বুধবার, ১৭ অক্টোবর ২০১৮ ১২:৫৩:৩২ এএম

‘এটা শেষ নয়, কেবল শুরু!’

খেলাধুলা | রবিবার, ১১ মার্চ ২০১৮ | ১২:৫৯:৩৩ পিএম

টি-২০’তে বাংলাদেশের সীমাবদ্ধতা নিয়ে নতুন করে বলার কিছু নেই। এই ফরম্যাটের আবির্ভাবের পর সবাই ভেবেছিলেন, স্ট্রোক খেলতে অভ্যস্ত বাংলাদেশই হয়ত হবে টি-২০’র সেরা দল। বাস্তবে ঘটেছে উল্টোটি। টেস্ট ও ওয়ানডেতে সাম্প্রতিক সময়ে নিজেদের মেলে ধরতে পারলেও টি-২০তে বাংলাদেশের পারফরমেন্স নয় একদম সন্তোষজনক।

তবে শনিবার শ্রীলঙ্কাকে হারানোর ম্যাচে যেন অন্য এক বাংলাদেশ। টি-২০’র জড়তা কাটিয়ে মুশফিক-তামিম-লিটনদের ব্যাটিং দৃঢ়তা বাংলাদেশকে এনে দিয়েছে ইতিহাসের সেরা জয়। ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে দলের প্রতিনিধি হয়ে আসা তামিম ইকবাল এই জয়কে আখ্যা দিলেন ভালো সময়ের শুরু হিসেবে।

তামিম বলেন, ‘আমরা এরকম আগে কখনও করতে পারিনি। ২০০ রানও তাড়া করতে পারিনি। খেলোয়াড়রা এখন জানে ২০০-র বেশি রান কীভাবে তাড়া করতে হয়।’

পরিস্থিতি বুঝে খেলা এই ম্যাচ বাংলাদেশকে আত্মবিশ্বাস যোগাবে জানিয়ে তামিম বলেন, ‘শুধু চার-ছক্কা হাঁকানোর বিষয় নয় এটা। মাঝখানের সময়টাতে সিঙ্গেল এবং ডাবল নেওয়ার মতো স্মার্ট ক্রিকেট খেলতে হয়। এটা অবশ্যই আমাদের অনেক আত্মবিশ্বাস যোগাবে। এটা শেষ নয়, কেবল শুরু।’

তবে দীর্ঘদিন পর এক ম্যাচে ভালো করলেও বাংলাদেশ এখনও টি-২০’তে শিখছে বলে বিশ্বাস তার। তামিমের ভাষ্য, ‘আমরা এই ফরম্যাটে এখনও শিখছি। এই ম্যাচ অনেক সহায়তা করবে। আমরা আত্মবিশ্বাস ফিরে পেলে ভালো ক্রিকেট খেলতে পারবো। আমরা ওয়েস্ট ইন্ডিজ বা ইংল্যান্ডকে অনুসরণ করতে পারবো না। তাদের বিভিন্ন ধরণের খেলোয়াড় আছে। তাই আমাদের দলগতভাবে ভালো খেলতে হবে।’

ক্রিকেটের সবচেয়ে ছোট ফরম্যাটে দলের সীমাবদ্ধতার চিত্র তুলে ধরে তামিম আরও বলেন, ‘এই ফরম্যাটে আমাদের আরও উন্নতি করতে হবে। আমাদের মারকুটে ব্যাটসম্যান তেমন নেই। টি-২০ ক্রিকেটে পার্টনারশিপ গড়া খুব গুরুত্বপূর্ণ। আমাদের ধোনির মতো কেউ নেই যে সাতে নেমে ম্যাচ শেষ করে আসবে। আমাদের ক্রিস গেইলের মতোও কেউ নেই।’

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন