মঙ্গলবার, ২২ মে ২০১৮ ০৪:৪১:০৩ এএম

ইউএস-বাংলা দূর্ঘটনা: বিমান বিধ্বস্ত, পাল্টাপাল্টি অভিযোগ

জাতীয় | সোমবার, ১২ মার্চ ২০১৮ | ০৮:২৯:৩৬ পিএম

নেপালেরর বিমানবন্দরের ট্রাফিক কন্ট্রোল থেকে ভুল বার্তা দেওয়ার কারনে বিভ্রান্তির ফলে বিমান দূর্ঘটনা ঘটতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন ইউএস বাংলা এয়ারলাইন্সের নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) ইমরান আসিফ।

এদিকে বিধ্বস্ত ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের পাইলট বিমানবন্দরে অবতরণকালে কন্ট্রোল টাওয়ারের নির্দেশনা মানেননি। নির্দেশনা না মানার পরক্ষণেই এটি বিধ্বস্ত হয়। বলে অভিযোগ করেছেন কাঠমান্ডুর ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের মহাব্যবস্থাপক (জিএম) রাজকুমার ছেত্রী।

সোমবার (১২ মার্চ) দুপুরে কাঠমান্ডুর ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের পাশে প্লেনটি বিধ্বস্ত হওয়ার পর বিমানবন্দরের মহাব্যবস্থাপক (জিএম) রাজকুমার ছেত্রী সাংবাদিকদের কাছে এ দাবি করেন।

তিনি বলেন, প্লেনটি ২টা ১৮ মিনিটে বিধ্বস্ত হয়। তার আগে কন্ট্রোল টাওয়ারের পক্ষ থেকে প্লেনের পাইলটের সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়, সে হিসেবে এটি ২টার দিকে অবতরণের কথা।

ছেত্রীর বলেন, যোগাযোগ করা হলে পাইলট কন্ট্রোল টাওয়ারকে জানান তিনি বিমাবন্দরের উত্তর-পার্শ্ব থেকে এসে নামবেন, কিন্তু হঠাৎ দেখা যায় প্লেনটি উত্তর-পূর্ব পাশে চলে গেছে। এরপর কন্ট্রোল টাওয়ার ফের তার সঙ্গে যোগাযোগ করে কোনো সমস্যা হয়েছে কিনা জানতে চায়, তখনও পাইলট বলেন যে সব ঠিক আছে। তারপর দেখা গেলো প্লেনটি হঠাৎ রানওয়ে থেকে ছিটকে পড়লো এবং সঙ্গে সঙ্গে আগুন ধরে গেলো।

বিমান দূর্ঘটনায় এ পর্যন্ত ৫০ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। এবং ১৭ জনকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে। বিমানের ৬৭ জন যাত্রীর মধ্যে এর মধ্যে ৩২ জন বাংলাদেশের ও ৩৩ জন নেপালের বাকী দুইজন মালদ্বীপ ও চীনের নাগরিক বলে জানা গেছে।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন