সোমবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮ ০১:৩০:৪০ পিএম

১৭-তে ৭০ নেতা হারিয়েছে বিএনপি

মানিক মোহাম্মদ | রাজনীতি | সোমবার, ৫ মার্চ ২০১৮ | ০১:৫৪:১১ পিএম

২০১৭ সালে প্রায় ৭০ নেতা হারিয়েছে জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি। এদের মধ্যে অনেকে বাধ্যর্ক্যজনিত কারণে পরলোক গমন করলেও কেউ কেউ অকাল মৃত্যুবরণ করেন। শোককে শক্তিতে পরিণত করে নতুন নেতৃত্ব নিয়ে সামনে এগিয়ে যাচ্ছে খাদের কিনারে থাকা বিএনপি।

বিএনপি চেয়ারপারসনের মিডিয়া উইং কর্মকর্তা শায়রুল কবির খান ও নয়াপল্টন দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয় সূত্রে মৃত্যুবরণকারী এসব নেতাদের তথ্য জানা গেছে।

হাই ভোল্টেজ নেতাদের মধ্যে বছরের শেষ দিকে এসে সাবেক মন্ত্রী, সংসদ সদস্য, কেবিনেট সচিব এবং বিএনপির জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য ও বরেণ্য রাজনীতিবিদ এম কে আনোয়ারকে হারিয়েছে বিএনপি। এছাড়াও বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীদের হারিয়ে অনেকটাই বিপর্যস্ত বিএনপি।

২০১৭ সালের প্রথম দিন তথা ১ জানুয়ারি ঢাকা মহানগর বিএনপির সাবেক স্বেচ্ছাসেবক বিষয়ক সম্পাদক আবদুল মজিদ বাবুলের মৃত্যুর মধ্য দিয়েই নেতা হারানোর যাত্রা শুরু দলটির। প্রয়াত আবদুল মজিদ বাবুলের মুত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৫৫ বছর। তিনি বৃহত্তর কোতোয়ালী থানা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক ছিলেন এবং ৬৮ নং (সাবেক) ওয়ার্ডের প্রকল্প চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

৬ জানুয়ারি ঢাকা মহানগর গেন্ডারিয়া থানার অন্তর্গত ৮২ নং ওয়ার্ড বিএনপির সভাপতি ও বিশিষ্ট সমাজসেবক হাজী গোলাম মোহাম্মদ রাজধানীর জাতীয় হৃদরোগ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইন্তেকাল করেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৮৫ বছর।

১০ জানুয়ারি গোপালগঞ্জ জেলা বিএনপির উপদেষ্টা আব্দুল মালেক মিয়া (৭৫) হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে পরলোক গমন করেন। এছাড়া একইদিনে চট্টগ্রাম উত্তর বিএনপির সাবেক সহ-সভাপতি ও সীতাকুন্ড উপজেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা এ জেড বজলুল করিম (৬৫) শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন।

১৮ জানুয়ারি চাঁদপুর জেলাধীন শাহরাস্তি থানা বিএনপি’র সাবেক সভাপতি সিদ্দিকুর রহমান মাস্টার মারা যান। একইদিন নড়াইল জেলাধীন কালিয়া উপজেলা বিএনপি’র সাবেক সভাপতি নওয়াবুল আলম (৬৫) দুনিয়াকে চিরবিদায় জানান।

২০ জানুয়ারি কুড়িগ্রাম জেলা বিএনপির সদস্য ও রৌমারী উপজেলা বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক রিদওয়ানুল হক পাখী রৌমারী স্থানীয় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় স্বজনদের ও দলের নেতাকর্মীদের থেকে চিরবিদায় নেন।

২৫ জানুয়ারি সাবেক মন্ত্রী, পার্লামেন্টারিয়ান, বিএনপি’র সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান, বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ও দেশের বিশিষ্ট রাজনীতিক নুরুল হুদা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কস্থ কর্নেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইন্তেকাল করেন।

৫ ফেব্রুয়ারি চট্টগ্রাম উত্তর জেলাধীন মিরসরাই উপজেলা বিএনপির উপদেষ্টা, মিরসরাই উপজেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি ও জাতীয়তাবাদী কৃষক দল কেন্দ্রীয় কমিটির সাবেক সহ-সভাপতি এম আলাউদ্দিন রাজধানীর একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মহাপ্রয়াণ ঘটে।

৫ ফেব্রুয়ারি ময়মনসিংহ জেলা জাতীয়তাবাদী যুবদলের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক আনোয়ার হোসেন হিরণ মারা যান। ৭ ফেব্রুয়ারি জাতীয়তাবাদী কৃষক দল বগুড়া জেলা শাখার সভাপতি মোজাম্মেল হক মোজাম (৭০) প্রিয়জনদের রেখেই পরলোক গমন করেন।

১২ ফেব্রুয়ারি টাঙ্গাইল জেলাধীন ধনবাড়ী উপজেলা বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি ও উপজেলা পরিষদের নির্বাচিত ভাইস চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব মহরউদ্দিন মহর শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন।

১৫ ফেব্রুয়ারি জাতীয়তাবাদী রেলওয়ে শ্রমিক দলের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আবুল হাশেম ভূঁইয়া (৬০) রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে চিরবিদায় নেন।

১৬ ফেব্রুয়ারি বিএনপি জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য, ফরিদপুর জেলা বিএনপির সদস্য, চরভদ্রাসন উপজেলার সাবেক চেয়ারম্যান ও জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় নেতা সরোয়ার আজম খান হইলোক ত্যাগ করেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৫১ বছর।

২০ ফেব্রুয়ারি ময়মনসিংহ (দক্ষিণ) জেলাধীন ফুলবাড়ীয়া পৌর বিএনপির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোকাম্মেল হক রঞ্জু মারা যান। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৫০ বছর।

২৩ ফেব্রুয়ারি নেত্রকোণা জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি ও মদন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এম এ হারিছ নেত্রকোণার একটি স্থানীয় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

২৪ ফেব্রুয়ারি নীলফামারী জেলা বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি, নীলফামারী জেলা বিএনপি’র বর্তমান উপদেষ্টা, সাবেক সংসদ সদস্য ও তিনবারের সাবেক পৌর চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা আহসান আহমেদ রাজধানীর একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৮২ বছর।

৩ মার্চ বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য ও ব্রাহ্মণবাড়ীয়া জেলার নবীনগরের সাবেক সংসদ সদস্য কাজী আনোয়ার হোসেন দুপুরে রাজধানীর এ্যাপোলো হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় পরলোক গমন করেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৬৩ বছর।

শরীয়তপুর জেলাধীন জাজিরা উপজেলা বিএনপি’র সভাপতি ইকবাল সিকদার গত ৭ মার্চ স্পীডবোট ডুবিতে নিখোঁজ হওয়ার পর পদ্মা নদী থেকে তার লাশ পাওয়া যায়। এই স্পীডবোট ডুবির ঘটনায় ইকবাল সিকদার ছাড়াও আরও কয়েকজনের সলিল সমাধি ঘটে।

২৬ এপ্রিল বিএনপি জাতীয় নির্বাহী কমিটির সাবেক সদস্য নুরুল হুদা সুলতান বার্ধক্যজনিত কারণে ইন্তেকাল করেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৮০ বছর।

২৮ এপ্রিল রাজশাহী জেলা জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবক দল এর সিনিয়র যুগ্ম আহবায়ক আলমগীর ফয়সাল ডিজেল দুরারোগ্য ব্যাধি ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে সবাইকে কাঁদিয়ে না ফেরার দেশে চলে যান। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৩৮ বছর।

২৮ এপ্রিল পাবনা জেলাধীন সুজানগর থানা বিএনপি’র প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আবদুল মালেক লুডু নিজ বাসভবনে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন।

২ মে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদুল্লাহ হল শাখার জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের সাবেক আহ্বায়ক মোজাহিদ মোরসালিন দীপু’র সহযোদ্ধাকে মায়ার জালে বেধে হইলোক ত্যাগ করেছেন।

২৩ জুন বিএনপি জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য মিয়া মোহাম্মদ সেলিম মারা যান। ২৫ জুন গাজীপুর জেলাধীন কাপাসিয়া উপজেলার কৃতি সন্তান সাবেক সংসদ সদস্য ডা. মো. সানাউল্লা মিয়া (৮১) ইন্তেকাল করেন।

৬ জুলাই ঢাকা মহানগর (দক্ষিণ) বিএনপির খিলগাঁও থানা কমিটির সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও ঢাকা সিটি কর্পোরেশন (দক্ষিণ) ৩ নং ওয়ার্ড (সাবেক-২৬) এর সাবেক কমিশনার মামুনুর রহমান ফজু রাজধানীর বনশ্রী ফারাজী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় পরোলোক গমন করেন।

৯ জুলাই সিলেট জেলা মহানগর বিএনপির সদস্য ও সিলেট জেলা জাতীয়তাবাদী যুবদল এর অর্থ বিষয়ক সম্পাদক জসিম উদ্দিন আহমেদ বাদল মৃত্যুবরণ করেন।

২০ জুলাই ফরিদপুর জেলাধীন নগরকান্দা পৌরসভা জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবক দল এর সভাপতি মারুফ উর রহমান হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে সবাইকে কাঁদিয়ে হইলোক ত্যাগ করেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৩৮ বছর।

২১ জুলাই ফেনী জেলাধীন সদর উপজেলার ১২ নং ফাজিলপর ইউনিয়নের ৫ বারের সাবেক চেয়ারম্যান ও সদর উপজেলা বিএনপির উপদেষ্টা আলহাজ্ব মো. রুহুল আমিন রাজধানীর ল্যাব এইড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৭০ বছর।
২০ জুলাই পটুয়াখালী জেলা বিএনপি’র উপদেষ্টা ও কলাপাড়ী পৌর বিএনপির সাবেক সিনিয়র সহ-সভাপতি মো. শাজাহান মিয়া (মাজা ভাই) বার্ধক্যজনিত কারণে নিজ বাসভবনে ইন্তেকাল করেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৮৩ বছর।

২৬ জুলাই কুমিল্লা জেলাধীন দেবিদ্বার থানার রসুলপুর ইউনিয়ন বিএনপি’র সভাপতি মো. ইদ্রিস ডিলার বার্ধক্যজনিত কারণে ইন্তেকাল করেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৮০ বছর।

২৭ জুলাই ঠাকুরগাঁও জেলা জাতীয়তাবাদী তাঁতী দল এর আহ্বায়ক মো. মামুন অর রশীদ কলকাতার একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন।

২৮ জুলাই জয়পুরহাট জেলা বিএনপির সদস্য ও জয়পুরহাট পৌর বিএনপি’র সাবেক সাধারণ সম্পাদক বেলাল হোসেন ফকির চিরনিদ্রায় শায়িত হন।

১ আগস্ট বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের অন্যতম সদস্য, সাবেক মন্ত্রী, সংসদ সদস্য, মুন্নু গ্রুপ অব ইন্ডাস্ট্রিজ এর চেয়ারম্যান, বিশিষ্ট শিল্পপতি, সমাজসেবক ও শিক্ষানুরাগী হারুণার রশীদ খান মুন্নু তার প্রতিষ্ঠিত মানিকগঞ্জের মুন্নু মেডিকেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় না ফেরার দেশে চলে যান। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৮৬ বছর।

১০ আগস্ট চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি ও পটিয়া পৌর বিএনপির সাবেক সভাপতি এ টি এম মহিবুল্লাহ হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে নিজ বাসভবনে ইন্তেকাল করেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৬০ বছর।

১২ আগস্ট রাতে বরগুনা জেলা বিএনপি’র সহ-সভাপতি, আমতলী পৌর বিএনপি’র আহ্বায়ক ও আমতলী থানা জাতীয়তাবাদী যুবদলের সাবেক সভাপতি আক্তারুজ্জামান কামাল পটুয়াখালী সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৬৪ বছর।

২৫ আগস্ট ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলাধীন আশুগঞ্জ উপজেলা বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক নাসির আহমেদ হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে মৃত্যুবরণ করেন।

২৯ আগস্ট ঢাকা মহানগর (দক্ষিণ) জাতীয়তাবাদী যুবদলের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জসিম উদ্দিন জসু হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে হইলোক ত্যাগ করেন।

৮ অক্টোবর বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী যুবদল ঢাকা মহানগর দক্ষিণ এর সাংগঠনিক সম্পাদক ও সাবেক ছাত্রনেতা জামাল উদ্দিন খান শাহীন (৪৩) রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সবাইকে কাঁদিয়ে চিরবিদায় নেন।

৮ অক্টোবর জাতীয়তাবাদী যুবদল ঢাকা মহানগর (দক্ষিণ) এর সাংগঠনিক সম্পাদক ও জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের সাবেক কেন্দ্রীয় নেতা জামাল উদ্দিন খান শাহীন রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৪৩ বছর।

৯ অক্টোবর মেহেরপুর জেলা বিএনপি’র সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও সিনিয়র সহ-সভাপতি ইসলাম আলী মাস্টার বার্ধক্যজনিত কারণে মৃত্যুবরণ করেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৮৬ বছর।

১১ অক্টোবর ঢাকা মহানগর উত্তর কাফরুল থানাধীন ৯৪ নং ওয়ার্ড বিএনপি’র সভাপতি মো. শাহজাহান সাজু শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৫০ বছর।

১৩ অক্টোবর সিরাজগঞ্জ জেলাধীন কামারখন্দ উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম শেখ চিরনিদ্রায় শায়িত হন। তার বয়স হয়েছিল ৫৭ বছর।

১৯ অক্টোবর নেত্রকোণা জেলা বিএনপির সমবায় বিষয়ক সম্পাদক সাইফুল ইসলাম আবু হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে না ফেরার দেশে চলে যান। তার বয়স হয়েছিল ৪০ বছর।

২১ অক্টোবর রাঙ্গামাটি জেলা বিএনপির সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক মো. মুসা চৌধুরী ইন্তেকাল করেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৬২ বছর।

২৪ অক্টোবর সাবেক মন্ত্রী, সংসদ সদস্য, কেবিনেট সচিব এবং বিএনপি জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য ও বরেণ্য রাজনীতিবিদ এম কে আনোয়ার মারা যান। ২৯ নভেম্বর মাদারীপুর জেলা বিএনপি’র সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মহিউদ্দিন হাওলাদার মনি পরলোক গমন করেন।

৫ ডিসেম্বর ফরিদপুর জেলা বিএনপির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো. আবুল কাশেম মিয়া (৬০) ফরিদপুর হার্ট ফাউন্ডেশন হাসপাতালে মারা যান।

৯ ডিসেম্বর কক্সবাজার জেলাধীন রামু উপজেলা বিএনপির সভাপতি ও সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান এস এম ফেরদৌস এক মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত হয়ে ১০ ডিসেম্বর সকালে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন। তার বয়স হয়েছিল ৬০ বছর।

১২ ডিসেম্বর ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলাধীন আখাউড়া উপজেলা বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক মাস্টার নায়েব আলী ভূঁইয়া নিজ বাড়িতে ইন্তেকাল করেন। তার বয়স হয়েছিল ৭৭ বছর।

১৪ ডিসেম্বর বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল কেন্দ্রীয় সংসদের সদস্য ও চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের যুগ্ম আহ্বায়ক শহিদুল ইসলাম হৃদযন্তের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে না ফেরার দেশে চলে যান। তার বয়স হয়েছিল মাত্র ৩৮ বছর।

১৭ ডিসেম্বর যশোর জেলা বিএনপি’র সহ-সমাজকল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক জিয়াউল হক ডন (৪৭) হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন।

১৮ ডিসেম্বর চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপি’র সহ-সভাপতি ও চট্টগ্রাম মহানগর জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ আলী সলিল সমাধিতে শায়িত হন।

২০ ডিসেম্বর কুমিল্লা জেলাধীন মুরাদনগর উপজেলা বিএনপি’র সাবেক সভাপতি আলহাজ্ব মো. নুরুল ইসলাম হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে মৃত্যুবরণ করেন। তার বয়স হয়েছিল ৭৫ বছর।

২০ ডিসেম্বর ময়মনসিংহ উত্তর জেলাধীন গৌরীপুর উপজেলা বিএনপি’র আহ্বায়ক ও ময়মনসিংহ পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট ছাত্র সংসদের নির্বাচিত সাবেক ভিপি ও জিএস ইঞ্জিনিয়ার মকবুল হোসেন বকুল হৃদরোগসহ বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হয়ে ইন্তেকাল করেন। তার বয়স হয়েছিল ৪৮ বছর।

২৩ ডিসেম্বর ঢাকা মহানগর উত্তরের রামপুরা থানাধীন ৯৮ নং ওয়ার্ড বিএনপি’র সিনিয়র সহ-সভাপতি মোকাম্মেল হক ৪৮ বছল বয়সে স্বজনদের কাঁদিয়ে চিরনিদ্রায় শায়িত হন।

২৫ ডিসেম্বর সাতক্ষীরা জেলাধীন কলারোয়া থানা ও পৌর বিএনপি’র সাবেক সভাপতি, কলারোয়া উপজেলার সাবেক চেয়ারম্যান ও চারবারের ইউপি চেয়ারম্যান এবং বামুনখালী হাইস্কুলের সাবেক প্রধান শিক্ষক বজলুল করিম রাজধানীর ধানমন্ডিস্থ বাংলাদেশ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইন্তেকাল করেন। তার বয়স হয়েছিল ৭০ বছর।

২৮ ডিসেম্বর পটুয়াখালী জেলা বিএনপির সদস্য, বাউফল উপজেলা বিএনপির সহ-সভাপতি ও বাউফল ডিগ্রি কলেজ ছাত্র সংসদের সাবেক ভিপি মো. জাহাঙ্গীর হোসেন হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে পরলোক গমন করেন। তার বয়স হয়েছিল ৬০ বছর।

উল্লেখিত নেতা ছাড়াও বিএনপি ও এর অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের বেশ কয়েকজন নেতা দুনিয়া থেকে চিরবিদায় নিয়ে না ফেরার দেশে চলে গেছেন। তাদের মৃত্যুর শোককে শক্তিতে পরিণত করে প্রতিকূল পরিস্থিতিতে সামনে এগিয়ে যাওয়ার প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন দলটির হাইকমান্ড।

-জাগোনিউজ।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন