রবিবার, ২১ অক্টোবর ২০১৮ ০৫:৫০:৩৯ এএম

প্রেমিকের বাড়িতে কলেজছাত্রীর অনশন

জেলার খবর | লালমনিরহাট | মঙ্গলবার, ৬ মার্চ ২০১৮ | ১২:৪৫:০০ পিএম

লালমনিরহাটের আদিতমারী উপজেলার কমলাবাড়ি ইউনিয়নে বিয়ের দাবিতে টানা দুই দিন ধরে প্রেমিকের বাড়িতে অনশন করছেন এক কলেজছাত্রী।

এ ঘটনায় এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। প্রতিদিন ওই বাড়িতে প্রেমিকাকে দেখতে এলাকাবাসী ভিড় করছে। রোববার (৪ মার্চ) থেকে তিনি ওই বাড়িতে অবস্থান করছেন বলে জানা গেছে। উপজেলার কমলাবাড়ি ইউনিয়নের কালীস্থান বাজার এলাকার ওবায়দুলের ছেলে ফারুকের সঙ্গে বিয়ের দাবিতে মাহমুদা আক্তার ময়না (১৭) নামে ওই কলেজছাত্রীর অনশনের খবর পেয়ে সোমবার (৫ মার্চ) দিনগত রাত ১২টার দিকে সেখানে গেছে পুলিশ।

স্থানীয় এলাকাবাসীর সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, লালমনিরহাট সরকারি কলেজের ডিগ্রি দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী ফারুক (২৩) তার প্রতিবেশী মোস্তফা কামালের মেয়ে হাজীগঞ্জ উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজের শিক্ষার্থী মাহমুদা আক্তার ময়নার (১৭) সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরে প্রেম করে আসছিলেন। বিয়ের কথা বলে রোববার (৪ মার্চ) সন্ধ্যায় সবার অগোচরে ময়নাকে নিজের ঘরে ডেকে নেন ফারুক। ভোর রাতে ওই ঘরে দু’জনকে আপত্তিকর অবস্থায় দেখতে পেয়ে তাৎক্ষণিকভাবে ফারুককে বাড়ি থেকে সরিয়ে দেন তার স্বজনরা।

একইসঙ্গে ময়নাকে বাড়ি থেকে তাড়িয়ে দেওয়ার চেষ্টা করেন। কিন্তু বিয়ে ছাড়া ওই বাড়ি না ছাড়ার ঘোষণা দিয়ে অনশন শুরু করেন ময়না। সোমবার দিনভর ময়নাকে বাড়ি থেকে সরানোর ব্যর্থ চেষ্টা চালান ফারুকের স্বজনরা। পরে একটি মহলের মাধ্যমে কিছু ‘ক্ষতিপূরণ’ দিয়ে ময়নাকে সরানোর অপচেষ্টা চালানো হলে তিনি আত্মঘাতী হওয়ার হুমকি দেন।

এদিকে, মেয়েকে বিয়ের প্রলোভনে বাড়িতে ডেকে নিয়েও বিয়ে না করায় ময়নার বাবা আদিতমারী থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন। এরই প্রেক্ষিতে রাতে ঘটনাস্থলে যায় পুলিশ। মাহমুদা আক্তার ময়না জানান, শুধু প্রেম নয়, বিয়ের প্রলোভনে তাদের দৈহিক সম্পর্ক অনেক দিনের। ফারুক রাজি থাকলেও তার পরিবার রাজি নয়। অনশন করলে পরিবার এক সময় তাদের বিয়ে দিতে বাধ্য হবে বলে ফারুকেরই পরামর্শে তার এ অনশন বলে দাবি করেন ময়না।

আদিতমারী থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হরেশ্বর রায় জানান, ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন