বুধবার, ২৫ এপ্রিল ২০১৮ ১১:০২:৩৪ এএম

ম্যাচে হেরে যাওয়ায় যা বললেন থিসারা পেরেরা

খেলাধুলা | শনিবার, ১৭ মার্চ ২০১৮ | ০১:৪২:৫৮ পিএম

ফাইন লেগে দাঁড়িয়ে সাকিব আল হাসানের ক্যাচ ধরে নাগিন ড্যান্সে আগেই জয়ের উল্লাস করে ফেলেছিলেন শ্রীলঙ্কার ফিল্ডার আকিলা ধনঞ্জয়া। ম্যাচ জিততে তখনও বাংলাদেশের প্রয়োজন ছিল ১২ বলে ২৩ রান। কিন্তু তখন কে জানত, ম্যাচশেষে দল বেধে টাইগাররাই নাগিন ড্যান্স দিয়ে জয় উদযাপন করবেন! দারুণ উত্তেজনার একটি ম্যাচ ২ উইকেট ও ১ বল হাতে রেখে জিতেছে বাংলাদেশ। সাথে নিশ্চিত করেছে ফাইনালও।

অথচ ঘরের মাঠে নিজেদের স্বাধীনতার ৭০তম বার্ষিকী উদযাপনে আয়োজিত নিদাহাস ট্রফির ফাইনালে দর্শক হয়েই থাকতে হচ্ছে লঙ্কানদের। তাই স্বাভাবিকভাবেই হতাশ দলটির ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক থিসারা পেরেরা। ১৬০ রানের লক্ষ্য রেখে হেরে যাওয়ার পর তার কন্ঠে ঝরে পড়ল আর ১০-১৫টি রান বেশি করতে না পারার আক্ষেপ।

অথচ টস হেরে ব্যাট করতে নেমে ৯ ওভারের মধ্যে ৫ উইকেট হারিয়ে ৪১ রানে ধুঁকছিল শ্রীলঙ্কা। সেখান থেকে থিসারা ও কুশল পেরেরার জোড়া হাফসেঞ্চুরি এবং ৯৭ রানের ষষ্ঠ উইকেট জুটিতে ভর করে ২০ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে ১৫৯ রান করে দলটি। লক্ষ্য তাড়া করতে নামা বাংলাদেশ ১২ ওভারে ২ উইকেট হারিয়ে ৯৫ রান করে জয়ের পথে থাকলেও পরের ৩ ওভারে ৩ উইকেট নিয়ে চাপে ফেলে দেয় লঙ্কানরা।

আর সাকিব আউট হওয়ার পর মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ছাড়া আর কোন প্রতিষ্ঠিত ব্যাটসম্যান না থাকায় চাপ আরো বাড়ে। এরপরই মেহেদী হাসান মিরাজ ও মোস্তাফিজুর রহমানের দু’টি রান আউট এবং নো-বল নিয়ে ভুল বোঝাবুঝি, শেষ ৪ বলে জয়ের জন্য ১২ রানের উত্তেজনা এবং মাহমুদউল্লাহর ক্যামিওতে জয়।

এমন ম্যাচে জয়ী দলটির নাম শ্রীলঙ্কাও হতে পারত। তা না হওয়ায় হতাশ লঙ্কান অধিনায়ক থিসারা, ‘খুব কঠিন ম্যাচ ছিল। হেরে যাওয়ায় আমি খুবই হতাশ।’ পুরো নিদাহাস ট্রফিতে ভক্তদের আকুন্ঠ সমর্থন পেয়েছেন স্বাগতিকরা। তাই এই ম্যাচটি জিতে ফাইনালে উঠতে না পারায় এই ২৮ বছর বয়সী ক্ষমা চেয়ে নিয়েছেন তাদের কাছে, ‘আমরা ফাইনালে উঠতে পারি নি। আমি সেজন্য খুবই দুঃখিত। তবে আপনাদের সমর্থনের জন্য ধন্যবাদ।’

সর্বশেষ সাক্ষাতে এই ভেন্যুতেই বাংলাদেশের সামনে ২১৫ রানের লক্ষ্য দিয়ে হেরেছিল শ্রীলঙ্কা। তবে শুক্রবার ম্যাচের পরিস্থিতি বিবেচনায় আর ১০ থেকে ১৫ রান বেশি হলে ফলাফল অন্যরকম হতে পারত বলে মনে করেন থিসারা, ‘আসলে ১০-১৫টা রান কম হয়ে গেছে। তারপরও ১৬০ রান নিয়ে আসলে জেতা সম্ভব ছিল।’

ফাইনালে না উঠলেও পুরো নিদাহাস ট্রফিতে খারাপ খেলেনি শ্রীলঙ্কা। দলের তরুণেরাও পারফর্ম করেছেন। এটাই সান্তনা থিসারা কাছে। সাথে এই অল রাউন্ডার আশা প্রকাশ করে গেলেন এই তরুণদের হাতে ২০১৯ সালের বিশ্বকাপে ভাল ফলাফলের।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন