শুক্রবার, ২৭ এপ্রিল ২০১৮ ০২:৫৭:৪৬ পিএম

‘চেয়েছিলাম অভিনয় করে পেটের ভাত ও সংসারটা চালাতে’

বিনোদন | সোমবার, ২৬ মার্চ ২০১৮ | ১০:০৭:৩৫ এএম

ভারতীয় বাংলা সিনেমার জনপ্রিয় অভিনয়শিল্পী রজতাভ দত্ত। টলিউডে তিনি রণিদা নামেও সমধিক পরিচিত। ১৯৮৭ সাল থেকে থিয়েটারে অভিনয় করছেন তিনি। তবে বর্তমানে চলচ্চিত্রের কাজ নিয়েই বেশি ব্যস্ত থাকেন এই অভিনেতা।

কলকাতার পাশাপাশি বাংলাদেশেও পরিচিত তিনি। মজার ব্যাপার হলো- বর্ষিয়ান এই অভিনেতা চলচ্চিত্রে একজন জুনিয়র শিল্পী হিসেবে কাজ শুরু করেছিলেন। তারপর মেধা আর পরিশ্রমের বিনিময়ে পেয়েছেন যশ-খ্যাতি। যে কোনো চরিত্রে মিশে যাওয়ার অদ্ভুত এক শক্তি রয়েছে তার। কিন্তু প্রতিষ্ঠা পাওয়ার আগের গল্পটা তার মোটেই সুখকর ছিল না।
এ প্রসঙ্গে ভারতীয় একটি সংবাদমাধ্যমে সাক্ষাৎকার দিয়েছেন রজতাভ দত্ত। এ সময় প্রশ্ন করা হয়, জুনিয়র শিল্পী থেকে আজকের রজতাভ দত্তর স্ট্রাগলের গল্পটা জানতে চাই- জবাবে রজতাভ দত্ত বলেন, ‘তখন তো বুঝতেই পারিনি স্ট্রাগল করছি। আমার রাতারাতি কিছু হয়নি, বিভিন্ন ধাপের মধ্য দিয়ে এগুতে হয়েছে। একটু একটু করে স্বপ্ন, সাফল্যে সব বদলে গেছে। তবে আমার কখনো খুব হতাশ লাগেনি, আমি নিরাশাবাদী নই। সবসময়ই খুব ইতিবাচক। আমি চেয়েছিলাম অভিনয়টা করে পেটের ভাত ও সংসারটা চালাতে। সেটুকু যে হয়েছে, এটা আমার কাছে অনেক।’

আপনার সঙ্গে কি এমন কোনো ঘটনা ঘটেছে যা আপনি চান না, তা অন্য কোনো শিল্পীর সঙ্গে ঘটুক? এমন প্রশ্নের জবাবে রজতাভ দত্ত বলেন, ‘‘একবার এক শুটিং সেটে দুপুরের খাবারের বিরতি পড়ল। তখন আমি জুনিয়র আর্টিস্ট। যাই হোক, আমি খাবার খাচ্ছিলাম- এ অবস্থায় সেটের এক সিনিয়র শিল্পী আমাকে বললেন, ‘এ খাবার তো সিনিয়র শিল্পীদের, তুমি এটা খাচ্ছো কেন?’ এ কথা শুনে আমার খুব মন খারাপ হয়েছিল যে, আমি আর খেতেই পারিনি। এ ঘটনার অনেক বছর পর সেই শিল্পীর সঙ্গে যখন দেখা তখন তিনি অনেকটা বৃদ্ধ। তখন আমি তাকে বলেছিলাম যা আমার সঙ্গে করেছিলে তা আর কারো সঙ্গে করো না। অবশ্য এসব বিষয় আমি আর মনে রাখিনি।’

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন