খেলবে (টি২০ ফরম্যাটে) কি-না। তবে আমার মনে হয়েছে, এখনও সে আগের মতোই চিন্তা করছে। আমি তাকে বলেছিলাম, ইতিবাচক চিন্তা করতে। কিন্তু আমার মনে হয় না সে ফিরে আসতে চাইবে।'

শেষ পর্যন্ত তাহলে এই সিদ্ধান্ত মাশরাফির! শোনা যাচ্ছিল, টি২০-তে না ফিরলেও দলকে উজ্জীবিত করতে মেন্টর হিসেবে নিদাহাস কাপে শ্রীলংকা যেতে পারেন মাশরাফি। সে সম্ভাবনাও উড়িয়ে দিয়েছেন খালেদ মাহমুদ, 'যেহেতু মাশরাফি এখন প্রিমিয়ার লীগে খেলছে, তাই কোনো সুযোগই নেই। তার ক্লাব এটা মেনে নেবে না। তবে যদি জাতীয় দলে সুযোগ পায় তাহলে সেটা ভিন্ন ব্যাপার।' একটি সূত্রে জানা গেছে, অতীতের তিক্ত অভিজ্ঞতার কারণেই বিসিবির টি২০-তে ফেরার প্রস্তাব অত্যন্ত বিনয়ের সঙ্গে ফিরিয়ে দিয়েছেন মাশরাফি। ঘরের মাঠে শ্রীলংকার বিপক্ষে টি২০ সিরিজের আগেও তাকে ফেরার প্রস্তাব দেওয়া হয়েছিল। তখনও তিনি প্রত্যাখ্যান করেছিলেন, তবে টেস্টে ফেরার আগ্রহ দেখিয়েছিলেন। গত বছর এপ্রিলে শ্রীলংকা সফরেই টিম ম্যানেজমেন্ট তথা সাবেক কোচ চন্ডিকা হাথুরুসিংহের চাপে টি২০ মাঠে টস করতে গিয়ে অবসরের সিদ্ধান্ত ঘোষণা করেছিলেন মাশরাফি।

গতকাল বৈঠকটি হয়েছিল ৬ মার্চ থেকে শ্রীলংকায় শুরু হতে যাওয়া তিন জাতি নিহাদাস কাপের দল গঠন নিয়ে। ১৫ সদস্যের খসড়া দল নাকি হয়েও গেছে। কেবল বিসিবি সভাপতির অনুমোদনের অপেক্ষা। জানা গেছে, এবার আর কোনো ধরনের পরীক্ষা-নিরীক্ষার ধারেকাছেও যাচ্ছেন না নির্বাচকরা। ক'দিন আগে শ্রীলংকার বিপক্ষে দুই টি২০ ম্যাচে ছয়জনের অভিষেক হয়েছিল। এবার তেমন কিছু হওয়ার সম্ভাবনা নেই বললেই চলে। পরীক্ষা-নিরীক্ষার বিষয়টি সামনে আনতে কিছুটা যেন চটেই গিয়েছিলেন খালেদ মাহমুদ, 'এই কথাটায় আমার আপত্তি আছে। আমরা কোনো পরীক্ষা করিনি। পারফরম্যান্সকে মূল্যায়ন করার চেষ্টা করেছিলাম। এক সাকিব না থাকলে অনেক সময় সমস্যা হয়। চাপের কারণে হয়তো বা পুরনোদের কাছে ফিরে যেতে হবে। নিদাহাস কাপে যেহেতু ভারত ও শ্রীলংকা আছে, খেলবও অন্য জায়গায়; তাই একটু অভিজ্ঞতা প্রয়োজন হবে বলে আমি মনে করি।'

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন