রবিবার, ১৯ আগস্ট ২০১৮ ১২:২৯:২৫ এএম

দুর্ঘটনায় আক্রান্ত বাংলাদেশি যাত্রীদের স্বজনদের নেপাল নিচ্ছে ইউএস-বাংলা

জাতীয় | সোমবার, ১২ মার্চ ২০১৮ | ১০:১৪:৫১ পিএম

বিমান দুর্ঘটনায় আক্রান্তদের প্রতি পরিবার থেকে একজনকে নেপালে নেবে ইউএস বাংলা এয়ারলাইন্স কর্তৃপক্ষ। বুধবার সকাল ৮টায় রিজেন্ট এয়ারওয়েজের ফ্লাইটটি ঢাকা ছেড়ে যাবে বলে জানিয়েছে ইউএস-বাংলা।

বেসরকারি বিমান সংস্থা ইউএস বাংলার জেনারেল ম্যানেজার কামরুল ইসলাম গণমাধ্যমকে জানান, বিমান দুর্ঘটনার শিকার এসব বাংলাদেশির পরিবারের ইচ্ছুক একজন সদস্য বুধবার ভোরে ইউএস বাংলার প্রধান কার্যালয় ৭৭ সোহরাওয়ার্দী অ্যাভিনিউ, বারিধারায় যোগাযোগ করার জন্য বলা হয়েছে।

ভুক্তভোগীদের পরিবারের এসব সদস্যদের সার্বিক ব্যবস্থাপণা করবে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স কর্তৃপক্ষ।

এদিকে বিমান দুর্ঘটনায় বেঁচে যাওয়া ১৬ যাত্রীর নামের তালিকা ইউএস বাংলা কর্তৃপক্ষের হাতে এসেছে বলে জানান কামরুল ইসলাম।

ইউএস বাংলা থেকে দেওয়া জীবিত উদ্ধার ১৬ জনের তালিকা:

ইমরানা কবির হাসি, পিঞ্চি ধামী, সামিনা বয়ানজাংকার, কবির হোসেন, মেহেদী হাসান, রেজওয়ানা আব্দুল্লাহ, স্বর্ণা সৈয়দা কামরুন্নাহার, শাহরিন নাহার, মো শাহীন বেপারী, কিশোর ত্রিপাঠী, হারি প্রসাদ সবেদী, ডায়ারান তাম্রাকার, কেশাব পান্ডে, বাসান্তা বহুরা, আশিষ সঞ্জিত ও বিনোএ রাজ পাডিয়াল।

এদিকে, দুর্ঘটনার শিকার পরিবার গুলোর সদস্যরা রাজধানীর বারিধারার ইউএস বাংলা কার্যালয়ে ছুটে আসছেন। তাারা বিভিন্ন ভাবে স্বজনদের খোঁজ নেওয়ার চেষ্টা করছেন। এর মধ্যে মজিদা আক্তার বিথী নামের একজন স্বজন তার বোন-দুলাভাইয়ের খোঁজ নিতে বারিধারার ওই অফিসে এসে নিজেই জ্ঞান হারিয়ে ফেলেন। এ সময় দ্রুত তাকে হাসপাতালে নেওয়া হয়।

এর আগে দেওয়া এক মন্তব্যে তিনি বলেন , জীবীত কিংবা মৃত যে অবস্থায়ই থাকুন না কেন খুব দ্রুত তাদের খোঁজ জানতে চাই। পরিবারের প্রতিটি সদস্য উদ্বেগে রয়েছেন বলেও এসময় বলেন বিথী।

এদিকে একটি প্রতিনিধি দল সোমবার সন্ধ্যা পৌনে সাতটার দিকে আরএক্স-৭৯৫ ফ্লাইটে করে নেপালে পৌঁছেছেন। এ প্রতিনিধি দলে আছেন রিজেন্ট এয়ারওয়েজের এজিএম মো. জাফরুজ্জামান, বিমান বন্দরের পরিচালক কাজী ইকবাল করিম, সিভিল অ্যাভিয়েশনের অ্যাকসিডেন্ট এক্সপার্ট (দুর্ঘটনা বিশেষজ্ঞ) সারওয়ার ভূইয়া ও ইউএস-বাংলার ক্যাপ্টেন লুৎফর রহমান।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন