বুধবার, ১৫ আগস্ট ২০১৮ ১০:৫৮:৩৪ এএম

মুশফিক তাণ্ডবের দিনে সাকিব-মাশরাফিকে মিস লঙ্কান তরুণীর

খেলাধুলা | রবিবার, ১১ মার্চ ২০১৮ | ০৪:০২:২৮ পিএম

মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামের মতো শ্রীলঙ্কার হোম অফ ক্রিকেট প্রেমাদাসা স্টেডিয়াম। তাই লঙ্কানদের ম্যাচ মানে প্রেমাদাসায় নামে নীল সমর্থকদের ঢল। স্বাগতিক সমর্থক হিসেবে সবার প্রত্যাশা ধারাবাহিক ভালো করুক তাদের দল। সেই সাথে শুভকামনা জানিয়েছেন বাংলাদেশের জন্য। আক্ষেপ প্রকাশ করেছেন টুর্নামেন্টে বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিবকে না পাওয়ায়।

আগের ম্যাচে দর্শক শূন্যতায় ভুগেছে প্রেমাদাস স্টেডিয়াম। কিন্তু শ্রীলঙ্কা-বাংলাদেশ ম্যাচে দৃশটা হল ভিন্ন। ম্যাচ চলাকালীন শের-ই-বাংলার গ্যালারি আর মিরপুরের রঙ হয়ে ওঠে লাল-সবুজের মিশ্রণে। আর প্রেমাদাসায় নীল। শ্রীলঙ্কায় স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে যা আরো রঙ্গিন।

একজন দর্শক বলেন, ‘প্রথমবারের মত খেলা দেখতে এসেছি। আমি খুবই উচ্ছ্বসিত। শ্রীলংকার জন্য সব সময় শুভেচ্ছা। আমার মনে হয় জরুরি অবস্থার প্রভাব এখানে পড়ছে না।’

আরেকজন বলেন, ‘আমাদের স্বাধীনতার ৭০ বছরের উদযাপন উপলক্ষে এই টুর্নামেন্টের আয়োজন। মনে-প্রাণে চাচ্ছি শ্রীলঙ্কা জিতুক। বাংলাদেশ দারুণ দল। বর্তমান সময়ে বাংলাদেশ ভাল খেলছে। তবে এখন শ্রীলঙ্কাও তুলনামূলক ভাল খেলছে।’

কেতারামায় উৎসবে মেতেছে লংকানরা, সঙ্গে বেড়াতে আসা পর্যটকরাও । স্বাগতিকদের একনিষ্ঠ সমর্থক দর্শকদের কিন্তু টাইগার ক্রিকেটদের খেলাও মুগ্ধ করে।

৩৫ হাজার দর্শকের মাঝে খুঁজে পাওয়া গেল বাংলাদেশি সমর্থককেও। নিদাহাস ট্রফিতে সাকিব-মাশরাফিকে মিস করছেন তারা।

একজন নারী ভক্ত বলেন, ‘আমি বাংলাদেশে পাঁচ বছর ছিলাম। তামিম, মাশরাফি, মুশফিকদের খেলা দেখে আমি অভ্যস্ত। তবে শ্রীলঙ্কান হিসেবে আমি অবশ্যই শ্রীলঙ্কাকেই সমর্থন করব।’

আরেকজন ভক্ত বলেন, ‘বাংলাদেশের তামিম, মুশফিকের খেলা আমার ভাল লাগে।’

শিগগিরই কঠিন সময় কাটিয়ে উঠবে বাংলাদেশ, এমন প্রত্যাশা ভক্তদের।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন