সোমবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮ ১১:২১:৩৭ পিএম

নজির গড়ল পশ্চিমবঙ্গ, মুসলমানের দাফনে মাটি দিলেন হিন্দুরা!

আন্তর্জাতিক | মঙ্গলবার, ২৭ মার্চ ২০১৮ | ০৮:২৩:৩৯ পিএম

সম্প্রীতির নজির গড়ল পশ্চিমবঙ্গের মালদহ জেলা। প্রতিবেশী মুসলিম নারীর কবরে মাটি দিলেন তারই প্রতিবেশী হিন্দুরা। ভারতের মালদহের চাঁচলের মালতিপুর গ্রামের আরফুন বেওয়া (৭০) নামের এক নারীর মৃত্যুর খবরে প্রতিবেশীরা তার বাড়িতে ভিড় জমায়।

নির্দিষ্ট সময়ে মরদেহ কবরস্থানে নিয়ে যাওয়া হয়। মুসলিম প্রতিবেশীদের সঙ্গে হিন্দুরাও সেখানে যান। জানাজা শেষে হাতে মুঠো মুঠো মাটি দেওয়া হয় আরফুন বেওয়ার কবরে।

সেই কাজে যোগ দেন তার তিন প্রতিবেশী হিন্দু। তবে মালতিপুরবাসীর লোকজনের কাছে এই ঘটনা নতুন নয়। পুরো গ্রামেই শান্তিপূর্ণভাবে বসবাস করছে দুই সম্প্রদায়ের মানুষ। ধর্মীয় উৎসবে যখন একসঙ্গে মিলিত হয়, তখন দুঃখের দিনের ছবি কী করে আলাদা হয়? তাই মুসলিম প্রতিবেশীর মৃত্যুতে কবরস্থানে উপস্থিত থেকেছেন হিন্দু প্রতিবেশীরা।

একইভাবে হিন্দু প্রতিবেশীর মৃত্যুতে মুসলিম প্রতিবেশীরাও শ্মশানে যান। দীর্ঘদিন ধরেই চলে আসছে এই রেওয়াজ। তাই রাম নবমীর উত্তাপে বিভেদের রাজনীতি শিকড় ছড়ালেও মালতিপুরে মানুষ তার আঁচ পান না। উত্তেজনাতো দূরের কথা।

স্থানীয় বাসিন্দা শুভাশিস বাবু বলেন, ব্রাহ্মণ হয়ে মুসলিম নারীর কবরে মাটি দিতে এসেছি। এটা নতুন কোনো ঘটনা নয়। প্রিয়জনের মৃত্যুতে তো দুঃখই লাগে। মৃত ওই নারীকে মা বলে ডাকতেন তিনি। মায়ের মতোই স্নেহ ভালবাসা দিয়েছেন তিনি। ছেলে হয়ে আজকের দিনে তার কবরে মাটি দেব না এটা হয় কখনও? এখানে কোনোদিন সম্প্রীতির অভাব ঘটেনি। আশাকরি ঘটবেও না। মালতিপুরে আমরা হিন্দু মসলিম ভাই ভাই।

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন