সোমবার, ১৭ ডিসেম্বর ২০১৮ ১০:৫১:১৩ পিএম

ঠাকুরগাঁওয়ে যথাযোগ্য মর্যাদায় মহান স্বাধীনতা দিবস পালিত

এস. এম. মনিরুজ্জামান মিলন | জেলার খবর | ঠাকুরগাঁও | সোমবার, ২৬ মার্চ ২০১৮ | ১০:১৬:৩৮ পিএম

ঠাকুরগাঁওয়ে যথাযোগ্য মর্যাদায় মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস পালিত হয়েছে। সূর্যোদয়ের সাথে সাথে ৩১ বার তোপধ্বনির মাধ্যমে মুক্তিযোদ্ধা স্মৃতিস্তম্ভে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে শহীদের প্রতি বিনর্ম শ্রদ্ধা নিবেদন করেন জেলা প্রশাসন, জেলা আওয়ামী লীগ, জেলা বিএনপিসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন।

প্রতিবার ঠাকুরগাঁও জেলা স্কুল বড়মাঠে জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে মনোজ্ঞ কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠিত হলেও আগামী ২৯ মার্চ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জনসভার ভেন্যু হওয়ায় সোমবার (২৬ মার্চ) দিবসটি উপলক্ষে ঠাকুরগাঁও জেলা স্কুল বড়মাঠের পরিবর্তে শহীদ মোহাম্মদ আলী স্টেডিয়ামে ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার স্কুল-কলেজের শিশু-কিশোরদের নিয়ে মনোজ্ঞ কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠিত হয়।

জেলা প্রশাসক মো. আক্তারুজ্জামানের সভাপতিত্বে উক্ত কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঠাকুরগাঁও-১ আসনের সাংসদ ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য রমেশ চন্দ্র সেন। এছাড়া অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন পুলিশ সুপার মো. ফারহাত আহমেদ, পৌরমেয়র ও বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য মির্জা ফয়সাল আমিন, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মু. সাদেক কুরাঈশীসহ আরও অনেকে।

অতিথিদের ছাপিয়ে বরাবরের মতো অনুষ্ঠানের কেন্দ্রবিন্দুতে ছিলেন স্বাধীন বাংলাদেশের মূল কারিগর, বীর মুক্তিযোদ্ধারা। অনুষ্ঠানের শুরুতেই এই বীরদের বরণ করে নেয় জেলা প্রশাসন।

এর আগে, স্বাধীনতা দিবসের সূর্যোদয়ের সাথে সাথে টাঙ্গন নদীর তীরে অবস্থিত মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিতে নির্মিত 'অপরাজেয় ৭১' এর পাদদেশে ঠাকুরগাঁওবাসীর পক্ষে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ করেন ঠাকুরগাঁও-১ আসনের সাংসদ রমেশ চন্দ্র সেন। বীর শহীদ মুক্তিযোদ্ধাদের স্মরণে কিছুক্ষণ নীরবে দাঁড়িয়ে থাকেন তিনি। এসময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রশাসক মো. আক্তারুজ্জামান, পুলিশ সুপার ফারহাত আহমেদ, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মু. সাদেক কুরাঈশীসহ আরও অনেকে।

এছাড়াও দিবসটিকে ঘিরে জেলা প্রশাসন, বিভিন্ন রাজনৈতিক দল, মুক্তিযোদ্ধা সংসদসহ বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান দিনব্যাপী বিভিন্ন কর্মসূচি ও প্রতিযোগীতার আয়োজন করেছে। এদিন স্বাধীনতার চেতনাকে বুকে লালন করে সকল বাধা ডিঙিয়ে সুখী-সমৃদ্ধশালী বাংলাদেশ গড়ার দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করেন জেলার সর্বস্তরের মানুষ।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন