মঙ্গলবার, ২৬ মার্চ ২০১৯ ০৬:০৭:৩৩ এএম

যেভাবে অপুকে ‘প্রপোজ’ করেছিলেন শাকিব

বিনোদন | সোমবার, ১২ মার্চ ২০১৮ | ০১:৫২:৪৩ পিএম

বিগত বছরের ২২ নভেম্বর অপু বিশ্বাসকে তালাক নোটিশ দিয়েছিলেন শাকিব খান। আইন অনুযায়ী সেটা কার্যকর হতে সময় লাগে ৯০ দিন অর্থাৎ ৩ মাস। গত ২২ ফেব্রুয়ারি অপুকে পাঠানো শাকিবের তালাক নোটিশের ৯০ দিন পূরণ হয়েছে। আর ওইদিন থেকে শাকিব-অপুর ডিভোর্স কার্যকর হওয়ার কথা। তবে ওই সময় শাকিব-অপুর বিবাহ বিচ্ছেদ কার্যকর হয়নি বলে জানান ঢাকা সিটি করপোরেশনের (অঞ্চল-৩) প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা হেমায়েত হোসেন।

তিনি বলেন, আমরা সিটি করপোরেশন তাদের তিন মাসে তিনবার ডাকব, সেই তৃতীয়বার বিষয়টির ফয়সালা হবে। তিনি আরও জানান, আজ ১২ মার্চ তৃতীয় ও শেষবারের জন্য তাদের ডাকা হয়েছে। এদিন যদি তারা না উপস্থিত হন, তাহলে বিবাহ বিচ্ছেদ কার্যকর হয়ে যাবে। আজই কার্যকর হতে যাচ্ছে তারকা দম্পতির বিচ্ছেদ, কিন্তু তাদের সেই গল্পের শুরুটা কীভাবে হয়েছিল, আরও পরিষ্কার করে বললে কে কাকে প্রপোজ করেছিল এবং সেটা কিভাবে? অপুর মুখ থেকেই শুনে নেওয়া যাক সেই গল্প।

অপু বলেন, ‘২০০৮ সালের ১৭ এপ্রিল। আমরা আশুলিয়ার প্রিয়াঙ্কা শুটিং স্পটে সোহানুর রহমান সোহান ভাইয়ের ‘কথা দাও সাথী হবে’ ছবির কাজ করলাম। কাজ শেষে শাকিব বলল, তোমার সঙ্গে জরুরি কথা আছে, সন্ধ্যায় অবশ্যই দেখা করতে হবে। তার মুখ থেকে যে কথাটি শোনার জন্য এতদিন অধীর হয়ে ছিলাম। এক সময় ও বলল আমি তোমাকে বিয়ে করতে চাই এবং তা আগামীকালই। মেঘ না চাইতেই বৃষ্টি পাওয়ার আনন্দে মনটা আকাশ-বাতাস কাঁপিয়ে নেচে উঠল। নিঃসংকোচে তার হাতে হাত রাখলাম। শাকিব বুকে টেনে নিল আমাকে। আমরা দুজন মুহূর্তেই এক হয়ে গেলাম। মনে হলো এ বাঁধন কখনো যাবে না ছিঁড়ে। হাজির হলাম মিরপুরের শাহআলী মাজারে। সেখান থেকে দোয়া নিয়ে নতুন দিনের মহানন্দে চলে গেলাম যার যার বাড়িতে।’

উল্লেখ্য, ২০০৮ সালে শাকিবের গুলশানের বাসায় বিয়ে হয় তাদের দুই জনের। ফরিদপুর থেকে আনা কাজী তাদেরকে বিয়ে পড়ান ওই বছরের ১৮ এপ্রিল। আর দুই জনের সন্তান পৃথিবীতে আসে ২০১৭ সালের ২৭ সেপ্টেম্বরে। ভারতের কলকাতার একটি ক্লিনিকে শিশুটির জন্ম হয়।

প্রসঙ্গত, ২০০৬ সালে প্রথম শাকিবের সঙ্গে অপু বিশ্বাস জুটি বাঁধেন। এর পর এক দশক ধরেই নানা সিনেমায় নায়ক-নায়িকার ভূমিকায় ছিলেন দুজন। অপু জানান, সিনেমার প্রেম গিয়ে গড়ায় ব্যক্তি জীবনেও।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন