শনিবার, ১৮ আগস্ট ২০১৮ ১২:০৩:১৬ পিএম

দুর্নীতি প্রমাণ হলে সাজা পাবেন মন্ত্রীরাও

জাতীয় | বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০১৮ | ০৯:২৭:১৭ পিএম

কোন মন্ত্রী-এমপিদের ব্যাপারে সন্দেহ হলে দুর্নীতি দমন কমিশন তাদের ডাকতে পারে। এতে সরকার হস্তক্ষেপ করবে না। মন্ত্রী-এমপি কারোর দুর্নীতি প্রমাণ হলে তারাও সাজা পাবেন।

বুধবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) দশম জাতীয় সংসদের ১৯তম অধিবেশনের সমাপনী বক্তব্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এসব কথা বলেন।

বিকেল চারটায় স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে বছরের প্রথম অধিবেশনের শেষ দিনের বৈঠক শুরু হয়। ৩৫ কর্মদিবসের এই অধিবেশনে রাষ্ট্রপতির ভাষণের ওপর ২৩৩ জন সংসদ সদস্য ৬৪ ঘণ্টা নয় মিনিট আলোচনা করেন।

শেখ হাসিনা বলেন, দুর্নীতিবাজদের আমরা প্রশ্রয় দিতে চাই না। দুর্নীতি দমন কমিশন সম্পূর্ণ স্বাধীনভাবে কাজ করছে। আমার কোনো নেতা বা মন্ত্রী, এমপি কারও বিষয়ে তাদের সন্দেহ হলে তারা ডেকে নিয়ে প্রশ্ন করতে পারেন। এখানে আমরা কোনো হস্তক্ষেপ করি না, হস্তক্ষেপ করব না। কারও দুর্নীতি প্রমাণ হলে সে সাজা পাবে।

বিএনপির গঠনতন্ত্রের একটি ধারা সংশোধনের সমালোচনা করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, বিএনপি গঠনতন্ত্র সংশোধন করে দুর্নীতিবাজদের পদে থাকার সুযোগ করে দিয়েছে। এর মানে তারা দুর্নীতিকে নীতি হিসেবে গ্রহণ করে নিয়েছে। আসামিকে দলের নেতা হিসেবে মেনে নিয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী প্রশ্ন রাখেন, যারা গঠনতন্ত্রে দুর্নীতিকে আশ্রয় দেয়, আর দুর্নীতিবাজকে নেতা হিসেবে গ্রহণ করে, তারা জনগণের জন্য কী কাজ করবে? পরক্ষণে প্রধানমন্ত্রীই নিজের প্রশ্নের জবাব দেন, তারা লুটপাট করতে পারবে। মানুষ খুন করতে পারবে। দুর্নীতি করতে পারবে, কিন্তু মানুষের কল্যাণে কাজ করতে পারবে না।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন