শুক্রবার, ২০ এপ্রিল ২০১৮ ০৪:৫৩:৪২ পিএম

দেশে ফিরলেন শেহরিন

জাতীয় | বৃহস্পতিবার, ১৫ মার্চ ২০১৮ | ০৫:৫০:৩৮ পিএম

নেপালে বিমান দুর্ঘটনায় আহত শেহরিন আহমেদ দেশে ফিরেছেন। বিমানবন্দর থেকে তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে নেয়া হচ্ছে।

বৃহস্পতিবার (১৫ মার্চ) বিকেল পৌনে ৪টার দিকে শেহরিনকে বহনকারী বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের বিজি০০৭২ ফ্লাইটটি হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করে।

দেশটির কাঠমান্ডু মেডিকেল কলেজ (কেএমসি) হাতপাতাল কর্তৃপক্ষ অনাপত্তি দেয়ায় তাকে দেশে ফিরিয়ে আনা হলো। শেহরিন আহমেদের খালাতো ভাই ইমন জানান, ঢাকায় তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজে (ঢামেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হবে।

জানা গেছে, বিমান দুর্ঘটানায় শেহরিন আহমেদের পা ভেঙে গেছে ও শরীরের ৮ থেকে ১০ শতাংশ পুড়ে গেছে। সে কাঠমান্ডু মেডিকেল কলেজের (কেএমসি) প্ল্যাস্টিক সার্জারি অ্যান্ড বার্ন ইউনিট-৩ এ চিকিৎসাধীন ছিলেন।

ঢামেকের বার্ন ইউনিটের সমন্বয়কারী ডা. সামন্ত লাল সেন বলেন, নেপালের কাঠমান্ডু মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের প্লাস্টিক সার্জারি অ্যান্ড বার্ন ইউনিট-৩ এ শেহরিন আহমেদকদের চিকিৎসা চলছিল। তার পা ভেঙে যাওয়াসহ শরীরের ৮ থেকে ১০ শতাংশ পুড়ে গেছে।

গত সোমবার (১২ মার্চ) ঢাকা থেকে ছেড়ে যাওয়া ইউএস বাংলা এয়ারলাইন্সের ফ্লাইট বিএস-২১১ নেপালের রাজধানী কাঠমান্ডুর ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে দুর্ঘটনায় পতিত হয়। ৬৭ যাত্রী ও চার ক্রুসহ দুপুর ২টা ২০ মিনিটে বিমানটি বিমানবন্দরের পাশের একটি ফুটবল মাঠে বিধ্বস্ত হয়। এতে ৫১ যাত্রীর প্রাণহানি ঘটে। বাকিদের উদ্ধার করে বিভিন্ন হাসপাতলে ভর্তি করা হয়েছে।

বিমানটিতে মোট ৬৭ যাত্রীর মধ্যে বাংলাদেশি ৩২ জন, নেপালি ৩৩ জন, একজন মালদ্বীপের ও একজন চীনের নাগরিক ছিলেন। তাদের মধ্যে পুরুষ যাত্রীর সংখ্যা ছিল ৩৭, মহিলা ২৮ ও দু’জন শিশু ছিল।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন