বুধবার, ১২ ডিসেম্বর ২০১৮ ০৫:৪৪:৩৪ এএম

মেসিকে হারানোর ভয়ে কাঁপছে বার্সা!

খেলাধুলা | বৃহস্পতিবার, ৮ মার্চ ২০১৮ | ০৯:০৯:০৯ পিএম

বার্সেলোনার তুনের সবচেয়ে ধারালো তীর আর্জেন্টাইন অধিনায়ক লিওনেল মেসি। বর্তমান সময়ে নিজের ফুটবল শৈলী দিয়ে বিশ্বকে মোহিত করে রেখেছেন এলএমটেন। লিওনেল মেসি মানেই পায়ের জাদুতে মোহিত হবে ফুটবল বিশ্ব। তটস্থ থাকবে প্রতিপক্ষের ডিফেন্স, গোলরক্ষক। ম্যাচে হবে গোলের ফুলঝুড়ি। গোল করবেন আবার সতীর্থদের দিয়ে গোল করাবেন। তার পা ফুটবল মাঠে শিল্পী হয়ে এঁকে যাবে নতুন শিল্প।

চলতি মৌসুমে বার্সেলোনার তুনের সবচেয়ে ধারালো তীরটি ধারাবাহিকভাবে দুর্দান্ত গতিতে ছুটছে। পাঁচবার ব্যালন ডি’অর ট্রফি ঘরে তুলেছেন। এবারও এই অ্যাওয়ার্ডের দৌঁড়ে শীর্ষে রয়েছেন। ইতোমধ্যে তারা লা লিগায় শীর্ষস্থান দখল করে আছে। কোপা দেল রে’র ফাইনাল নিশ্চিত করেছে। চ্যাম্পিয়নস লিগেও রয়েছে ভালো অবস্থানে। তার অসাধারণ সব কীর্তির জন্য অনেকেই অনেক মন্তব্য করে থাকেন। এমন এক খেলোয়াড়কে নিয়ে হারানোর ভয়ে কাঁপছে বার্সেলোনা শিবির।

অথচ দলবদলের বাজারে লিওনেল মেসিকে প্রতিদ্বন্দ্বীদের হাত থেকে সুরক্ষিত রাখতে ৭০০ মিলিয়ন ইউরো রিলিজ ক্লজও হয়তো যথেষ্ট নয়! বার্সেলোনার ফিন্যান্সিয়াল ও স্ট্র্যাটেজি ডিরেক্টর পাঞ্চো স্ক্রোডার এমন আশঙ্কার কথাই প্রকাশ করেছেন। ন্যু ক্যাম্পের এই শীর্ষ কর্মকর্তার দৃষ্টিতে, বর্তমান ট্রান্সফার মার্কেটের পরিস্থিতি অস্থিতিশীল এবং ভবিষ্যৎ নিয়ে কোনো নিশ্চয়তা দিতেও অস্বীকৃতি জানিয়েছেন তিনি।

গত বছর ট্রান্সফার ফি’র বিশ্বরেকর্ড গড়ে ২২২ মিলিয়ন ইউরোর রিলিজ ক্লজ দিয়ে নেইমারকে বার্সা থেকে ভাগিয়ে নেয় পিএসজি। এরপরই নড়েচড়ে বসে স্প্যানিশ জায়ান্টরা। ইতোমধ্যেই বেশ কয়েকজনের সঙ্গে চুক্তি নবায়ন করে মোটা অঙ্কের রিলিজ ক্লজ (ক্লাবের ইচ্ছার বিরুদ্ধে যেতে চাইলে এ পরিমান অর্থ পরিশোধ করতে হয়) বেঁধে দিয়েছে ক্লাব কর্তৃপক্ষ।

মেসির দিকে যাতে কেউ হাত না বাড়ায় সেজন্যই ৭০০ মিলিয়ন ইউরোর (৭০ কোটি ইউরো) আকাশছোঁয়া বাইআউট ক্লজ বা রিলিজ ক্লজ নির্ধারণ করেছে বার্সা। টাকার অঙ্কে ৭ হাজার ১৯২ কোটি ৩৬ লাখের বেশি!

নেইমারের ট্রান্সফার ফি-ই অনেকে অসম্ভব ভেবেছিলেন। সর্বকালের অন্যতম সেরা মেসিকে পেতে রেকর্ড দাম দেয়ার সামর্থ্য রাখে রিয়াল মাদ্রিদ, ম্যানচেস্টার সিটি কিংবা কাতারি পেট্টোডলারে তারকাসমৃদ্ধ পিএসজি। এ নিয়েই যত ভয় বার্সার!

স্কাই স্পোর্টসকে দেয়া সাক্ষাৎকারে পাঞ্চো স্ক্রোডার বলেন, ‘আমরা একটি ধারা সেট করেছি যেখানে ভেবেছি মেসির বার্সেলোনায় অবসর নেওয়ার জন্য এটা যথেষ্ট। কিন্তু এক বছর আগে আমরা চিন্তা করেছিলাম নেইমারের রিলিজ ক্লজও তাকে ধরে রাখার জন্য যথেষ্ট হবে। গত সামারে এটা ভুল প্রমাণিত হয়েছে।’

‘ভবিষ্যতের দিকে তাকিয়ে, আমি মনে করি এটা কঠিন। কিন্তু আমার কাছে ক্রিস্টাল বল নেই এবং বর্তমান দিনে সবকিছু কিছুটা পাগলাটে (ট্রান্সফার মার্কেট) হয়ে যাচ্ছে।’

চলতি মৌসুম দুর্দান্ত কাটছে বার্সার প্রাণভোমরার। লা লিগায় এখন পর্যন্ত ২৪টি গোল করে ব্যাক-টু-ব্যাক ইউরোপিয়ান গোল্ডেন বুট জয়ের দৌড়ে ছুটছেন মেসি। সব ধরনের প্রতিযোগিতা মিলিয়ে প্রতিপক্ষের জালে বল পাঠিয়েছেন ৩২ বার।

স্প্যানিশ লিগ শিরোপা পুনরুদ্ধারেও শক্ত অবস্থানে মেসির বার্সা। ট্রেবল জয়ের লক্ষ্যে চ্যাম্পিয়নস লিগ ও কোপা দেল রের অন্যতম ফেভারিট কাতালানরা।

লা লিগায় ৮ পয়েন্টের লিড বার্সার। মৌসুম শেষ হতে হাতে আছে আর ১১টি ম্যাচ। চেলসির মাঠে চ্যাম্পিয়নস লিগের শেষ ষোলোর প্রথম লেগ ১-১ গোলে নিষ্পত্তি হয়। ন্যু ক্যাম্পে আগামী বুধবার (১৪ মার্চ বাংলাদেশ সময় দিবাগত রাত পৌনে ২টায়) ফিরতি পর্বের ম্যাচ। কোপা দেল রের ফাইনাল ২১ এপ্রিল। প্রতিপক্ষ সেভিয়া।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন