রবিবার, ২৪ জুন ২০১৮ ১১:০২:২৩ এএম

‘দাবি আদায় না হলে আবারো আন্দোলন’

জাতীয় | শুক্রবার, ৯ মার্চ ২০১৮ | ০৮:০৮:২১ পিএম


মাধ্যমিক স্কুল শিক্ষা জাতীয়করণ লিয়াজোঁ কমিটির সভাপতি ড. মো ইদ্রিস আলী বলেছেন, ‘শিক্ষকদের দাবি আদায়ে প্রয়োজনে আবারো আমাদের রাজপথে নামতে হবে। আবারো আন্দোলন শুরু করতে হবে।’ সামনে কঠোরতর আন্দোলনের হুঁশিয়ারি দেন তিনি।
শুক্রবার বিকেলে জাতীয় প্রেসক্লাবের দ্বিতীয়তলার কনফারেন্স লাউঞ্জে ‘মাধ্যমিক স্কুল শিক্ষা (দ্বাদশ শ্রেণি পর্যন্ত) জাতীয়করণ’ এর দাবিতে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।

ইদ্রিস আলী বলেন, ‘শিক্ষাব্যবস্থা উন্নত করতে হলে শিক্ষকদের পূর্ণ মর্যাদা দিতে হবে। ২০১৫ সালে দিকে সকল চাকরিজীবিদের বেতন ভাতা ৬৩% থেকে প্রায় ১০০ ভাগ বেড়েছে। কিন্তু সরকারি স্কুল ও কলেজের শিক্ষকদের মাসিক বেতন বাড়েনি।’
বিশেষ অতিথির বক্তব্যে কমিটির উপদেষ্টা শাহ আলম বলেন, ‘জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান যুদ্ধবিধ্বস্ত বাংলাদেশে ১৯৭৩ সালে ৩৭ হাজার প্রাথমিক বিদ্যালয় জাতীয়করণ করে ইতিহাস সৃষ্টি করেছিলেন। তেমনি বঙ্গবন্ধুর কন্যা শেখ হাসিনা ইতিমধ্যে ২৬ হাজার রেজিস্টার প্রাথমিক বিদ্যালয় জাতীয়করণ করে শিক্ষাবান্ধব সরকারপ্রধান হিসেবে ভূয়সী প্রশংসা কুড়িয়েছেন।’

তিনি বলেন, ‘দুঃখজনক হলেও সত্য, আমরা বেসরকারি শিক্ষক সমাজ জাতীয় বেতন স্কেল ২০১৫ অনুযায়ী বেতন -ভাতা পেলেও আমরা পাচ্ছি না টাইম স্কেল, বার্ষিক ৫% প্রবৃব্ধি বৈশাখী ভাতা। বাড়ি ও চিকিৎসাবাবদ পাচ্ছি মাত্র ১০০০ ও ৫০০ টাকা করে। বোনাসের ক্ষেত্রে সরকারি কর্মচারীগণ পাচ্ছেন ৫০% আর শিক্ষকগণ পাচ্ছেন ২৫%।’
এদিকে কমিটির পক্ষ থেকে আগামী ১০ থেকে ১৫ মার্চ পর্যন্ত কালো ব্যাজ ধারণ করে শ্রেণি কার্যক্রম পরিচালনা করা, ১৮ থেকে ২১ মার্চ পর্যন্ত স্থানীয় জাতীয় সংসদ সদস্যদের সাথে সাক্ষাৎ ও দাবির যৌক্তিকতা নিয়ে মতবিনিময়, ২২ মার্চ প্রতিটি জেলা সদরে দাবির যৌক্তিকতা প্রকাশপূর্বক সকাল ১০টা থেকে বেলা ১১টা পর্যন্ত মানববন্ধন ও ২৯ মার্চ জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে সকাল ১০টা থেকে অবস্থান ধর্মঘট এসব কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়। এ সময় কমিটির অন্যান্য সদস্য উপস্থিত ছিলেন।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন