সোমবার, ১৭ ডিসেম্বর ২০১৮ ১০:৪৯:৪৮ পিএম

বিএনপি-জামায়াত দূরত্ব আরো বেড়েছে

জাতীয় | বুধবার, ৭ মার্চ ২০১৮ | ০৪:৩৩:১৩ এএম

বিরোধী নেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার গ্রেপ্তারের পরও জোটসঙ্গী জামায়াতের সঙ্গে বিএনপির দূরত্ব কমেনি। বরং দল দুটির মধ্যে দূরত্ব আরো বেড়েছে। খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে নিয়মতান্ত্রিক আন্দোলন কর্মসূচি পালন করে আসছে বিএনপি।

এসব কর্মসূচিতে ২০ দলীয় জোটের অনেক নেতাই নিয়মিত অংশ নিচ্ছেন। তবে জামায়াতের কোনো নেতাকে দেখা যাচ্ছে না। গতকাল বিএনপির মানববন্ধন কর্মসূচিতেও জামায়াতের কোনো নেতা অংশ নেননি।

খালেদার মুক্তির দাবিতে চলমান আন্দোলনে জামায়াত-শিবিরের অংশগ্রহণ নেই বললেই চলে। জামায়াতের একটি সূত্র অবশ্য বলছে, মূলত গ্রেপ্তার আতঙ্কের কারণেই এসব কর্মসূচিতে দলটির নেতাকর্মীরা অংশ নিতে পারছেন না।

তবে রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকরা খেয়াল করছেন, দীর্ঘদিন ধরেই বিএনপি-জামায়াতের মধ্যে এক ধরনের দূরত্ব রয়েছে। স্থানীয় সরকার নির্বাচনগুলোতে জামায়াতের সঙ্গে বিএনপির কোনো ধরনের ঐক্য ছিল না। এক্ষেত্রে বিএনপিই জামায়াতের সঙ্গে দূরত্ব বজায় রাখে।

যুদ্ধাপরাধের অভিযোগে জামায়াত নেতাদের পক্ষে কোনো অবস্থান নেয়নি বিএনপি। এ নিয়ে নাখোশ জামায়াত নেতারা। মূলত এ বিষয়কে কেন্দ্র করেই দল দুটির মধ্যে দূরত্বের সূত্রপাত। অন্যদিকে, দেশে-বিদেশে বিএনপির শুভাকাঙ্ক্ষী হিসেবে পরিচিত অনেকে মনে করেন, জামায়াতের সঙ্গে বিএনপির প্রকাশ্য জোট বিএনপির ভাবমূর্তির জন্য ক্ষতিকর।

কিছু বিদেশি বন্ধু এ ব্যাপারে বিএনপিকে বুঝানোরও চেষ্টা করে। ভোটের সমীকরণের কারণে বিএনপি-জামায়াত এখন পর্যন্ত জোট ভাঙার ব্যাপারে কোনো ধরনের সিদ্ধান্ত নেয়নি। তবে দল দুটির মধ্যে দূরত্ব এখন অনেকটাই স্পষ্ট।

সম্প্রতি স্থগিত হয়ে যাওয়া ঢাকা সিটি করপোরেশন নির্বাচনেও জামায়াত জোটের বাইরে গিয়ে আলাদা প্রার্থী ঘোষণা করেছিলো। সিলেট সিটি নির্বাচনেও জামায়াতের প্রার্থী রয়েছে। নিবন্ধন বাতিল হওয়ায় বর্তমানে জামায়াত দলীয় প্রতীকে কোনো নির্বাচনে অংশ নিতে পারছে না।

স্বতন্ত্র ব্যানারে দলটির নেতারা নির্বাচনে অংশ নিচ্ছেন। আগামী সংসদ নির্বাচনেও একই কৌশলে লড়তে পারে জামায়াত। এক্ষেত্রে জোটের ভেতরে আসন নিয়ে এরইমধ্যে দরকষাকষি শুরু হয়েছে। পরিস্থিতি শেষ পর্যন্ত কোথায় গিয়ে দাঁড়ায় তাই হবে দেখার।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন