শুক্রবার, ২০ জুলাই ২০১৮ ০২:৪৯:২৭ পিএম

ব্যারিস্টার তাপসের পদত্যাগপত্র গৃহীত হয়নি

আইন আদালত | রবিবার, ২৫ মার্চ ২০১৮ | ০৭:৩২:২৭ পিএম

বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবী সমিতির (বার) নির্বাচনে সরকারি দল সমর্থিত প্রার্থীদের ভরাডুবির পর পরিষদের সদস্য সচিবের পদ থেকে অব্যাহতি চেয়ে পদত্যাগপত্র জমা দেন ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস। তবে তার সেই পদত্যাগপত্র গ্রহণ করেননি আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

রবিবার (২৫ মার্চ) বিকালে সংশ্লিষ্টদের এক বৈঠকের পর সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম। তিনি বলেন, ‘ব্যারিস্টার তাপসের পদত্যাগের বিষয়ে আমরা কয়েকজন আইনজীবী আলোচনায় বসেছিলাম। সেখানে উপস্থিত আইনজীবীরা সবাই তাকে পদত্যাগ না করার অনুরোধ জানান। এসময় বিষয়টি নিয়ে তিনি (ফজলে নূর তাপস) কান্নায় ভেঙে পড়েন। পরে তার পদত্যাগপত্র গৃহীত হয়নি।’

জানা গেছে, বিকালে ব্যারিস্টার তাপসের চেম্বারে (সুপ্রিম কোর্ট বার ভবনে) বৈঠকের জন্য যান অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম, পরিষদের আহ্বায়ক ইউসুফ হোসেন হুমায়ুন, আওয়ামী লীগের আইন বিষয়ক সম্পাদক শ ম রেজাউল করিম প্রমুখ। এসময় বিপুল অসংখ্য তরুণ আইনজীবীও সেখানে উপস্থিত থেকে ফজলে নূর তাপসকে তার পদত্যাগপত্র প্রত্যাহারের অনুরোধ জানান।

এর আগে শনিবার (২৪ মার্চ) আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের এবং পরিষদের আহ্বায়ক অ্যাডভোকেট ইউসুফ হোসেন হুমায়ুনের কাছে এই পদত্যাগপত্র জমা দেওয়া হয়। রবিবার দুপুরে তিনি নিজেই সাংবাদিকদের এ কথা জানান।

পদত্যাগের ব্যাপারে ব্যারিস্টার তাপস বলেন, ‘সাংগঠনিকভাবে মনোনীত প্রার্থীরা জয়যুক্ত হতে পারেননি। আমি মনে করি এই ব্যর্থতার দায় আমার নিজের। তাই পদ থেকে অব্যাহতি চেয়ে পদত্যাগপত্র জমা দিয়েছি।’

প্রসঙ্গত, ২১ ও ২২ মার্চ অনুষ্ঠিত সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির ২০১৮-১৯ মেয়াদের নির্বাচনে বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবী পরিষদ-সমর্থিত সম্মিলিত আইনজীবী সমন্বয় পরিষদ ১৪ পদের বিপরীতে মাত্র চারটিতে জয়ী হয়। নির্বাচনে সভাপতি, সম্পাদকসহ ১০টি পদে জয় পান বিএনপি ও জামায়াত-সমর্থিত আইনজীবীদের প্যানেল।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন