রবিবার, ২৪ জুন ২০১৮ ১১:০৯:০৮ এএম

অসামাজিক কাজের অভিযোগে গ্রেপ্তার, লজ্জায় স্কুলছাত্রীর আত্মহত্যা

নগর জীবন | রবিবার, ১১ মার্চ ২০১৮ | ০৬:০৩:১৫ পিএম

রাজধানী ঢাকার তেজগাঁও এলাকায় ৭তলা ভবন থেকে লাফিয়ে এক স্কুলছাত্রী আত্মহত্যা করেছে বলে জানা গেছে।

বরিবার (১১ মার্চ) সকালে রাজধানীর তেজগাঁও শিল্প এলাকার একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু হয় ওই স্কুলছাত্রীর।

জানা গেছে, নিহত সূচনা খাতুন (১৮) পুঠিয়া পৌর সদর এলাকার কালীতলার সাইফুলের মেয়ে।

নিহতের পরিবারের দাবি, পুলিশ অসামাজিক কাজের অভিযোগে সূচনা কে আটক করে জেল হাজতে পাঠায়। এরপরে জামিনে মুক্তি পেয়ে ঢাকায় গিয়ে আত্মহত্যা করে সূচনা।

এ বিষয়ে নিহত সূচনার দাদা অলিউর রহমান গণমাধ্যমকে বলেন, বৃহস্পতিবার (৮ মার্চ) রাতে আমার বাড়িতে অসামাজিক কাজ হয়, এমন অভিযোগের কথা বলে আমার নাতনি সূচনা খাতুনকে ধরে নিয়ে যায় পুলিশ। ওই সময় সন্দেহজনকভাবে আরো দুই জন যুবককেও আটক করে পুলিশ।

তিনি আরো বলেন, এরপর দিন শুক্রবার (৯ মার্চ) দুপুরে আটককৃতদের আদালতে প্রেরণ করে। ওই দিন আদালতে জামিনের আবেদন করলে আদালত আমার নাতনি সূচনাকে জামিন দেন। জামিনে মুক্তি পেয়ে বাড়ি আসার পর লজ্জায় আমার নাতনি ও পুত্রবধূ শনিবার (১০ মার্চ) সকালে ঢাকার তেজগাঁও এলাকার পূর্ব নাখালপাড়া বোনের বাড়িতে চলে যায়।

এ ব্যাপারে সূচনার খালা আফিয়া বেগম জানান, শনিবার (৯ মার্চ) বিকেলে আমার বোন তার দুই মেয়েকে নিয়ে আমার বাসায় আসে।

আফিয়া বেগম আরো বলেন, ওই দিন রাত ৯টার দিকেই সূচনা ৭তলা ভবনের ছাদ থেকে লাফ দেয়। এতে করে সে গুরুতর আহত হয়। এরপর মুমূর্ষু অবস্থায় তাকে রাজধানীর তেজগাঁও শিল্প এলাকার একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানেই চিকিৎসাধীন রবিবার (১১ মার্চ) সকাল সাড়ে ৯টার দিকে মারা যায় সূচনা।

এদিকে, পুঠিয়া বালিকা উচ্চবিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুস সাত্তার জানান, সূচনা খাতুন আমাদের বিদ্যালয়ের ভোকেশনাল শাখা থেকে এ বছর এসএসসি পরীক্ষার্থী ছিল।

পুঠিয়া থানার ওসি সায়েদুর রহমান ভূঁইয়া জানান, অসামাজিক কাজে লিপ্ত থাকার অভিযোগে আমরা ঘটনাস্থলে যাই। পরে দুই যুবক সহ ওই মেয়েকে আটক করে জেল হাজতে প্রেরণ করি। এ বিষয়ে থানায় একটি মামলা হয়েছে।

স্কুলছাত্রী সূচনা খাতুনের আত্মহত্যার বিষয়ে জানতে চাইলে ওসি সায়েদুর রহমান ভূঁইয়া, ওই মেয়েটি মারা গেছে কি না সেটি আমার জানা নেই।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন