শনিবার, ২৩ জুন ২০১৮ ০৪:৫১:২০ এএম

নওগাঁয় গৃহবধুকে শ্বাসরোধে হত্যা

জেলার খবর | নওগাঁ | বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০১৮ | ১১:২২:২৫ পিএম

নওগাঁর বদলগাছীতে মুনি বেগম (২৮) নামে এক গৃহবধুকে শ্বাসরোধে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। ঘটনার পর থেকে গৃহবধুর স্বামী ইসমাইল হোসেন (৫০) পলাতক রয়েছে।

বুধবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) ভোররাতে উপজেলা সদরের মহিলা কলেজের পাশের পিনডিরা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহতের বাবার নাম সাইদুর রহমান। তাঁর বাড়ি জেলার পত্নীতলা উপজেলার কুন্দন সরদারপাড়া গ্রামে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, মুনি ও তাঁর স্বামী বদলগাছী মহিলা কলেজের পাশের পিনডিড়া গ্রামে ভাড়া বাড়িতে দীর্ঘদিন থেকে বসবাস করে আসছিলেন। কিছুদিন আগে মুনি তার মায়ের কাছে থেকে ৩০ হাজার টাকা হাওলাদ নিয়ে স্বামী ইসমাইল হোসেনকে দেন। সেই টাকা ফেরত দিতে গৃহবধু তার স্বামীকে কয়েক দিন থেকে তাগাদা দিয়ে আসছিলেন।

এনিয়ে কয়েকদিন থেকে স্বামী-স্ত্রীর মাঝে দ্বন্দ্ব হয়ে আসছিল। মঙ্গলবার রাতেও টাকার জন্য স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে দ্বন্দ্ব হয়। বুধবার ভোর রাতে ইসমাইল হোসেন বাড়ীর মালিককে জানায় তার স্ত্রী মুনি বেগম বিদ্যুৎপৃষ্ট হয়েছে। দ্রুত তাকে ভ্যান যোগে বদলগাছী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হয়। স্ত্রীর মরদেহ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে রেখে কৌশলে ইসমাইল হোসেন
পালিয়ে যায়।

নিহত গৃহবধুর বাবা সাইদুর রহমান অভিযোগ করে বলেন, আমার মেয়েকে গলা টিপে শ্বাসরোধ করে হত্যা করেছে ইসমাইল হোসেন। ঘটনাটি ভিন্নখাতে প্রবাহিত করতে বিদ্যুৎপৃষ্ট বলে প্রচারণা করেছে। মেয়ের শরীরের ও গলায় আঘাতের চিহ্ন রয়েছে।

বদলগাছী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জালাল উদ্দিন বলেন, মৃত্যুর ঘটনাটি রহস্যজনক মনে হচ্ছে। হত্যা না বিদ্যুৎপৃষ্টে মারা গেছে তা বলা যাচ্ছে না। লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নওগাঁ সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়। রিপোর্ট হাতে পেলে বিষয়টির সত্যতা জানা যাবে। ঘটনায় একটি হত্যা মামলা হয়েছে। ঘাতক স্বামী ইসমাইল হোসেনকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন