সোমবার, ২২ অক্টোবর ২০১৮ ০১:৪৪:০৫ পিএম

রাবির ১২ শিক্ষকের জন্য বিশেষ নিরাপত্তা

মো: নুরুজ্জামান খান | শিক্ষাঙ্গন | শুক্রবার, ২৩ মার্চ ২০১৮ | ১০:৪৭:২৬ এএম

দেশবরেণ্য লেখক এবং সিলেট শাহজালাল বিজ্ধসঢ়;হান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক জাফর ইকবালের ওপর সন্ত্রাসী হামলার ফলে নিরাপত্তা শঙ্কায় ভুগছেন অনেক লেখক ও শিক্ষক।

এ বিষয়টি বিবেচনা করে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) বর্তমান এবং সাবেক ১২ শিক্ষককে বিশেষ নিরাপত্তার আওতায় এনেছে রাজশাহী মহানগর পুলিশ (আরএমপি)। জানা গেছে, এ সকল শিক্ষকদের সার্বক্ষণিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করছেন আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা।

আরএমপি কমিশনার মাহাবুবুর রহমান বলছেন, নিরাপত্তা পাওয়া শিক্ষকরা ইতোমধ্যে বেশকিছু ব্যক্তি, জঙ্গিগোষ্ঠীর কাছ থেকে নানা ধরণের হুমকি পেয়েছেন। এসব তথ্য আমাদের কাছে রয়েছে। তাঁরা যাতে কোনো প্রকার হামলার শিকার না হন সেজন্য তাঁদের বিশেষ নজরদারিতে রাখা হচ্ছে।

তাঁদের নিরাপত্তার বিষয়টি সর্বোচ্চ গুরুত্ব দেয়া হচ্ছে। বিশেষ নিরাপত্তা পাওয়া এ ১২ শিক্ষক হলেন- বিশ্ববিদ্যালয়ের দর্শন বিভাগের সাবেক অধ্যাপক বিশিষ্ট কথাসাহিত্যিক অধ্যাপক হাসান আজিজুল হক, রাবির সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক মুহম্মদ মিজানউদ্দিন, ইতিহাস বিভাগের অধ্যাপক আবুল কাশেম, সহকারী অধ্যাপক গোলাম সারওয়ার, সমাজবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক মুহাম্মদ হাসান ইমাম, বাংলা একাডেমি পুরস্কারপ্রাপ্ত নাট্যকার ও ব্যবস্থাপনা বিভাগের অধ্যাপক মলয় কুমার ভৌমিক, দর্শন বিভাগের অধ্যাপক এসএম আবুবকর, বাংলা বিভাগের অধ্যাপক সরকার সুজিত কুমার, সমাজকর্ম বিভাগের অধ্যাপক সাদেকুল আরেফিন মাতিন, আইন বিভাগের অধ্যাপক হাসিবুল আলম প্রধান, গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক সেলিম রেজা নিউটন এবং ফোকলোর বিভাগের সহকারি অধ্যাপক আমিরুল ইসলাম কনক। খোঁজ নিয়ে দেখা যায়, এসব শিক্ষকদের মধ্যে অধ্যাপক হাসান আজিজুল হক ও অধ্যাপক মুহাম্মদ হাসান ইমাম বাড়ির বাইরে তাদের নিরাপত্তায় পোশাকধারী এবং সাদা পোশাকে পুলিশ মোতায়েন থাকছে। বিশ্ববিদ্যালয়ে অবস্থানের সময়ও হাসান ইমামের জন্য পুলিশ পাহারা রাখা হচ্ছে।

এ ছাড়া বাকি শিক্ষকদের সঙ্গে পুলিশের গোয়েন্দা বিভাগের সদস্যরা সরাসরি যোগাযোগ রাখছেন এবং খোঁজ-খবর নিচ্ছেন। তাদের কেউ চাইলে সব ধরনের নিরাপত্তা দিতে প্রস্তুত পুলিশ। বিশ্ববিদ্যালয়ের নিরাপত্তার কাজে নিয়োজিত কর্মকর্তারা বলছেন, গত ৩ মার্চ অধ্যাপক মুহম্মদ জাফর ইকবালের ওপর প্রকাশ্যে হামলার পর থেকে তারা বেশি তৎপর হয়েছেন। আবার একই সঙ্গে বিভিন্ন সময় হুমকি পাওয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের মুক্তিমনা শিক্ষকদের বাড়তি নিরাপত্তার বিষয়টি চিন্তা করা হচ্ছে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক লুৎফর রহমান বলেন, জাফর ইকবালের ওপর হামলার পর পুলিশের পক্ষ থেকে বাড়তি নিরাপত্তা দেয়ার জন্য আমাদের কাছ থেকে শিক্ষকদের একটি তালিকা চাওয়া হয়েছিল। কিন্তু পরে সেই তালিকা পুলিশ আর নেয়নি। পরে হয়তো বা নিজেরা একটা তালিকা করে শিক্ষকদের নিরাপত্তা বাড়িয়েছে।

বিশ্ববিদ্যালয়, পুলিশ ও গোয়েন্দা বিভাগ সামগ্রিকভাবে তৎপর আছে। আরএমপি কমিশনার মো. মাহাবুবর রহমান নিরাপত্তার বিষয়ে বলেন, ‘কয়েকজন শিক্ষককে নিরাপত্তা দেয়া হচ্ছে। তাঁদের সতর্কভাবে চলা উচিত, কেননা তাদের ওপর হুমকি আছে বলে আমরা মনে করি। তারা বাইরে যখন যাচ্ছেন আমাদের জানাচ্ছেন, আমরা জাস্ট ফলো করছি।’

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন