মঙ্গলবার, ১৬ অক্টোবর ২০১৮ ০৯:১২:৫৮ পিএম

এমপি লিটন হত্যা মামলার সাক্ষ্যগ্রহণ পেছালো

জেলার খবর | গাইবান্ধা | রবিবার, ১৮ মার্চ ২০১৮ | ০৫:০৩:০৩ পিএম

গাইবান্ধা-১ (সুন্দরগঞ্জ) আসনের ক্ষমতাসীন দলের এমপি মঞ্জুরুল ইসলাম লিটন হত্যা মামলার প্রধান আসামি সাবেক এমপি আব্দুল কাদের খাঁনের অসুস্থ্যতার কারণে সাক্ষ্যগ্রহণ পিছিয়ে ২ এপ্রিল ধার্য্য করেছেন আদালত। রোববার জেলা ও দায়রা জজ আদালতে এই সাক্ষ্যগ্রহণের দিন ধার্য্য ছিলো। পরে জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক রাশেদা সুলতানা এ মামলার সাক্ষ্যগ্রহণে দিন আগামী ২ এপ্রিল ধার্য্য করেন।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবি পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) মো. শফিকুল ইসলাম শফিক বলেন, ‘এমপি মঞ্জুরুল ইসলাম লিটন হত্যা মামলায় ৭ ফেব্রুয়ারি সাবেক এমপি আব্দুল কাদের খানসহ আট আসামির বিরুদ্ধে চার্জ গঠন করে আদালত। চার্জ গঠনের পর সাক্ষ্যগ্রহণের জন্য ১৮ মার্চ দিন ধার্য্য করেন বিচারক। ধার্য্য তারিখ অনুযায়ী সাক্ষ্য দিতে মামলার বাদি ফাহমিদা বুলবুল কাকুলী আদালতে উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া মামলার প্রধান আসামি আব্দুল কাদের খানকে কারাগার থেকে আদালতে আনা হয়। কিন্তু আব্দুল কাদের খান শারীরিকভাবে অসুস্থ্য হওয়ায় সাক্ষ্যগ্রহণ হয়নি। আগামী ২ এপ্রিল এ মামলার পরবর্তী সাক্ষ্যগ্রহণের তারিখ ধার্য্য করেছেন বিচারক।

প্রসঙ্গত: ২০১৬ সালের ৩১ ডিসেম্বর সুন্দরগঞ্জ উপজেলার বামনডাঙ্গার শাহবাজ (মাস্টারপাড়া) গ্রামের নিজ বাড়িতে আততায়ীদের গুলিতে নিহত হন মঞ্জুরুল ইসলাম লিটন। এ ঘটনায় লিটনের বোন ফাহমিদা বুলবুল কাকুলী বাদী হয়ে অজ্ঞাত ৪-৫ জনকে আসামি করে সুন্দরগঞ্জ থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। পরে ২০১৭ সালের ৩০ এপ্রিল একই আসনের জাপার সাবেক এমপি অবসরপ্রাপ্ত কর্ণেল আব্দুল কাদের খাঁনসহ ৮ জনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন পুলিশ।

চার্জশিটভুক্ত আসামিরা হলেন, স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা চন্দন কুমার, কাদের খানের পিএস শামছুজ্জোহা, তার ব্যক্তিগত গাড়ি চালক আব্দুল হান্নান, ভাড়া করা কিলার মেহেদী হাসান, শাহীন মিয়া, রানা মিয়া ও কসাই সুবল চন্দ্র। আসামিদের মধ্যে চন্দন কুমার পলাতক রয়েছেন। এছাড়া অন্য আসামিরা কারাগারে আছেন।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন