বুধবার, ১২ ডিসেম্বর ২০১৮ ১১:৩৫:৫২ পিএম

দোলযাত্রায় বেনাপোলে আমদানি-রপ্তানি বন্ধ

জেলার খবর | যশোর | বৃহস্পতিবার, ১ মার্চ ২০১৮ | ০৪:০৩:২৬ পিএম

দোলযাত্রা বা দোল পূর্ণিমার ছুটি থাকায় বৃহস্পতিবার (১ মার্চ) সকাল থেকে বেনাপোল-পেট্রাপোল স্থলবন্দর দিয়ে দুই দেশের মধ্যে আমদানি-রপ্তানি বন্ধ রয়েছে।

ওপারে সরকারি ছুটি থাকায় আমদানি-রপ্তানি বন্ধ থাকলেও বেনাপোল বন্দরে পণ্য খালাস প্রক্রিয়াসহ পণ্য ওঠানামা স্বাভাবিক রয়েছে বলে জানান বেনাপোল স্থলবন্দর কর্তৃপক্ষের পরিচালক (ট্রাফিক) আমিনুল ইসলাম।

বেনাপোল-পেট্রাপোল চেকপোস্ট দিয়ে পাসপোর্টযাত্রীদের পারাপার স্বাভাবিক রয়েছে বলে জানান বেনাপোল চেকপোস্ট ইমিগ্রেশনের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তরিকুল ইসলাম।

পেট্রাপোল ক্লিয়ারিং এজেন্ট ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক কার্তিক চক্রবর্তী জানান, দোলযাত্রা বা দোল পূর্ণিমা একটি বৈঞব উৎসব।

বসন্তের এই উৎসবটি ‘হোলি’ নামে পরিচিত। অশুভ শক্তির বিনাশ হিসাবে ‘হোলি উৎসব’ হয়ে থাকে। এই উৎসবের কারণে আমদানি-রফতানি সংক্রান্ত কাজকর্মের সাথে সম্পৃক্ত সিঅ্যান্ডএফ মালিক, কর্মচারী, হ্যান্ডলিং শ্রমিক, ট্রাকচালকরা নিজ নিজ এলাকায় গেছেন। ফলে বুধবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) দুপুরের পর থেকেই সকল কাজে ভাটা পড়েছে।

বৃহস্পতিবার (১ মার্চ) এ পথে কোনো আমদানি-রফতানি হবে না। শুক্রবার (২ মার্চ) বাংলাদেশে সাপ্তাহিক ছুটি থাকায় ওই দিনও আমদানি-রপ্তানি বন্ধ থাকবে। শনিবার (৩ মার্চ) সকাল থেকে আমদানি-রপ্তানি কার্যক্রম স্বাভাবিকভাবে চলবে।

বেনাপোল চেকপোস্ট কাস্টমস কার্গো শাখার রাজস্ব কর্মকর্তা হারুন অর রশিদ জানান, ভারতে হোলি উৎসবের ছুটির জন্য বৃহস্পতিবার বেনাপোল-পেট্রাপোল স্থলবন্দর দিয়ে কোনো আমদানি-রপ্তানি হয়নি। ভারতীয় কাস্টমস কর্তৃপক্ষ ও সিএন্ডএফ এজেন্ট বুধবার বিকেলেই আমাদের জানিয়ে দিয়েছেন। আমদানি রপ্তানি বন্ধ থাকলেও বেনাপোল কাস্টমস হাউজ ও বন্দরে কার্যক্রম চলছে। পণ্য খালাস করতে আসা ভারতীয় ট্রাকগুলো ওপারে ফেরত যেতে কোন বাধা নেই।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন