সোমবার, ২৩ জুলাই ২০১৮ ০৩:৫৭:০৭ এএম

ফখরুলের বক্তব্যে বিএনপির ব্যাখ্যা

রাজনীতি | শুক্রবার, ৩০ মার্চ ২০১৮ | ০৮:১৫:১৫ পিএম

কারান্তরীণ বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার চিকিৎসা নিয়ে মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের সংবাদ সম্মেলনে দেয়া বক্তব্যের ব্যাখ্যা দিয়েছেন দলের সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। শুক্রবার দুপুরে সংবাদমাধ্যমে পাঠানো বিবৃতিতে তিনি বলেন, ‘শুক্রবার সকাল সাড়ে ১০টায় নয়াপল্টন কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এক সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন। সেখানে বিএনপি মহাসচিব অত্যন্ত স্পষ্ট ভাষায় বলেন- কারাগারে অসুস্থ বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে অবিলম্বে নিঃশর্ত মুক্তি দিতে হবে এবং কারামুক্তির পর খালেদা জিয়া দেশে নাকি বিদেশে চিকিৎসা করাবেন- সে বিষয়ে তিনি নিজেই সিদ্ধান্ত নিবেন।’

রিজভী বলেন, ‘ইতোমধ্যে কিছু কিছু অনলাইনে মহাসচিবের এই বক্তব্যকে বিকৃত করে প্রচার করা হয়েছে। সংবাদ সম্মেলনে যে বিষয়টি পরিষ্কার করে বলা হয়েছে, সেটিকে উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে মনগড়া বক্তব্য হিসেবে প্রচার করা সৎ সাংবাদিকতাসূলভ নয়। এতে জনমনে বিভ্রান্তি সৃষ্টি হয়।’

বিএনপির পক্ষ থেকে সংশ্লিষ্ট অনলাইনগুলোকে সঠিক বক্তব্যটি প্রচারের জন্যও আহ্বান জানান তিনি। রিজভীর পাঠানো বিবৃতিতে স্বাক্ষর করেছেন বিএনপির সহ-দফতর সম্পাদক মো. তাইফুল ইসলাম টিপু।

উল্লেখ্য, সকালে সংবাদ সম্মেলনে মির্জা ফখরুল সরকারের কাছে দলীয় চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সুচিকিৎসার জন্য বেশ কয়েকটি প্রস্তাবনা তুলে ধরেন। তিনি বলেন, ‘খালেদা জিয়ার চিকিৎসার জন্য আমাদের স্পষ্ট প্রস্তাব রয়েছে। তার (খালেদা জিয়া) ব্যক্তিগত চিকিৎসক যারা রয়েছেন, তাদের দিয়ে স্বাস্থ্য পরীক্ষার ব্যবস্থা করতে হবে। চিকিৎসকদের সুপারিশ অনুযায়ী পরবর্তী ব্যবস্থা নিতে হবে। এজন্য সর্বোত্তম ব্যবস্থা হচ্ছে, যেটা তার প্রাপ্য তাকে জামিনে মুক্তি দিয়ে চিকিৎসার জন্য দেশের বাইরে পাঠানোর ব্যবস্থা করতে হবে।’

বিএনপি মহাসচিব অভিযোগ করেন, ‘খালেদা জিয়াকে নির্জন কারাগারে রেখে সরকার মানসিক নির্যাতন করছে। তাকে যে পরিবেশে রাখা হয়েছে, তাতে স্বাস্থ্যের আরও অবনতির আশঙ্কা করছি আমরা। তিনি (খালোদা জিয়া) আগে যে চিকিৎসাগুলো নিয়েছেন, তা বিদেশে নিয়েছেন। তার ফলোআপ করাটা এখন খুবই জরুরি।’

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘আমরা সুনির্দিষ্টভাবে বলেছি, এখন তার নিঃশর্ত মুক্তি চাই। মুক্তি পাওয়ার পর সিদ্ধান্ত নেয়া হবে, উন্নত চিকিৎসার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা দেশে কিংবা বিদেশে। যেহেতু তিনি এর আগে দেশের বাইরে চিকিৎসা করিয়েছেন, সেহেতু মুক্তি পেলে তিনিই এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিবেন।’

প্যারোলে খালেদা জিয়ার মুক্তি চাইছেন কি-না এ প্রশ্নের জবাতে মির্জা ফখরুল বলেন, ‘আমরা প্যারোলে মুক্তির কথা বলিনি। আমরা বলেছি তাকে মুক্তি দিতে হবে। মুক্তি তো তার প্রাপ্য। তার জামিন হয়ে গেছে ইতোমধ্যে। এখন তাকে মুক্তি দেয়া যেতে পারে।’

খবরটি গুরুত্বপূর্ণ মনে হলে পেজে লাইক দিয়ে সাথে থাকুন